ভ্যালেন্সিয়ার খেলোয়াড়-স্টাফদের ৩৫ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কোয়ারেন্টাইনে আছেন ভ্যালেন্সিয়ার সব খেলোয়াড় ও স্টাফ/ছবি: সংগৃহীত

walton

করোনা ভাইরাসের দৌরাত্ম্য ফুটবলকে আগেই গ্রাস করেছে। এরইমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে ইউরোপ-আমেরিকার সব ফুটবল আসর। তাতেও করোনার থাবা থেকে মুক্তি মিলছে না ফুটবলের। সর্বশেষ স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাব ভ্যালেন্সিয়ার খেলোয়াড় ও স্টাফদের প্রায় ৩৫ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে ঘরের মাঠে আটলান্টাকে আতিথ্য দিয়েছিল ভ্যালেন্সিয়া। রোমাঞ্চকর ম্যাচটি ৪-৩ গোলে জিতে দুই লেগ মিলিয়ে ৮-৪ গোল ব্যবধানে নিয়ে শেষ আটে পা রাখে আটলান্টা। কিন্তু ম্যাচটির কথা এখন সবাই প্রায় ভুলেই গেছে। কারণ এরপরই যে স্পেন আর ইতালির ফুটবল মহামারী করোনায় বন্ধ হয়ে গেছে।

মূলত গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ইতালির মিলানে আটলান্টার বিপক্ষে প্রথম লেগের ম্যাচটিকেই 'ভিলেন' মানছে ভ্যালেন্সিয়া। কারণ ওই ম্যাচের কয়েকদিন পরই ওই অঞ্চলকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছিল ইতালিয়ান প্রশাসন।

গত রোববার (১৫ মার্চ) প্রথম দলের খেলোয়াড় এবং স্টাফদের মধ্যে ৫ জনের দেহে করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়েছিল। এখন সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ জনে। 

ভ্যালেন্সিয়ার ইজেকুয়েল গ্যারে লা লিগার খেলোয়াড়দের মধ্যে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। এরপর তার সতীর্থ এলিয়াকুইম মাঙ্গালাও তালিকায় যুক্ত হন। রোববার হোসে গায়াও নিজের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান।

এদিকে আগের পাঁচজনের সঙ্গে নতুন করে আরও চারজনের আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে ভ্যালেন্সিয়া। তবে ক্লাবটির তরফ থেকে আক্রান্তদের শারীরিক অবস্থা বিপদমুক্ত বলে জানানো হয়েছে। তবে ক্লাবের সব খেলোয়াড় ও স্টাফদের আপাতত কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

এর আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে স্পেনে মৃতুবরণ করেছেন ফ্রান্সিসকো গার্সিয়া নামের এক ২১ বছর বয়সী ফুটবল কোচ। তিনি ২০১৬ সাল থেকে মালাগা ভিত্তিক ফুটবল ক্লাব অ্যাতলেটিকো পোর্তাদা আল্টার জুনিয়র দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এছাড়া করোনা ভাইরাস আতঙ্কে এরইমধ্যে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদসহ স্পেনের সব ফুটবল ক্লাবের খেলোয়াড়রা এখন কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ইতোমধ্যে স্পেনে মারা গেছেন ৩৪২ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৯৪২ জন।। বিশ্বের ১৬২টি দেশ ও অঞ্চলে এ রোগটি ছড়িয়ে গেছে। বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮৩ হাজার ৬২ জন এবং মারা গেছেন ৭ হাজার ১৭৫ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০১ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০২০
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফুটবল লা লিগা করোনা ভাইরাস
ঢাবির ক্লাস-পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত
বাড়িতে করোনা আক্রান্ত, সাক্ষী তনওয়ারের বাড়ি সিলগালা
‘কারণ ছাড়াই’ ইউএসটিসিতে নার্সসহ ৩৪ জন চাকরিচ্যুত
আইসিসিআর'র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে রীভা গাঙ্গুলির অভিনন্দন
পাবনায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১


করোনা: শবে বরাতের রাতে হয়নি হালুয়া-রুটি বিতরণ
 করোনা: দিনভর অভিযানে বরিশালে লাখ টাকা জরিমানা
টুঙ্গিপাড়ায় ২ করোনা রোগী শনাক্ত, ৬ বাড়ি লকডাউন
তিতাসে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত
করোনাকালীন কর্মস্থলে অনুপস্থিত: ফেঁসে যাচ্ছেন ১১ কর্মকর্তা