php glass

রদ্রিগোর হ্যাটট্রিকে রিয়ালের গোল উৎসব

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হ্যাটট্রিক করেছেন হ্যাটট্রিক-ছবি: সংগৃহীত

walton

গ্যালাতাসারাইকে ঘরের মাটিতে পেয়ে রীতিমত গোল উৎসব করলো রিয়াল মাদ্রিদ। আর তাতে হ্যাটট্রিক করে মূল ভূমিকা রাখলেন তরুণ ব্রাজিলিয়ান তারকা রদ্রিগো। সেই সঙ্গে জোড়া গোল করলেন করিম বেনজেমা।  আর সার্জিও রামোসের পেনাল্টি গোল মিলিয়ে গ্যালাতাসারাই’কে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করলো স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে বুধবার (০৭ নভেম্বর) দিনগত রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যু’কে উৎসবে রাঙানোর প্রথম কাজটা করেন রদ্রিগো। গত মাসে ইস্তানবুলে যে একাদশ খেলিয়েছিলেন জিনেদিন জিদান, এই ম্যাচে তাতে কোনো পরিবর্তন না আনাতেই ১৮ বছর বয়সী উইঙ্গার শুরু থেকে মাঠে নামার সুযোগ পেয়ে যান। আর কোচের আস্থার প্রতিদান দিতে মাত্র ৪ মিনিট সময় নেন এই ব্রাজিলিয়ান।

গ্যালাতাসারাই’র ডিফেন্সের উপর দিয়ে মার্সেলোর পাঠিয়ে দেওয়া বল দারুণ ক্ষিপ্রতায় জালে জড়িয়ে দেন রদ্রিগো। প্রথম গোলের মাত্র মিনিট তিনেক পরেই ফের রদ্রিগো জাদু। এবারও দুই ব্রাজিলিয়ান মার্সেলো-রদ্রিগো জুটির কারিশমা কাজে লাগে। স্বদেশী ডিফেন্ডারের ভাসিয়ে দেওয়া বলে হেড করে রিয়ালকে ২-০ গোলে এগিয়ে দেন রদ্রিগো।

দুই গোল হজম করা গ্যালাতাসারাই এরপর রিয়ালের আক্রমণে নিজেদের অর্ধে বন্দি হয়ে পড়ে। বিপর্যস্ত গ্যালাতাসারাই’র ডি-বক্সে ১৪তম মিনিটে ফাউলের শিকার হন টনি ক্রুস। ভিএআর’র সহায়তায় পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। আর তা থেকে গোল করেন রামোস। খেলার ৪ ভাগের ১ ভাগ সময় অতিবাহিত হওয়ার আগেই ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা।

প্রথমার্ধে রিয়ালের একমাত্র বাজে সময় আসে যখন বিরতির বাঁশি বাজার আগ মুহূর্তে ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন মার্সেলো। এরপরও বিরতির ঠিক আগে গ্যালাতাসারাই’র ডিফেন্ডার ইউতো নাগাতোমোর ভুলে বল পেয়ে যান রদ্রিগো এবং এই ব্রাজিলিয়ানের ক্রস থেকে বল পেয়ে সহজেই লক্ষ্যভেদ করেন করিম বেনজেমা। 

প্রথমার্ধেই ৪-০ গোলে এগিয়ে যাওয়া রিয়ালের জন্য দ্বিতীয়ার্ধ হয়ে দাঁড়ায় শুধুই নিয়মরক্ষা। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর অপেক্ষা ছিল শুধু রদ্রিগোর হ্যাটট্রিকের। তবে তার আগেই দানি কারভাহালের ক্রস থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান বেনজেমা। 

এরপর রাতটা যেভাবে শুরু হয়েছিল ঠিক সেভাবেই শেষ হয়। অর্থাৎ ফের একবার গোল করে দু’হাত তুলে উদযাপন করেন রদ্রিগো। এবারে তাকে বল বানিয়ে দেন বেনজেমা। সেই সঙ্গে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন এই তরুণ তারকা। বার্নাব্যুতে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক আর চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে পারফেক্ট হ্যাটট্রিকের রেকর্ডও এখন এই ১৮ বছর ৩০১ দিন বয়সীর দখলে। এর আগে চ্যাম্পিয়নস লিগে সবচেয়ে কম বয়সে পারফেক্ট হ্যাটট্রিক ছিল কিলিয়ান এমবাপ্পের (২০ বছর ৩০৬ দিন) দখলে।

রিয়ালের জয়ের পরও অবশ্য গ্রুপ ‘এ’র শীর্ষে আছে পিএসজি। ৪ ম্যাচে ৪ জয় নিয়ে শীর্ষে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। সমান ম্যাচে ২ জয়, ১ ড্র ও ১ হার নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ। আর ১ ড্র ও ৩ হার নিয়ে গ্রুপে সবার নিচে গ্যালাতাসারাই।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৭, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফুটবল রিয়াল মাদ্রিদ
মনের তৃষ্ণা বাড়িয়ে দিলেন লোকশিল্পীরা
স্বেচ্ছাসেবক লীগে শীর্ষ পদে আলোচনায় যারা
রাবিতে শিক্ষকদের দ্বন্দ্বের বলি হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা
ভেনিসে ৫০ বছরের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বন্যা, জরুরি অবস্থা 
ফতুল্লায় অটোরিকশার চাপায় শিশুর মৃত্যু


শ্রীপুরে বোমা ফাটিয়ে স্বর্ণের দোকানে লুট, গুলিবিদ্ধ ১
মেসির গোলে ব্রাজিলকে হারিয়ে আর্জেন্টিনার প্রতিশোধ
বাউল গান আর কাওয়ালিতে লোকজ মুগ্ধতা
ছায়ানটের শ্রোতার আসরে রবীন্দ্র সঙ্গীতের সুর
যত পড়বেন, ততই শিখবেন: বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী