php glass

ত্রিপুরায় বিজেপি-আইপিএফটি জোট প্রশ্নের মুখে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সড়ক অবরোধ। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা: দ্বিতীয় দিনেও ত্রিপুরা রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় আইপিএফটি দলের সড়ক অবরোধ ও বনধ চলছে। এভাবে উন্নয়নের কাজে সরকারের শরিক দলের সদস্যরা বাধা দিলে সমর্থন তুলে নিতে বাধ্য হবে জানিয়েছে খবর।

সম্প্রতি ত্রিপুরা রাজ্যের বিভিন্ন ব্লকের ব্লক অ্যাডভাইসারি কমিটির চেয়ারম্যান (বিএসি) পদত্যাগ করেন। এরপর শুরু হয় অচল অবস্থা। শাসক বিজেপির জোট সঙ্গী আইপিএফটি দাবি করে যেহেতু তারা এখন ক্ষমতায় রয়েছে তাই তাদের একজন প্রতিনিধিকে বিএসি চেয়ারম্যান করতে হবে।

এ দাবিতে সোমবার (১৪ মে) থেকে আইপিএফটি দলের প্রতিনিধিরা পশ্চিম জেলা, খোয়াই জেলা, গোমতী জেলা, দক্ষিণ জেলার বিভিন্ন এলাকায় বনধের ডাক দেয় এবং রাস্তা অবরোধ করে। মঙ্গলবারও (১৫ মে) চলছে তাদের এ অবরোধ।
 
আইপিএফটি দলকে বিজেপির তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, যদি আইপিএফটি দল এ ধরনের অবরোধ না তুলে নেয়, তবে জোট প্রত্যাহার করতে বাধ্য হবে।

এ বিষয়ে ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপির মিডিয়া সেলের কনভেনার ভিক্টর সোমকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী এক একান্ত আলোচনায় একথা বলেছেন। তবে বিজেপি জোট সঙ্গী আইপিএফটি দলকে সঙ্গে নিয়ে আগামী পাঁচ বছর কাজ করতে চায় বলেও জানান।

আইপিএফটির এমন অবরোধের জেরে রাজ্য জুড়ে নতুন করে অচলবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। রাজ্যের পাহাড়ি এলাকায় বসবাসরত মানুষের মধ্যে নতুন করে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৬ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৮
এসসিএন/আরবি/

কর দিতে হয়রানি হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী
মিয়ানমারে গণহত্যার বিচার শুরু, সন্তুষ্ট রোহিঙ্গারা
বিশ্বসভ্যতার ইতিহাসই মানবাধিকার অর্জনের ইতিহাস
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা আয়োজন সিএমপির
২ বছরের মধ্যে ডিএনসিসির সব সুবিধা মিলবে অনলাইনে: আতিক


গণপরিবহনে যৌন হয়রানি বন্ধ চান সুজন
১৪২টি পদক নিয়ে ১৩তম আসর শেষ করল বাংলাদেশ
আইয়ুব বাচ্চুকে উৎসর্গ করে ‘উড়ে যাওয়া পাখির চোখ’
মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ছাত্রলীগ নেত্রী নিহত
‘শান্তির দূত’ থেকে যেভাবে গণহত্যার কাঠগড়ায় সু চি