মুগ্ধতা ছড়ানো রাতের মারমেইড

আসিফ আজিজ, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাতের মারমেইড, ছবি: আসিফ

পেঁচারদ্বীপ, কক্সবাজার থেকে: সন্ধ্যা হতেই দূর থেকে ভেসে আসছিলো সমুদ্রের গর্জন। জোয়ারের উত্তালতা এতো বেশি ছিলো যে, সে গর্জনে ভড়কে যাওয়ার মতো। আলো-আঁধারিতে চারপাশ থেকে নাকে লাগছিলো স্পাইডার লিলি, হাসনাহেনা আর কাঠগোলাপের আবেশি গন্ধ। দক্ষিণ-পশ্চিম কোণে তখন আধখয়া চাঁদ। এরইমধ্যে সাগরজলে পা ডুবিয়ে ডিনার সারছেন মধুচন্দ্রিমায় আসা যুগলরা।

মুগ্ধতা ছড়ানো এমন রোম্যান্টিক পরিবেশ বোধহয় শুধু কক্সবাজার শহরের ঘিঞ্জি পরিবেশ থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরের মারমেইড বিচ রিসোর্টেই পাওয়া সম্ভব। প্রকৃতি এখানে খেলা করে মানুষের সঙ্গে। দেশের ইকো ফ্রেন্ডলি ট্যুরিজমকে এগিয়ে নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পরিচিত করা এ রিসোর্টে ঢোকা মাত্রই এখানকার কর্মীরা হয়ে ওঠেন অতিপরিচিত, থাকার বাংলোটি হয়ে যায় কিছু সময়, কিংবা কয়েকদিনের জন্য নিজের।
মুগ্ধতা ছড়ানো রাতের মারমেইড, ছবি: আসিফকটেজের বাইরে বড় করে লেখা নিজের নামটি হয়ে ওঠে হঠাৎ বিস্ময়। প্রকৃতিকে নিজের মতো থাকতে দিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে এখানকার ২৬টি কটেজ। প্রতিটির রয়েছে স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য। ঋতু, দিন, রাতের সঙ্গে বদলে যায় মারমেইডের আবেদন।
মুগ্ধতা ছড়ানো রাতের মারমেইড, ছবি: আসিফ

সাগরতীরের মারমেইডে রয়েছে অবকাশ যাপনের সব সুব্যবস্থা। দিনের আলো কমতেই প্রাকৃতিক পরিবেশ হয়ে ওঠে আলো ঝলমলে। লাল, হলুদ, নীল, সবুজ- নিভু নিভু আলোর মধ্যেও রয়েছে ব্যতিক্রমী সব ভাবনা গাঁথা। কোনো বাতি ঢেকে দেওয়া রঙিন কাপড়ে, কোনোটি রঙিন কাচের বোতলমোড়া, কোনোটিতে আবার উপুড় হয়ে বসেছে ফেলনা টিনের ছিদ্র করা বালতি।
মারমেইডের সুইমিংপুল, ছবি: আসিফ
বাতিগুলো বসানোও হয়েছে নান্দনিকভাবে। কোনোটি পথের দু’ধারে সারিবদ্ধ হয়ে গন্ধ বিলানো স্পাইডার লিলিকে আলোকিত করে সঙ্গ দিচ্ছে, পথ দেখাচ্ছে পর্যটকদের, কোনোটি গাছের শরীরে, কোনোটি পাতার আড়ালে লুকিয়ে করছে আলো-আঁধারির খেলা। কংক্রিটের রাস্তায় সাগরের তীরে ভেসে আসা কাচ দিয়ে বসানো সুন্দর ডিজাইন। মৃদু আলোর প্রতিফলনে কাচগুলো ঝলমলে।
মুগ্ধতা ছড়ানো রাতের মারমেইড, ছবি: আসিফ

কাঠ-বাঁশের নান্দনিক খাবারের ঘরের পরেই বালির বিচ। বিচে বসানো কাঠের মঞ্চ, সারি ধরে কাবানা (শোয়া বা বসার জন্য চারদিক খোলা গদিওয়ালা বিশেষ চৌকি)। মধুচন্দ্রিমায় আসা যুগলদের সবচেয়ে প্রিয় জায়গা এটি। আধোআলোয় প্রিয়জনকে পাশে নিয়ে সমুদ্রের গান শোনা। আর ক্যান্ডেল লাইট ডিনার এখানে একেবারেই স্পেশাল। সঙ্গে বিচ মিউজিক।
পরিবেশিত খাবার, ছবি: আসিফ
জোয়ারের পানি যখন একেবারেই মারমেইডের কাছে চলে আসে চ্যানেল ধরে, তখন সেখানে বসানো হয় টেবিল। যুগলরা মোমের আলোয় সে পানিতে পা ভিজিয়ে সারেন ডিনার। আর ডিনারটিও সাজানো হয় মধুচন্দ্রিমা স্পেশাল করে। সি ফুডের জন্য এ তল্লাটে বিখ্যাত মারমেইডের ডিনারে আঁচ করা যায় সে সারপ্রাইজ। প্রিয়জনকে যারা অনেক চমক উপহার দিতে চান তাদের জন্য উপযুক্ত বাছাই মারমেইড বিচ রিসোর্ট। এমনটাই জানাচ্ছিলেন মারমেইডের জেনারেল ম্যানেজার মাহফুজুর রহমান।
পরিবেশিত খাবার, ছবি: আসিফরাতে বিচবাইক চালানোর ব্যবস্থাও রয়েছে শুধু এখানে। চাইলে সাবরাঙে বসেও সারতে পারেন ডিনার। পানির মধ্যে আলোর সাজে সাবরাঙ (দুই মাথা বাঁকানো নৌকা বিশেষ) হয়ে ওঠে মোহনীয়। যদি কেউ বাচ্চাসহ পরিবার নিয়ে এখানে বেড়াতে আসেন তাদের জন্যও রয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। বাচ্চারা যেনো বিরক্ত না হয় সেজন্য রয়েছে পর্যাপ্ত খেলনা। দিব্যি খেলনা গাড়ি নিয়ে ব্যস্ত থাকতে পারে তারা।

রাতে রুমে ব্যবহার করা আলোয়ও রয়েছে ভিন্নতা, স্বতন্ত্রতা।

খাবার-দাবার কিন্তু শুধু ইনহাউজ গেস্টদের জন্য নয়, শহরে বেস্ট সি-ফুডের স্বাদ নিতে চাইলে যে কেউ চলে আসতে পারেন মারমেইডে। নিরিবিলি পরিবেশ হওয়ায় কক্সবাজারে আসা বিদেশি পর্যটকদেরও প্রথম পছন্দ থাকে মারমেইড।
মুগ্ধতা ছড়ানো রাতের মারমেইড, ছবি: আসিফমারমেইডের নতুন সংযোজন সুইমিং পুল ভিলাও রাতে হয়ে ওঠে অপরূপ। চাইলে রাতেও নামতে পারেন পুলে। অরগ্যানিক খাবার, পরিবেশনা, আপ্যায়ন, কর্মীদের ব্যবহারেও অনন্য এ প্রতিষ্ঠানটি। রাতভর কেউ বিচের পাশে কাবানায় কাটাতে চাইলেও রয়েছে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

আর সাগরপাড়ে বসে বিশাল আকাশে তারা দেখার সুযোগও পাবেন মারমেইডে। সঙ্গে পোকার গান। জোছনা রাত উপভোগের জন্য তাই চলে আসতে পারেন এ বিচ রিসোর্টে।

আরও পড়ুন: অতিথি আপ্যায়নের মারমেইড স্টাইল
 
বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, মার্চ ০৫, ২০১৭
এএ/এসএনএস

ভাড়াউড়া চা বাগানে মিললো লাউয়াছড়ার মৃত মায়া হরিণ
ক্রিকেট একটি অপ্রত্যাশিত খেলা: তামিম ইকবাল
ত্রিপুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ২৮
মঙ্গলবার বিসিসির দায়িত্ব বুঝে নেবেন সাদিক আব্দুল্লাহ
বরিশালে জেএমবির সদস্য আটক
নেত্রকোনায় তরুণীর মরদেহ উদ্ধার
‘আমরা তারেকের নেতৃত্ব ধ্বংস করার জন্য ড. কামালকে আনছি’
খুনের পর খাশোগির পোশাকেই দূতাবাস ছাড়ে ঘাতক!
ফতুল্লায় পৃথক ধর্ষণের অভিযোগে আটক ৩
মাগুরা জেলা ছাত্রদলের নেতা গ্রেফতার