php glass

ঘরের মাঠে স্লাভিয়াকে হারাতে পারল না বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

খেলার একটি দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

walton

চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের প্রথম লেগে কোনোমতে জয় নিয়ে ফিরলেও ঘরের মাঠে স্লাভিয়া প্রাহাকে হারাতে পারল না বার্সেলোনা। অখ্যাত স্লাভিয়ার কাছে এই ড্র মানে তো একপ্রকার জয়। এদিকে লুইস সুয়ারেসবিহীন বার্সা আবারও মেসির ওপর ভর করে জয়ের চেষ্টা করার খেসারত দিল।

প্রথম লেগে এই স্লাভিয়া প্রাহাকে তাদের ঘরের মাঠে ২-১ গোলে হারিয়েছিল বার্সা। তবে সেবার কাতালান জায়ান্টদের ভয় পাইয়ে দিয়েছিল চেক রিপাবলিকের ক্লাবটি। ফিরতি লেগেও দারুণ লড়াই উপহার দিয়েছে দলটি। তবে এবার নিজেদের ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুয়ে বার্সার গোলশূন্য ড্র করাটা দুর্ভাগ্যজনকই বলতে হবে। বেশ কিছু গোলের সুযোগ নষ্ট না হলে জয় প্রাপ্য ছিল মেসিদেরই।

তবে ড্র করলেও চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ ‘এফ’র শীর্ষেই আছে বার্সা। ৪ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৮। আর চতুর্থ স্থানে থাকা স্লাভিয়ার পয়েন্ট ৪ ম্যাচে মাত্র ২। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইন্টার মিলান এক ম্যাচ কম খেলে ৪ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে।

প্রথমার্ধের শুরুতে বার্সার সঙ্গে সেয়ানে সেয়ানে টক্কর দিয়েছে স্লাভিয়া। তবে গোলমুখে আক্রমণের দিক থেকে এগিয়ে ছিল বার্সা। লিওনেল মেসির শট দুর্ভাগ্যজনকভাবে একবার বারে লেগে আর অন্য বার গোলরক্ষক ঠেকিয়ে না দিলে প্রথমার্ধে হাসিমুখে থাকতে পারতো কাতালানরাই।

১১তম মিনিটে বার্সার প্রথম আক্রমণের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন পিকে। তার বানিয়ে দেওয়া বলে জোরালো শট নিয়েছিলেন নেলসন সেমেদো। কিন্তু এই ফুল-ব্যাকের নিচু শট পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন স্লাভিয়ার গোলরক্ষক আন্দ্রে কোলার।

বার্সার সহজ সুযোগ ছিল ৩৫তম মিনিট। ভিদালের পাস ধরে একাই প্রতিপক্ষের রক্ষণে হানা দিয়েছিলেন মেসি। স্লাভিয়ার তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডি-বক্সের ঠিক সামনে থেকে নেওয়া বার্সা অধিনায়কের বাঁ পায়ের শট বারে লেগে সাইডলাইনের বাইরে চলে যায়।

৪৩তম মিনিটে গ্রিজম্যানের পাস থেকে বল পেয়েছিলেন ভিদাল। পরে এই চিলিয়ান মিডফিল্ডারের স্লাইড থ্রো-বল মেসির পায়ে পৌঁছে যায়। কিন্তু পোস্টের একদম কাছ থেকে নেওয়া মেসির শট কোলারের হাত ছুঁয়ে বেরিয়ে যায়। তবে এতোসব আক্রমণের মধ্যেও প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্তে উল্টো গোল করে বসেছিল স্লাভিয়া। কিন্তু অফসাইডের ফাঁদে পড়ায় গোল বাতিল হয়ে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের ধারা বজায় রাখে বার্সা। ৪৮তম মিনিটে স্লাভিয়ার ডি-বক্সের কাছ থেকে নেওয়া মেসির ফ্রি-কিক শট বারের ওপর দিয়ে যায়। এরপর ৫৬তম মিনিটে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন সার্জি রবার্তো। উসমানে দেম্বেলের ক্লিপে বলে পেয়ে শটও নিয়েছিলেন রবার্তো, কিন্তু একদম কাছ থেকে এই শট ঠেকিয়ে দেন কোলার।

৭৮তম মিনিটে মেসির আরও একটি শট ঠেকিয়ে দেন কোলার। এবার দেম্বেলের বদলি হিসেবে নামা আনসু ফাতির বাড়িয়ে দেওয়া বলে স্লাভিয়ার ডি-বক্সের মাত্র ৬ গজ দূর থেকে শট নিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু এবারও কোলারের অবিশ্বাস্য সেভ। শেষে এই কোলারই সময়ক্ষেপণের দায়ে হলুদ কার্ড হজম করেন। তবে তাতে তার কিছু যায়-আসে বলে মনে হয় না। ক্যাম্প ন্যু থেকে ড্র নিয়ে ফিরতে পেরেছে স্লাভিয়া, এটাই বা কম কি!

বাংলাদেশ সময়: ০২১৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৬, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বার্সেলোনা
চুরির দায়ে বেনাপোল কাস্টমস হাউজের ৫ সদস্য বরখাস্ত 
বিএনপি জাতীয়তাবাদী শক্তির প্লাটফর্ম: গয়েশ্বর
রাজধানীতে র‍্যাবের অভিযানে আটক ২
ভয়াল ১২ নভেম্বর
পাওনার দাবিতে বিজেএমসি কার্যালয় ঘেরাও


শেবাচিমে নবজাতক চুরির সময় নারী আটক
আফগানদের হোয়াইটওয়াশ করলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ভাস্কর্যশিল্পী রঁদ্যার জন্ম
ফুলগাজী সীমান্তে বাংলাদেশি নারী আটক
আবরার মৃত্যুর তদন্ত প্রতিবেদন জমা