অনুশীলনে  আরও কঠোর পরিশ্রম করবো: লিটন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লিটস দাস। ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পুরো সিরিজ জুড়েই দারুণ ছন্দে ছিলেন লিটস দাস। প্রায় সব ম্যাচেই তার ব্যাটে ছিলো রান। টেস্টে এক ইসিংসে ফিফটি, ওয়ান সিরিজে একটি ম্যাচ ছাড়া বাকি দুটি ম্যাচে সেঞ্চুরি করে তামিমের সঙ্গে যৌথভাবে হয়েছিলে সিরিজ সেরা। এরপর টি-টোয়েন্টি সিরিজে দুটি ফিফটি তুলে হয়েছেন সিরিজ সেরা। ধারাবাহিকতার প্রতীক হয়েছিলেন তিনি। তবে লিটন মনে করেন নিজের প্রতি বিশ্বাসটা রেখেই নিজের খেলার ধরনটা পরিবর্তন করেছেন বলেই সাফল্য পেয়েছেন। তবে স্বস্থির নিশ্বাসটা ফেলতে চান না এ ডানহাতি ওপেনার।

বুধবার (মার্চ ১১) ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানিয়েছেন লিটন। তিনি মনে করেন খেলা প্রতি মনযোগী ছিলেন বলেই সাফল্য পেয়েছেন। তবে সেটা ধরে রাখতে চান তিনি।

লিটন বলেন, ‘আমি এভাবে চিন্তা করিনি এখনো। জানি না আপনারা কীভাবে রেট করেন আরকি। এর আগেও আমি পারফরম্যান্স করেছি। একটা ম্যাচ খেলার পর একটু রিলাক্স হয়ে যেতাম। একটা ম্যাচে তো রান করেছি, নেক্সট ম্যাচেও রান হয়ে যাবে। এ সিরিজে আমি চিন্তা করেছি, প্রতিটা ম্যাচই নতুন। আউট হতে এক বলই যথেষ্ট। এবার অনেক ফোকাস ছিলাম। শট সিলেকশনেও সীমাবদ্ধ ছিলাম। আমি যে খুব উপর দিয়ে মেরেছি পুরো সিরিজে তা কিন্তু না। মেরিট অব দ্য বল খেলার চেষ্টা করেছি। মনযোগটা ছিল বেশি।’

 তবে এ পরফরম্যান্স তার ওপর চাপ তৈরি করবে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘চাপ না। আপনি যখন একটা জিনিস হাতে পাবেন, সেটা ফেলা দেওয়া অনেক সহজ, ধরে রাখা কঠিন। এখন হবে আমার জন্য চ্যালেঞ্জিং আমি আসলে পারফরম্যান্সটা কতটা কন্টিনিউ করতে পারছি। প্রস্তুতি পর্যায় থেকে ম্যাচের সবই কষ্টদায়ক হবে। আমি চেষ্টা করবো এ পারফরম্যান্স ধরে রাখতে। জানি না কতটুকু পারবো। কিন্তু অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করবো।’

বাংলাদেশ সময়: ০২৩৩ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০২০
আরএ/আরআইএস

ব্যাংকে গ্রাহকের উপস্থিতি বাড়েনি
কমলনগরে বন্ধ সূর্যের হাসি ক্লিনিক, সেবাবঞ্চিত অনেকে
বিশ্বব্যাপী করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লাখ ছাড়ালো
কাভার্ডভ্যান-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১
করোনা: বরিশালে নির্দেশনা না মানায় ৩৪ জনকে জরিমানা


নারায়ণগঞ্জে নতুন করে আরও ৬ করোনা আক্রান্ত শনাক্ত
মহিলা হোস্টেল ব্যবহার হবে কোয়ারেন্টিনে
গৃহহীনদের রান্না করা খাবার দিচ্ছে ‘সাফিয়া ফাউন্ডেশন’
চীন ছাড়া সব রুটে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা
বান্দরবানে ওএমএস’র চাল বিক্রি শুরু