করোনা নিয়ন্ত্রণে ত্রিপুরা লকডাউন: জনশূণ্য আগরতলার সড়ক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লকডাউন ঘোষণার পরপরই আগরতলায় পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা): করোনা ভাইরাস সংক্রমণ (কোভিড-১৯) রোধে লকডাউন করা হয়েছে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য। লকডাউনের ঘোষণার পরপরই জনশূণ্য হয়ে পড়েছে রাজধানী আগরতলার সড়ক।

এর আগে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) রাজ্য সরকার স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় এ লকডাউনের ঘোষণা দেয়। ৩১ মার্চ পর্যন্ত এ লকডাউন চলবে বলে জানানো হয়।

লকডাউনে খাবার, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য, ওষুধের দোকানসহ জরুরি পরিষেবা ছাড়া সবকিছুই বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রয়োজন ছাড়া সাধারণ মানুষকে বাড়ি থেকে বের হতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বারণ করা হয়েছে।

লকডাউন ঘোষণার পরপরই আগরতলায় পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। রাস্তায় কাউকে ঘোরাফেরা করতে দেখলেই তল্লাশি ও জিজ্ঞেসাবাদ করতে দেখা যায় তাদের। পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের তৎপরতায় আগরতলার রাস্তা জনশূন্য হয়ে পড়েছে।

এদিকে ত্রিপুরা রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হচ্ছে, রাজ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্যসহ অন্য অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও ওষুধ মজুদ আছে। কেউ যেনো অহেতুক চিন্তা না করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২০
এসসিএন/এবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আগরতলা করোনা ভাইরাস
মেয়ের কাছে যৌতুক চেয়ে উল্টো যৌতুক দিতে হলো ছেলেকে
করোনা: ফরজ নামাজের পরেই বন্ধ মসজিদের দরজা
চমেক হাসপাতালে পিপিই দিলো সানশাইন চ্যারিটি
চট্টগ্রামে আরও ১০৪ জনের করোনা পরীক্ষা, আক্রান্ত নেই
করোনা: বাংলাদেশে শুধু বয়স্ক নয়, ঝুঁকিতে সব বয়সীরাই


পুলিশ প্রধান হিসেবে আমি অত্যন্ত গর্বিত ও আনন্দিত: আইজিপি
জাতীয় অধ্যাপক সুফিয়া আহমেদের ইন্তেকাল
কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিকে অ্যাপে নজরদারি করবে পুলিশ
মসজিদে মুসল্লি নিয়ন্ত্রণে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নজরদারি
করোনার মধ্যে বিয়ে: সেই সরকারি কর্মকর্তা চাকরি থেকে বরখাস্ত