‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ নিয়ে চায়ের দেশে ৪ ভ্রমণকন্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নারীর চোখে বাংলাদেশ নিয়ে চার ভ্রমণকন্যা

walton

মৌলভীবাজার: ‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ স্লোগান নিয়ে শিক্ষার্থী ও অবহেলিত মানুষদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে স্কুটিতে চড়ে দেশ ঘুরছেন চার ভ্রমণকন্যা। ৬৪ জেলা ঘোরার ধারাবাহিকতায় তাদের আয়োজন নিয়ে এবার এসেছিলেন চায়ের দেশ মৌলভীবাজারে।

php glass

বাংলাদেশের প্রথম নারীদের ভ্রমণ দল ‘ভ্রমণকন্যা’র এ চার সদস্য হলেন- দলের প্রতিষ্ঠাতা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের শিক্ষানবিশ চিকিৎসক মানসী সাহা, একই প্রতিষ্ঠানের অনারারি মেডিকেল অফিসার ডা. সাকিয়া হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সিলভী রহমান ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মুনতাহা রুম্মান অর্থি।

বুধবার (২৭ মার্চ) সকালে জেলার শ্রীমঙ্গল উদয়ন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত কর্মশালায় মুক্তিযুদ্ধ, বাল্যবিয়ে, ইভ-টিজিংয়ে আত্মরক্ষা, খাদ্য-পুষ্টি এবং বয়ঃসন্ধিকালীন স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতনতামূলক আলোচনা করেন তারা। 

এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিভাবক, স্থানীয় সাংবাদিক ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।
নারীর চোখে বাংলাদেশ
ভ্রমণকন্যারা জানান, এ বছরেই দেশের বাকি জেলাগুলো ঘোরা সম্পন্ন করবেন তারা। এ ভ্রমণে জেলাগুলোর প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিভিন্ন স্কুলে বিশেষ করে মেয়েদের মধ্যে তারা সচেতনতামূলক বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরার চেষ্টা করছেন। বিশেষ করে নারীর ক্ষমতায়ন, বয়ঃসন্ধিকালীন শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ, যৌতুক প্রথার কুফল, আত্মরক্ষার উপায়, মেধা বিকাশে করণীয় ইত্যাদি বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরি তাদের মূল উদ্দেশ্য।

তারা আরও জানান, মানচিত্রের সাহায্য নিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলার অবহেলিত এলাকাগুলোতে তারা যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। মিশেছেন ছিন্নমূল মানুষের সঙ্গে। লিপিবদ্ধ করছেন তাদের অনেক সুখ-দুঃখের কথা। নিজেদের ঐতিহ্য, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, পর্যটন স্থানগুলোর ইতিহাস সম্পর্কে তারা শিক্ষার্থীদের অবহিত করার চেষ্টা করেছেন। 

এছাড়া প্রত্যেক জেলার ঐতিহ্যবাহী দর্শনীয় বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন শেষে সেগুলোর প্রাথমিক ইতিহাস লিপিবদ্ধ করছেন তারা।

২০১৭ সালের এপ্রিল মাস থেকে চার কন্যা দু’টি স্কুটিতে করে ঘুরে বেড়াচ্ছেন একের পর এক জেলা। বেশ কয়েকটি পর্বে দেশের ৬৪টি জেলার সবকটিতেই ভ্রমণ সম্পন্ন করবেন তারা। তাদের মধ্যে এ প্রজেক্ট ও ব্যক্তি উদ্যোগে ডা. মানসী সাহা হবিগঞ্জ জেলা ভ্রমণের মধ্য দিয়ে ইতিমধ্যে ৬৪ জেলা ভ্রমণ সম্পন্ন করেছেন।

দলের এ প্রতিষ্ঠাতা বাংলানিউজকে বলেন, মেডিকেলে পড়তে এসে আমার মাথায় ঘুরে বেড়ানোর নেশা ঢুকে। এর পর একটা দুইটা করে নতুন জেলায় পা রাখতে শুরু করি। ১০টি স্থান ঘোরার পর হিসাব রাখা শুরু করলাম। এর মধ্যেই শুরু করে দিলাম ৬৪ জেলা ঘোরার জন্য নারীর চোখে বাংলাদেশ প্রজেক্ট। 

তিনি বলেন, প্রাণ ভরে পুরো দেশ ও দেশের মানুষকে দেখলাম। 'স্বপ্ন দিয়ে তৈরি সে দেশ, স্মৃতি দিয়ে ঘেরা' গানটা গাইবার সময় এখন শুধু সুর তাল মিলিয়েই গাইব না। মন আর প্রাণ ও তার সঙ্গে ঐকতান দিবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৭, ২০১৯
জিপি

ট্রেনের টিকিট কেনায় ভোগান্তি কমেছে
সুবীর নন্দীর সুর তাকে শ্রোতাদের মধ্যে বাঁচিয়ে রাখবে
সিলেটে সৎ মাকে কুপিয়ে জখম
উজিরপুরে ধর্ষণ মামলায় যুবক গ্রেফতার
টানা ১৯ দিনের ছুটিতে হাবিপ্রবি


ভারতে ভোট গণনায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা
অস্ত্রসহ গ্রেফতার ছিনতাইকারী
মানুষের মৃত্যুর প্রহর গুনেন তারা
অসহ্য গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টি চট্টগ্রামে
পাইকারিতে আড়াই টাকার লেবু খুচরা পর্যায়ে ১০ টাকা