php glass

চাষিদের সুপারি বাগান করে দিচ্ছে ত্রিপুরা সরকার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সরকারি সহায়তায় কৃষকদের সুপারি বাগান। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা (ত্রিপুরা): ত্রিপুরার গোমতী জেলার কৃষকদের অর্থনৈতিক উন্নয়নে উন্নত জাতের সুপারি বাগান করার উৎসাহ দিচ্ছে দেশটির সরকার। ইতোমধ্যে জেলার কৃষি তত্ত্বাবধায়ক কার্যালয় থেকে জেলার অম্পি নগরের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে সুপারি বাগানের খরচও দেওয়া হয়েছে।

রোববার (৩ নভেম্বর) অম্পি নগরের কৃষি তত্ত্বাবধায়ক কোহিনুর দেববর্মা বাংলানিউজকে জানান, মহাত্মা গান্ধী রাষ্ট্রীয় গ্রামীণ রোজগার যোজনার অর্থায়নে কৃষকদের বাগান করার উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে ২৬ জন চাষিকে সুপারি বাগান করে দেওয়া হয়েছে। অম্পি নগরের বাসিন্দাদের শূন্য দশমিক পাঁচ হেক্টর জমিতে একটি করে সুপারি বাগান করে দেওয়া হবে।

তিনি জানান, এখন পর্যন্ত অম্পিছড়া গ্রামের ছয়জন, একজনছড়া গ্রামের ছয়জন, তৈদুডেপা গ্রামের দু’জন, তুইচাকমাছড়া গ্রামের ছয়জন ও গামাইছড়া গ্রামের ছয়জন চাষিকে বাগান করে দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রত্যেকটি সুপারি বাগানে খরচ হয়েছে ৬৭ হাজার ৬৬১ রূপি। তবে সরকারি আর্থিক সুবিধা পাওয়ায় কৃষকরা খুশি ও উপকৃত হয়েছে। 

ধানচাষের পাশাপাশি সুপারি, রাবার, গোলমরিচ ও আদাসহ বেশকিছু অর্থকরী ফসল চাষের উদ্যোগ নিতে কৃষকদের উৎসাহ দিচ্ছেন স্থানীয় কৃষিবিদরা বলেও জানান কৃষি তত্ত্বাবধায়ক কোহিনুর।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৩, ২০১৯
এসসিএন/কেএসডি/আরআইএস/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আগরতলা
বাংলায় চিকিৎসা বিজ্ঞানের ওপর লেখালেখির তাগিদ
মুন্সিগঞ্জে ৯ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি 
এপিকটায় রেকর্ডসংখ্যক পুরস্কার বাংলাদেশের
ফেনীর শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান বাবু
দুর্ঘটনায় নিহতদের ৭ জন একই পরিবারের 


কক্সবাজারে ‘ওশান ড্যান্স ফেস্টিভ্যাল’র উদ্বোধন
‘ঘূর্ণিঝড়গুলোই প্রমাণ করেছে সুন্দরবন কতটা উপকারী’
যুবলীগের সম্মেলনে: ঢাকার পথে চট্টগ্রাম যুবলীগের নেতারা
‘সিন্ডিকেট করে চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে ছাড় নয়’
জমে উঠেছে অ্যামেচার ফুটসাল কাপ