এখন খেললে আরও ৪ হাজার রান বেশি করতেন শচীন-সৌরভ!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শচীন ও সৌরভ/ছবি: সংগৃহীত

walton

নব্বইয়ের দশকে ভারতের ওয়ানডে ক্রিকেট দলের দুই ওপেনার শচীন টেন্ডুলকার ও সৌরভ গাঙ্গুলী মানে 'ক্লাসিক জুটি'র অনন্য উদাহরণ। বাঁহাতি-ডানহাতি এই কম্বিনেশন তৎকালীন বিশ্ব ক্রিকেটে রীতিমত রাজত্ব করেছে। আইসিসিও অসাধারণ এই জুটির কীর্তি এক টুইটে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করল। দুই কিংবদন্তিও আইসিসি'র টুইটের জবাব দিলেন। তবে বেশ মজার ছলে।

শচীন ও সৌরভের একটি ছবি পোস্ট করে আইসিসি যে টুইট করেছে তাতে এই জুটির কিছু কীর্তি তুলে ধরা হয়েছে। ওয়ানডেতে দুজনের জুটিতে মোট রান এসেছিল ৮ হাজার ২২৭, যা এখন পর্যন্ত এই ফরম্যাটে কোনো জুটির ক্ষেত্রে রেকর্ড। এর সবচেয়ে বড় দিক হলো, অন্য কোনো জুটি এমনকি ৬ হাজার রানও করতে পারেনি। এই জুটির গড়ও রীতিমত অবিশ্বাস্য (৪৭.৫৫)।

আইসিসি'র টুইট প্রথমে রি-টুইট করেন শচীন। যেখানে তিনি গাঙ্গুলীকে ট্যাগ করে লেখেন, 'এটা অনেক দারুণ সব স্মৃতি ফিরিয়ে আনলো, দাদি (গাঙ্গুলীকে দাদি বলে ডাকেন শচীন)। বর্তমান নিয়মে যেখানে ৪ ফিল্ডার রিংয়ের বাইরে রাখা এবং দুটি নতুন বল দিয়ে খেলা বাধ্যতামূলক, এই সময় এসে আমরা আর কত বেশি রান করতে পারতাম?'

জবাবে সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক ও বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট লেখেন, 'আরও ৪ হাজার কিংবা তারও বেশি... ২টি নতুন বল... বাহ... মনে হচ্ছে যেন প্রথম ওভারেই কভার ড্রাইভে বাউন্ডারি পার...।'

শচীন, গাঙ্গুলীর ক্যারিয়ারের সূর্য অস্তমিত হওয়ার সময় থেকেই ওয়ানডে ক্রিকেটে বেশকিছু নতুন নিয়মের আগমন ঘটে। এক বল দিয়ে খেলার বদলে বল পুরনো হয়ে গেলে নতুন বল (সাধারণত ৩০-৩৫ ওভারে) নেওয়ার ব্যবস্থা আছে এখন। এমনটা প্রতি ফিল্ডিং টিমের জন্যই প্রযোজ্য। 

এখন ফিল্ডিংয়ের ক্ষেত্রেও বাধ্যবাধকতা রাখা হয়েছে। নন-পাওয়ার প্লে ওভারগুলোতে ৩০ গজের মধ্যে ৪ জন ফিল্ডার রাখা বাধ্যতামূলক। ফলে ব্যাটসম্যানরা সহজেই স্ট্রোক খেলার সুযোগ পাচ্ছে।

শচীন, সৌরভদের জামানায় বিষয়টা একবারেই আলাদা ছিল। এখনকার ক্রিকেটাররা আবার মারকাটারি টি-টোয়েন্টির অভিজ্ঞতা তো আছেই। ফলে ব্যাটসম্যানদের স্ট্রোক খেলার দক্ষতাতেও পরিবর্তন এসেছে। কিন্তু এতসব পরিবর্তন সত্ত্বেও শচীন-গাঙ্গুলীর রেকর্ড এখনও বহাল তবিয়তে টিকে আছে। 

বাংলাদেশ সময়: ২২১৮ ঘণ্টা, মে ১২, ২০২০
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
বাড়িতেই করোনা রোগীর দেখাশোনা 
শিল্প মন্ত্রণালয়ের শিল্পপ্রতিষ্ঠানসমূহকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে
করোনা রোগীর জন্য ফ্রি অ্যাম্বুল্যান্স মানবাধিকার কমিশনের
সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে ‘নির্বাহী আদেশে সই করবেন ট্রাম্প’
ঝড়ে লালমোহনে শতাধিক ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত


করোনা উপসর্গ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বিকাশ দত্তের মৃত্যু
উত্তর কোরিয়ার ব্রিটিশ দূতাবাস বন্ধ ঘোষণা
বিরামপুরে অ্যালকোহল পানে আরও ৪ জনের মৃত্যু
কবে আগের মতন কাজ করতে পারমু?
চিড়িয়াখানায় প্রাণীরা মহানন্দে, বাচ্চা দিয়েছে জিরাফ-জলহস্তী