php glass

ঢাকার বিপক্ষে ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কায় রাজশাহী

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা বনাম রাজশাহী বিভাগের ম্যাচের দৃশ্য: ফাইল ফটো

walton

জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) চতুর্থ রাউন্ডে টায়ার ওয়ানের ম্যাচে ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কায় পড়েছে রাজশাহী বিভাগ। শেষ দিনে ইনিংস পরাজয় এড়াতে রাজশাহীর প্রয়োজন ১৬৭ রান। হাতে রয়েছে ৭ উইকেট। এদিন ঢাকার হয়ে সেঞ্চুরির দেখা পান তাইবুর রহমান, শুভাগত হোম ও নাদিফ চৌধুরী।

সোমবার (০৪ নভেম্বর) কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম একাডেমি মাঠে ঢাকা বিভাগ ৭ উইকেটে ৪৭৫ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। দিন শেষ দ্বিতীয় ইনিংসে রাজশাহীর সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৭৭ রান। এর আগে প্রথম ইনিংসে রাজশাহী অলআউট হয় ২৩০ রানে।

৪ উইকেটে ২৮৪ রান নিয়ে তৃতীয় দিনে প্রথম ইনিংসের খেলা শুরু করে ঢাকা। ৯৩ রানে পরাজিত থাকা তাইবুর সেঞ্চুরি তুলে নেন। ১০২ রান করে দিনের শুরুতেই আউট হন তিনি।

এরপর সেঞ্চুরি তুলে নেন আগের দিনে ৯২ রানে অপরাজিত থাকা আরেক ব্যাটসম্যান শুভাগত। ১০৪ রান করে দলীয় ৩১৩ রানের মাথায় শুভাগত বিদায় নেন। নাজমুল ইসলাম ১২ রান করে যখন সপ্তম ব্যাটম্যান হিসেবে আউট হন দলের রান তখন ৩৬২।

এরপর অধিনায়ক নাদিফ এবং সুমন খান শক্ত প্রতিরোধ গড়েন। সাতটি চার ও সাতটি ছয়ের মারে দারুণ এক সেঞ্চুরি তুলে নেন নাদিফ। অন্যদিকে অর্ধ শতক তুলে নেন সুমন। ৭ উইকেটে ৪৭৫ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষনা করে ঢাকা। ১১৩ রানের অবিচ্ছন্ন জুটি গড়ে নাদিফ ১০১ ও সুমন ৫০ রানে অপরাজিত থাকেন। রাজশাহীর সানজামুল ইসলাম ৪টি, ফরহাদ রেজা ২টি ও সাকলাইন সজীব ১টি উইকেট নেন।

২৪৫ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই সাব্বির হোসাইনের উইকেট হারায় রাজশাহী বিভাগ। দিন শেষে রাহশাহীর সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৭৭ রান। জুনায়েদ সিদ্দিকী ৪১ ও নাজমুল হোসেন শান্ত ১৭ রানে ক্রিজে আছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৪, ২০১৯
আরএআর/ইউবি 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
কোম্পানীগঞ্জে ধানক্ষেত থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার
সিগন্যাল না দেখার অজুহাত তূর্ণার সহকারী চালকের
কুবিতে ভর্তির সাক্ষাৎকার শুরু ২৪ নভেম্বর
গোল্ডেন ফুট অ্যাওয়ার্ড জিতলেন মদ্রিচ
শীত আসছে ড্রাই শ্যাম্পুর রেসিপিটা মনে আছে তো!


১০ বছরে ২ হাজার রেল দুর্ঘটনা, মৃত্যু ২৬৩ জনের   
নির্বাচনের আগে পরপর ২ বার সাইবার হামলায় লেবার পার্টি
১৬ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা
সঙ্গীর জন্য ২ পেঙ্গুইনের মারামারি
মহানবী (সা.)-এর প্রিয় ফল জয়তুন