php glass

১৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

.

walton

মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষমান ফুটবল প্রেমীরা। কিন্তু সেই অপেক্ষা এবার দীর্ঘায়িত হচ্ছে। কাতালুনিয়ায় স্বাধীনতা আন্দোলন নিয়ে চলমান রাজনৈতিক সংকটের কারণে পেছাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ বনাম বার্সেলোনার সেই ঐতিহাসিক লড়াই। 

শুরুতে দুই ক্লাবের মধ্যে ম্যাচ আয়োজনের সম্ভাব্য তারিখ নিয়ে অনৈক্য থাকলেও অবশেষে দুই জায়ান্টের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, আগামী ১৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে মৌসুমের প্রথম মহারণ। দুই ক্লাবের পক্ষ থেকেই পৃথক বিবৃতিতে এই সিদ্ধান্তের কথা নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের (আরএফইএফ) অনুমতির জন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে।

২৬ অক্টোবর বার্সেলোনার ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুয়ে হওয়ার কথা ছিল মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো। কিন্তু অস্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিস্থিতে সেই লড়াই হবে কি হবে না তা নিয়ে সংশয় দেখা দেয়। বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ তারিখ পেছানো নিয়ে একটি প্রস্তাবও রেখেছিল আরএফইএফ বরাবর। 

অবশ্য শুরুতে ক্যাম্প ন্যুয়ের পরিবর্তে নির্দিষ্ট তারিখে ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে প্রথম এল ক্লাসিকো আয়োজন করতে প্রস্তাব দিয়েছিল লস ব্লাঙ্কোসরা। কিন্তু পরে দুই ক্লাবই রাজি হয়েছে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে না খেলার জন্য। সেক্ষেত্রে তারিখ পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে। 

প্রাথমিকভাবে দুই মাস পিছিয়ে ১৮ ডিসেম্বর (বুধবার) ক্যাম্প ন্যুয়েই ম্যাচটি আয়োজনের ব্যাপারে ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু লা লিগা কর্তৃপক্ষ তাতে সম্মত হতে পারেনি। কারণ একই তারিখে রয়েছে কোপা দেল রে’র ম্যাচ। তবে এখন একমত হয়েছে দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব। 

বাংলাদেশ সময়: ২০২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফুটবল বার্সেলোনা রিয়াল মাদ্রিদ
নিহতদের মধ্যে ৬ জন হবিগঞ্জের
ব্যবসায়িক কার্যক্রমে মহানবী (সা.)-এর সম্পৃক্ততা
ইন্দোর টেস্টের আগে নেটে ঘাম ঝরাচ্ছেন টাইগাররা
শান্তিনগরে বাসচাপায় পা থেঁতলে যাওয়া নারীর মৃত্যু
কাস্টম অফিসার পরিচয়ে প্রতারণা, পুলিশের হাতে ধরা


ডামুড্যায় বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ 
নূর হোসেন নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যে দুঃখ প্রকাশ রাঙ্গার  
ট্রেন দুর্ঘটনায় আহতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ফখরুলের
বেগমগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবদল নেতা নিহত
হংকংয়ে ব্যাপক সহিংসতা, অধিকাংশ স্কুল বন্ধ