দোহা রুটে উড়লো ইউএস-বাংলার ফ্লাইট 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ঢাকা: নির্ধারিত সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার ধারাবাহিকতায় এবার নতুন আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট উড়ালো ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। রোববার (০১ অক্টোবর) মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য দোহার উদ্দেশে সন্ধ্যা ৬ টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে ইউএস-বাংলার উদ্বোধনী ফ্লাইটটি। 

php glass

প্রতিষ্ঠানটির ডিজিএম (মার্কেটিং সাপোর্ট অ্যান্ড পিআর) মো. কামরুল ইসলাম জানান, ঢাকা-দোহা রুটের উদ্বোধনী ফ্লাইটে যাত্রী ১৬৪ জন যাত্রী ছিলেন। যাত্রা পথে চট্টগ্রামে অবতরণ করে সেখান থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সরাসরি দোহার উদ্দেশে ছেড়ে যাবে ফ্লাইটটি। 

প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে চারদিন ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে দোহা রুটে ফ্লাইট চালানো হবে বলে জানান তিনি। 

এদিকে নতুন আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট চালানো উপলক্ষে ঢাকা-দোহা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ২৪ হাজার ৩৫০ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। রিটার্ন টিকিটে ভাড়া পড়বে ৪০ হাজার ২০৩ টাকা। 

এছাড়া চট্টগ্রাম-দোহা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ২৫ হাজার ৩১৭ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ৪১ হাজার ১৭১ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ভাড়ায় সব ধরনের ট্যাক্স ও সারচার্জ অন্তর্ভুক্ত। 

প্রাথমিকভাবে সোম, বুধ, শুক্র ও রোববার ঢাকা থেকে সন্ধ্যা ৬ টায় এবং চট্টগ্রাম থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দোহার উদ্দেশে ছেড়ে কাতারের স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১০টায় পৌঁছাবে ফ্লাইটটি।। 

একই দিন দোহা থেকে স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম ও ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে এবং পরদিন সকাল ৮ টায় চট্টগ্রাম ও সকাল ৯টা ২০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে ইউএস-বাংলার ফ্লাইটটি। 

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে এই রুটে ফ্লাইট চালানো হবে। বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফটে ৮টি বিজনেস ক্লাস, ১৫৬ টি ইকোনমি ক্লাসের আসন রয়েছে।

আরও পড়ুন>>
** 
১ অক্টোবর থেকে দোহা রুটে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে অভ্যন্তরীণ রুটে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, বরিশাল, রাজশাহী রুটে প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে। 

গত বছরের ১৫ মে ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মধ্যেমে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যাত্রা শুরু করা প্রতিষ্ঠানটি বর্তমানে ঢাকা থেকে কলকাতা, মাস্কাট, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক রুটে নিয়মিত ফ্লাইট চালাচ্ছে। 

এছাড়া চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা ও মাস্কাট রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা। শিগগির আবুধাবী, জেদ্দা, রিয়াদ, দাম্মাম, দুবাই, হংকং, গুয়াংজুহ, দিল্লি, চেন্নাইসহ অন্যান্য রুটেও ফ্লাইট চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। 

ইউএস-বাংলা সূত্র বলছে, চলতি বছরের নভেম্বরের মধ্যে আরও দু’টি ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ যুক্ত হচ্ছে প্লেনের বহরে। এছাড়া আগামী বছরের শুরুতে ইউএস-বাংলা এয়ালাইন্সের বহরে যুক্ত হচ্ছে আরও দু’টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট। 

২০১৪ সালে যাত্রা করা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ৯৮ দশমিক ৭ শতাংশ অনটাইম ফ্লাইট চালিয়ে রেকর্ড করেছে। সপ্তাহে প্রায় ৩০০টির বেশি ফ্লাইট পরিচালনা করে দেশের অন্যতম বেসরকারি সংস্থাটি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ০১, ২০১৭
এমএ/

বায়েজিদে পানিবন্দি শতাধিক পরিবার
অসুস্থ ছাত্রলীগ নেতাকে দেখতে গেলেন নওফেল
বান্দরবানে আ’লীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে অর্ধদিবস হরতাল
কল্যাণকামী-বৈষম্যহীন সমাজ চেয়েছিলেন মোজাফফর আহমদ
ভিড় বাড়ছে হকার্স মার্কেটে


গাজীপুরে বসুন্ধরা সিমেন্টের ইফতার মাহফিল
জন্মবার্ষিকীতে সিলেটে কবি নজরুলকে স্মরণ
থানচিতে দেয়াল ধসে শ্রমিকের মৃত্যু
প্রধানমন্ত্রী যা বলেন তাই করেন: রেলমন্ত্রী
‘কে তোমাকে এতো ভালোবাসতে পারে’