সাকিবের নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে ভারতীয় বোর্ড কিছুই জানে না

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

২০১৮ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেছিলেন সাকিব। ছবি:সংগৃহীত

walton

জুয়াড়ির প্রস্তাবের কথা গোপন করার অপরাধে সাকিব আল হাসানকে দুই বছর সবধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। তবে অপরাধ স্বীকার করায় এর মধ্যে ১ বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা অর্থাৎ এক বছর পরই ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সাকিবকে তিনটি ম্যাচে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দেওয়া কথা উঠে এসেছে। এরমধ্যে ২০১৮ সালে আইপিএলের একটি ম্যাচও ছিল। ভারতীয় জুয়াড়ি দীপক আগারওয়াল সেই ম্যাচে কুপ্রস্তাব দিয়েছিলেন সাকিবের কাছে।

এখন প্রশ্ন উঠেছে সাকিবের বিরুদ্ধে আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিটের তদন্তে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কোনো ভূমিকা আছে কিনা? তবে বিসিসিআইয়ের দুর্নীতি দমন ইউনিটের (এসিইউ) প্রধান অজিত সিং জানিয়ে দিয়েছেন, ২০১৮ সালে আইপিএলের ম্যাচে সাকিবের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে সেটা সম্পূর্ণভাবে আইসিসি স্বাধীনভাবে তদন্ত করেছে।

ম্যাচটি ছিল ২৬ এপ্রিল ২০১৮ সালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ বনাম কিংস ইলিভেন পাঞ্জাবের মধ্যকার। তবে ম্যাচটিতে সাবিকের দল হাদ্রাবাদ ১৩ রানে জয় পেয়েছিল। আর সাকিব ২৮ রানের পাশাপাশি দুটি উইকেটও নিয়েছিলেন।

অজিত সিং বলেন, ‘নির্দিষ্ট সেই আইপিএল আসরে দুর্নীতি দমনের ব্যাপারগুলো আইসিসি নিজেই দেখভাল করেছে। পুরো তদন্তের ব্যাপারটাই তাদের হাতে ছিল। বিসিসিআইয়ের এখানে কোনো ভূমিকাই ছিল না।’

আগারওয়ালের অন্য দুটি প্রস্তাব ছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ২০১৭ সালের একটি ম্যাচ। যখন সাকিব ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলছিলেন। পরেরটি ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজে।

বাংলাদেশ সময়: ২০১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০১৯
এমএমএস

ঢাকা উত্তরে বিধি ভঙ্গের হিড়িক, ১৯ দিনে ৪৪ অভিযোগ
মুরগি-কবুতর পালনে স্বাবলম্বী ঠাকুরগাঁওয়ের রহিজুল
যাদের সঙ্গে কবিতার যোগ, তারা আত্মীয়: মুনমুন মুখার্জী
বিমানবন্দরে ১৫৩ কার্টন সিগারেট জব্দ
বার্সাকে হটিয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ


শিক্ষক সংকটে বাগেরহাটের দুটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়
আন্তর্জাতিক মানের হচ্ছে মোংলা বন্দর, একনেকে উঠছে প্রকল্প
ঋষিধামে কুম্ভমেলা শুক্রবার
গ্র্যাজুয়েটদের চাকরির পথ দেখালো ইউজিসি
করোনা ভাইরাসে চীনে মৃত বেড়ে ৮০