পাকিস্তান সফরে রাজি বিসিবি, তবে...

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন/ফাইল ছবি

walton

দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত কারণে পাকিস্তানের মাটিতে পুরো সিরিজ খেলায় রাজি নয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। 

বিসিবি শুধুমাত্র তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার ব্যাপারে ইতিবাচক। টেস্ট ম্যাচ দুটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার আগ্রহের কথা জানিয়ে বিসিবি এরইমধ্যে চিঠি পাঠিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কাছে।  

শনিবার (২১ ডিসেম্বর) বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বিসিবি ইতিমধ্যে পিসিবি'র কাছে নিজেদের অবস্থানের কথা জানিয়ে দিয়েছে। সুজন বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের যোগাযোগ হচ্ছে। অবশ্যই তারা চাইবে পুরো সিরিজটা খেলার জন্য। আমরা আমাদের অবস্থান পরিষ্কার করেছি এবং কেন চাচ্ছি না সে বিষয়গুলোও বলেছি। ওরা হয়তো তাদের দিক থেকে বিবেচনা করছে। আমরা আমাদের অবস্থান জানিয়ে দিয়েছি।'

পাকিস্তান সফরে গেলেও পুরো সিরিজ পাকিস্তানে খেলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে বিসিবি। দুটি টেস্টের জন্য ১০ দিন আর তিনটি টি-টোয়েন্টির জন্য তিন দিন করে হলে মোট খেলার দিন হবে ১৩ দিন। আর ম্যাচের মধ্যখানে বিরতিসহ আরও সাত দিন ধরলে কমপক্ষে ২০ দিনের মতো পাকিস্তানে থাকতে হতে পারে বাংলাদেশ দলকে। এতো লম্বা সময় পাকিস্তানে অবস্থান করাটা নিরাপদ ভাবছে না বিসিবি।

নিজামউদ্দিন বলেন, ‘নিরাপত্তা বিশ্লেষক যারা আছেন তারা বিষয়টা বুঝতে পারবেন যে একটা সংক্ষিপ্ত সময় অবস্থান করা আর লম্বা সময় অবস্থান করার মধ্যে কিছুটা হলেও পার্থক্য আছে।  সেক্ষেত্রে নিরাপত্তার বিষয়টা বিবেচনায় রেখেই আমরা মূলত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।' 

বংলাদেশের নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাকিস্তন সফর করে এসেছে এবং তাদের প্রতিবেদন ইতিমধ্যে হাতে পেয়েছে বিসিবি। সেই প্রতিবেদনের কথা মাথায় রেখেই বিসিবি তাদের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এই বিষয়ে আইসিসি'র মতামত নেয়া হবে বলেও জানান বিসিবি'র প্রধান নির্বাহী।   

সুজন জানান, ‘আপনারা জেনেছেন যে ইতোমধ্যেই একটা সরকারি দল পাকিস্তান সফর করেছেন এবং তাদের প্রতিবেদন আমরা পেয়েছি। এছাড়া বাংলাদেশ হাই কমিশনের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ হচ্ছে। নিরাপত্তার বিষয়টি প্রাধান্য দিয়ে আমরা দেখছি এবং এর ওপর নির্ভর করছে পুরো সিদ্ধান্ত। আর কোনো নিরাপত্তা দল পাঠানোর পরিকল্পনা নেই। আন্তর্জাতিক ম্যাচ হলে আইসিসি ম্যাচ অফিসিয়াল নিয়োগ দেয়।  সেক্ষেত্রে হয়তো আইসিসির সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করব এবং তাদের স্বাধীন মতামত নেয়ার চেষ্টা করব।'

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৮ ঘন্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৯
আরএআর/এমএইচএম

হটলাইনে ফোন করে খাবার পেলো ৪১ পরিবার
রাজশাহীতে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি যুবকের মৃত্যু
করোনা আতঙ্কে পাল্টে গেছে ভোলা সদর হাসপাতালের চিত্র
বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তাদের দুস্থদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ
যে কোনো দুর্যোগে ভূমিকা রেখেছে সংগীত


২০১৯ সালে ব্যবসা ভালো হয়েছে: হুয়াওয়ে চেয়ারম্যান
৪ দফা দাবি নিয়ে বরিশালে সংবাদ সম্মেলন বাসদের
করোনা: সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন ইতালিফেরত যুবক 
‘করোনায় দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি হবে ৩ বিলিয়ন ডলার’
বগুড়ায় হোম কোয়ারেন্টিনে ৬৮৬, ছাড়পত্র পেলেন ২৮৭ জন