php glass

আগরতলার বাজারে নববর্ষের ইলিশের ছড়াছড়ি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বটতলা মাছ বাজারে বিক্রি হচ্ছে নববর্ষের ইলিশ। ছবি: বাংলানিউজ

walton

আগরতলা: বছরের অন্যসব দিন যেমনই কাটুক, বাংলা বছরের শুরুর দিনটাতে বাঙালির পাতে ইলিশ না হলে চলে না। ইলিশ মাছের প্রতি বাঙালির এই দুর্বলতা দেখে প্রতি বছর নববর্ষের আগে ইলিশ মাছ আমদানী করেন ব্যবসায়ীরা। এবছরও ব্যাতিক্রম হয়নি। রাজ্যের রাজধানী আগরতলার বটতলা, মহারাজগঞ্জ, লেক চৌমুহনী, জি বি এই চারটি বড় বাজারে দেখা গেল ইলিশ মাছ নিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা।

রোববার (১৫ এপ্রিল) ত্রিপুরাসহ ভারতের বিভিন্ন প্রদেশ জুড়ে উদযাপিত হচ্ছে বাংলা নববর্ষ। পয়লা বৈশাখের সকালে বেশ ভিড় দেখা গেলো আগরতলার মাছের বাজারগুলোতে। চলছে ত্রেতা-বিক্রেতার দর কষাকষি। সাধ্যের মধ্যে না কুলালেও ইলিশ মাছের দাম জিজ্ঞেস করতে ভুলছেন না কেউ।
    
নববর্ষ উপলক্ষে বাজারে ইলিশের সংখ্যা তুলনামূলক কম জানিয়েছিলেন ব্যাবসায়ীরা। কিন্তু বাজারে দেখা গেলো ব্যবসায়ীদের ঝাঁকায় ইলিশের ছড়াছড়ি। 

বটতলা মাছ বাজারের ব্যবসায়ী পবিত্র চন্দ্র দাস বাংলানিউজকে জানান, নববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশের চাঁদপুর থেকে সবচেয়ে ভালো মানের ইলিশ এসেছে। অন্য বছরের নববর্ষের তুলনায় এ বছরের মাছগুলো অনেক ভালো এবং দাম অনেক কম। একইসঙ্গে বিক্রিও বেশ ভালো। 

এখন ইলিশের প্রজননের সময়। বছরের এই সময়টা ইলিশ মাছ ধরা ও বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে বাংলাদেশ সরকার। তারপরেও কিভাবে এতো ইলিশ মাছ আগরতলার বাজারে প্রবেশ করলো, এই প্রশ্নের কোনো উত্তর নেই এ মাছ ব্যবসায়ীর।

মাছ কিনতে বটতলা বাজারে এসেছেন নারায়ন সরকার। নববর্ষ একসঙ্গে দু’টি ইলিশ মাছ কিনেছেন তিনি। ইলিশের আকার ও দামেও তিনি সন্তুষ্ট। দামের হেরফের হলেও তা আনন্দের দিনে তেমন কোনো বড় বিষয় নয় তার কাছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১০৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০১৮
এসসিএন/এনএইচটি

একই কারখানায় ২ বছরে তিন বার আগুন
সু চির অস্বীকার: রোহিঙ্গারা বললেন ‘মিথ্যুক’
সোলায়মানের পদত্যাগ নিয়ে জামায়াতে তোলপাড়
রাজশাহীর মধ্য শহর থেকে বাস টার্মিনাল সরবে আগামী বছর
স্মার্ট রেফ্রিজারেটরের বিজ্ঞাপনে মাশরাফি


নেপিদোতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সেনাপ্রধানদের বৈঠক
এবার রাজ্যসভায়ও পাস হলো ‘বিতর্কিত’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল
আগুনের সূত্রপাত ‘গ্যাস রুমে’, নেভাতে গিয়েই দগ্ধ শ্রমিকরা
বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন মেয়র আতিকুল
মেডিক্যাল বোর্ডের রিপোর্ট কোর্টে, শুনানি বৃহস্পতিবার