আলুটিলায় বৃষ্টির দিনে...

অপু দত্ত, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আলুটিলার চূড়া। ছবি: বাংলানিউজ

খাগড়াছড়ি: যেন পাহাড়ের গায়ে মেঘ ভেসে বেড়ায়। গায়ে ছুয়ে যায় মেঘের আভা। আর বৃষ্টি হলে তো কথাই নেই। বেড়ানোর মজাই আলাদা। পাহাড় চূড়া থেকে বৃষ্টি ভেজা শহর দেখা কিংবা বৃষ্টির পানিতে ভেজার অনুভূতি প্রকাশ করা কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

php glass

খাগড়াছড়ি শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরের আলুটিলায় বৃষ্টির দিনে বেড়ানোর গল্পটা এরচেয়েও আনন্দঘন উৎসবমুখর হতে পারে যেকোনো পর্যটকের কাছে। আর যদি পাহাড় চূড়া থেকে বৃষ্টি ভেজা না দেখতে পান তাহলে হয়তো অপূর্ণতা থেকে যাবে সফর!

এমন বৃষ্টির দিনে অনেকেই ছুটে যান সেখানে। এবারের বৃষ্টিতেও প্রতিকূল আবহাওয়ার কথা ভুলে সুযোগ পেলে ঘুরতে আসা মানুষগুলো যান আলুটিলা আর রিছাংঝর্না এলাকায়।আলুটিলার চূড়া। ছবি: বাংলানিউজঢাকা থেকে ঘুরতে এসেছিলেন লিখন মাহমুদ, ফারুক আহম্মেদ, আসিফ।পরিচয় সূত্রে তাদের সঙ্গে আলুটিলায় যাওয়ার সুযোগটা আমারও হয়েছিলো। তখনও আকাশে মেঘের ঘনঘটা। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি ছিল। বাসে করে যাত্রা করে নামলাম আলুটিলা পর্যটন কেন্দ্রের সামনে। আলুটিলায় পৌঁছাতেই কেমন যেন কুয়াশার চাদরে ঢাকা পড়ে গেলাম আমরা।

আলুটিলার চূড়ায় যেতে যেতে মনে হয়েছে যেন মেঘের ভেলায় ভাসছি সবাই। হঠাৎ-ই নেমে আসে বৃষ্টি। এক পশলা দু’পশলা হতে হতে, ভারী বৃষ্টি নামলো। আমরা তখনো সেখানকার রেস্ট হাউজটিতে যাইনি।

চারিদিকে চোখ ফিরিয়ে তাকাতেই মনের জানালায় উঁকি দেয় স্বপ্নীল সব ভাবনা।

রেস্ট হাউজের উপরে উঠার অনুমতি পেতেই ভেজা শরীরে অন্যরকম উল্লাসের পরশ লাগে। কিছুটা বিশ্রামের ফাঁকে সেখান হতে খাগড়াছড়িকে দেখতে মনে হয়েছে স্বপ্নের মতো। এতো মনোমুগ্ধকর পর্যটন স্পট! কোথাও ঝুম বৃষ্টি, কোথাও মেঘ, কোথাও আবার রোদের খেলা।

পর্যটকরা জানালেন এমন অনুভুতির কথা। বান্দরবানের অনেক পর্যটন স্পট ঘুরেছি, গিয়েছি কক্সবাজার, রাঙামাটিও। আলুটিলার চূড়ায় বৃষ্টিতে বেড়ানো উপভোগ করেছি অন্যভাবে।’

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৩ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০১৮
এডি/এএটি

‘বোনাস মোল্লা’র ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস
বাঘাইছড়ি যাচ্ছে ৭ সদস্যের তদন্ত কমিটি
বিশ্বের সুখী দেশ ফিনল্যান্ড, অসুখী দক্ষিণ সুদান
উপজেলা নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে ভোট পড়েছে ৪১.২৫ শতাংশ
চুয়াডাঙ্গায় বিজিবি-বিএসএফ ফায়ারিং প্রতিযোগিতা


আইনমন্ত্রী আনিসুল হক রাজশাহী যাচ্ছেন বোবরার
পাবনায় বলাৎকারের দায়ে যুবকের ১০ বছরের কারাদণ্ড
শতবর্ষী কার্জন হলে অনুষ্ঠিত হলো নাট্যোৎসব
রাজশাহীতে শেষ হলো তিন দিনব্যাপী বিজ্ঞান মেলা
চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ