ইউএস-বাংলার বহরে যুক্ত হলো ৮ম এয়ারক্রাফট

এভিয়াট্যুর ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

৪র্থ ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট এর রিসিপশনে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

walton

ঢাকা: ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ বহরে যোগ হলো ৪র্থ ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট। 

php glass

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে নতুন এয়ারক্রাফটটি। আনুষ্ঠানিকভাবে উড়োজাহাজটি গ্রহণ করেন ইউএস-বাংলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আসিফ।

এয়ারক্রাফট রিসিভিং অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের নির্বাহী পরিচালক এম জি তৌহিদ, পরিচালক ফ্লাইট অপারেশন মসিউল আজম, পরিচালক কাস্টমার সার্ভিস একেএম জুনায়েদ, জিএম কাস্টমার সার্ভিস ইমরান আহমেদ, জিএম অপারেশন জুলফিকার আলী, জিএম মার্কেটিং সাপোর্ট অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন মো. কামরুল ইসলাম, জিএম প্রকিউরমেন্ট তোফিকুল হকসহ এয়ারলাইন্সের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। 

কানাডার মন্ট্রিল থেকে ইউএস-বাংলার ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতান, ক্যাপ্টেন লুৎফর রহমান ও ফার্স্ট অফিসার মারুফ আহমেদ নতুন সংযোজিত ফ্লাইটটি পরিচালনা করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করান। অবতরণের পর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের সিইও ইমরান আসিফ ক্যাপ্টেনদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এরপর এয়ারলাইন্সের সার্বিক উন্নতির জন্য দোয়া পরিচালনা করা হয়।

নতুন যুক্ত হওয়া ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফটটিতে ৭৬টি ইকোনমি ক্লাসের আসন রয়েছে। বহরে যুক্ত হওয়া এয়ারক্রাফট দিয়ে অভ্যন্তরীণ ও আঞ্চলিক রুটে ফ্লাইট সংখ্যা বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

১৭ জুলাই ২০১৪ তারিখে দু’টি ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে ইউএস-বাংলা ঢাকা থেকে যশোরে উদ্বোধনী ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। নতুন যুক্ত হওয়া ড্যাশ৮-কিউ৪০০সহ বর্তমানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে মোট আটটি এয়ারক্রাফট রয়েছে যার মধ্যে চারটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও চারটি ড্যাশ৮-কিউ৪০০। 

‘ফ্লাই ফাস্ট-ফ্লাই সেফ’ স্লোগান নিয়ে যাত্রা শুরু করা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স আন্তর্জাতিক রুট সম্প্রসারণের লক্ষ্যে খুব শিগগিরই বহরে আরও এয়ারক্রাফট যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে। 

ইউএস-বাংলা বর্তমানে প্রতি সপ্তাহে প্রায় ৩০০টির বেশি অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করে। যাত্রা শুরুর পর সাড়ে তিন বছরে প্রায় ৩৬ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে, যা বাংলাদেশে উড়োজাহাজ চলাচলের ইতিহাসে একটি রেকর্ড। 

যাত্রা শুরুর এক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সব চালু বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ফ্লাইট পরিচালনা করে স্বল্পতম সময়ে অভ্যন্তরীণ আকাশপথের যোগাযোগ ব্যবস্থা করেছে সুদৃঢ়। দু’বছরের মধ্যে ১৫ মে ২০১৬ তারিখে ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যাত্রা শুরু করে। 

আন্তর্জাতিক রুট পরিচালনা শুরুর পর এক বছরের মধ্যেই কাঠমান্ডু ছাড়াও ঢাকা থেকে কলকাতা, মাস্কাট, দোহা, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছে। এছাড়া চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা, মাস্কাট ও দোহা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। খুব শিগগিরিই চীনের গুয়াংজুহতে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করতে যাচ্ছে। এছাড়া আবুধাবি, জেদ্দা, রিয়াদ, দাম্মাম, দিল্লি, চেন্নাই রুটে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে ইউএস-বাংলার।

বাংলাদেশ সময়: ০০০১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮
এএ

আবারও মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন সীমা বাড়লো
ইসলামী ব্যাংক-ট্রান্সফাস্টের ‘রেমিট্যান্স ক্যাম্পেইন’ 
আধুনিক পরিসংখ্যান ইনস্টিটিউট করবে সরকার
চার মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পুনর্বিন্যাস
বিআরটিসি’র ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে ১১শ’ বাস: কাদের


কৃষক বাঁচাতে চাল রফতানি করা হবে: অর্থমন্ত্রী
সক্ষমতা বাড়ায় মানুষের মধ্যে বিদেশ যাওয়ার প্রবণতা বাড়ছে
ঢামেকে গেট বন্ধ করে স্বজনদের সঙ্গে আনসারদের হট্টগোল
বজ্রপাতে রামু ও উখিয়ায় শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু
দৈনিক ২৫০০ মানুষ ইফতার করেন কেরালা মুসলিম সেন্টারে