পর্যটন শিল্পকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয়ে কর্মসূচি শুরু

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য রাখছেন পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: দেশের সম্ভবনাময় পর্যটন শিল্পকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যায় নিয়ে বিশ্ব পর্যটন দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) রাজু ভাস্কর্যের পাশে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল।বক্তব্য রাখছেন ঢাবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। ছবি: ডিএইচ বাদল‘পর্যটন শিল্পের বিকাশে তথ্যপ্রযুক্তি’ প্রতিপাদ্য নিয়ে এর আয়োজন করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ।

উদ্বোধনকালে ঢাবি উপাচার্য বলেন, পর্যটন দিবস আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি দিবস যা ১৯৮০ সাল থেকে বিশ্বব্যাপী উদযাপিত হচ্ছে। এ বছরের প্রতিপাদ্য অনুযায়ী তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আমরা যদি পর্যটন শিল্পের আধুনিকায়ন করতে পারি তাহলে আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জনে সক্ষম হব। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) একটি বিষয় পর্যটন। প্রতিপাদ্যটি এসডিজি অর্জনে ভূমিকা রাখবে।

মন্ত্রী শাহজাহান কামাল বলেন, পর্যটন শিল্পের বিকাশের মাধ্যমে আমরা সোনার বাংলা গঠন করতে সক্ষম হব। সম্ভবত এবারই প্রথম সুন্দরভাবে দিবসটি উদযাপিত হচ্ছে। এ সময় মন্ত্রী অংশগ্রহণকারী সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্স অব বাংলাদেশের সভাপতি মনজুর মোর্শেদ মাহবুব, পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ইমরান, বাংলাদেশ পর্যটন করপোশেনের চেয়ারম্যান আখতারুজ জামান খান কবির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম বিভাগের চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ভূঁইয়া, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আফজাল হোসেন, শাকের আহমেদ, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।র‌্যালি। ছবি: ডিএইচ বাদলসমাবেশের আগে দিবসটি উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস অনুষদ প্রাঙ্গণ থেকে উপাচার্য আখতারুজ্জামানের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের করা হয়।

অন্যদিকে মৎস ভবন থেকে পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামালের নেতৃত্বে র‌্যালিটি টিএসসি এসে মিলিত হয়। এতে অংশগ্রহণ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ট্যুরিজম বিভাগের শিক্ষার্থী, ট্যুরিস্ট পুলিশ, অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্স অব বাংলাদেশ, প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও, হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল, প্রাইম এশিয়া ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ আওয়ামী পর্যটন লীগসহ পর্যটন সংক্রান্ত বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা।

এ সময় তারা ‘তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার, পর্যটনের হাতিয়ার’; ‘পর্যটনে উন্নয়, সুফল পাবে জনগণ’; সহ বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন।

বিশ্ব পর্যটন দিবসের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালাটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের আয়োজনে বিকেলে সম্মেলন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফটো এক্সিবিশন, কুইজ প্রতিযোগিতা। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সহায়তায় এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশের উদ্যোগে রাজধানীর রবীন্দ্র সরোবরে ২৭-২৯ সেপ্টেম্বর দিনব্যাপী ট্যুরিজম ফেস্টের আয়োজন করা হয়েছে। এতে থাকবে পর্যটন মেলা, বাউল উৎসব, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, বেইজ ক্যাম্পের প্রদর্শনী। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরার হল-২ এ উদ্বোধন করা হবে ৩ দিনব্যাপী সপ্তম ট্যুরিজম ফেয়ারের।

পর্যটন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ঢাবির কর্মসূচির মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় অনলাইন পোর্টাল বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮
এসকেবি/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঢাবি পর্যটন
কিশোরগঞ্জে ১৭ ভাষা সৈনিককে সম্মাননা 
মাতৃভাষায় বই থাকলেও বঞ্চিত শ্রীমঙ্গলের ত্রিপুরা শিশুরা
বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণ করায় ৫৬৫ যাত্রীর জরিমানা
নেত্রকোণায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার
কথার ঝুড়ি নিয়ে বাড়ি ফেরা


চকবাজার ট্র্যাজেডিতে ভবনগুলো ‘ব্যবহার অনুপযোগী’
৭ তলার ছাদেও বিস্ফোরকের চিহ্ন!
ভিয়েতনাম মিশনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন 
ময়মনসিংহে ডিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা নিহত
চকবাজারে এখনও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের সতর্ক অবস্থান