বসন্তের শুরুতে ত্রিপুরায় নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিশুদের নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন অভিভাবকেরা। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা): ঋতুচক্রের নিয়ম মেনে বিদায় নিয়ে প্রকৃতিতে চলে এসেছে বসন্তকাল। তারপরও অলস শীত যেন প্রকৃতির মায়া কাটিয়ে যেতে চাইছে না। তাই তো এই বসন্তেও সকাল সন্ধ্যা তাপমাত্রা নেমে আসছে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে; তাই শীত অনুভূত হচ্ছে। 

তবে দুপুর হতে হতে তাপমাত্রার পারদ আবার উঠে যাচ্ছে ৩০ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। এ অবস্থা আরো কিছু দিন চলবে বলে ত্রিপুরা আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে। 

তবে তাপমাত্রার এই হেরফেরের কারণে বছরের এই সময় রোগ বালাই বেশি দেখা দেয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। আর সব চেয়ে বেশি আক্রান্ত হন শিশু কিশোরেরা। 

আগরতলার আইজিএম হাসপাতালের শিশু বিভাগে গিয়ে দেখা যায়, অসুস্থ শিশু-কিশোরদের নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বাবা-মায়েরা। বেশির ভাগই ভিড় জমিয়েছেন বহিঃবিভাগে। 

হাসপাতালের মেডিক্যাল সুপারিন্টেন্ড ডা. অমিতাভ চক্রবর্তী বলেন, বছরের এই সময়টায় রোগ-বালাইয়ের প্রাদুর্ভাব বেশি থাকে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি শিকার হয় শিশু-কিশোরেরা। বেশিরভাগই জ্বর সর্দি ও কাশির সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। সেইসঙ্গে কিছু শিশু-কিশোর আছে পেটের সমস্যা নিয়েও এসেছে। 

তাই এ সময় শিশু-কিশোরদের বিশেষভাবে যত্ন নিতে অভিভাবকদের পরামর্শ দেন তিনি। 

ডা. অমিতাভ চক্রবর্তী বলেন, সকাল-সন্ধ্যায় তাদের গরম কাপড় পরিয়ে রাখলে ঠাণ্ডা-জ্বর থেকে রেহাই মিলতে পারে। আর পেটের পীড়া থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা জরুরি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০
এসসিএন/এমএ

সোনাইমুড়িতে জ্বর-শ্বাসকষ্টে ইতালি প্রবাসীর মৃত্যু
আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজে চলছে অনলাইনে ক্লাস-পরীক্ষা
প্রতিনিয়তই লকডাউন হচ্ছে রাজধানীর নতুন এলাকা
রক্তাক্ত ধর্ষিতা শিশুকে থানায় নিয়ে মায়ের আহাজারি
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ থেকে বিকল্প পথে গ্রামগঞ্জে শতশত মানুষ


যমুনা টিভির এক সাংবাদিক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত
ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে ঘরেই শবেবরাতের ইবাদতে রাজধানীবাসী
বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকার গঠন
বিএসএমএমইউ’র অধ্যাপক ও মেয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত
করোনা:আইসিইউ থেকে ওয়ার্ডে ফিরলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসন