php glass

‘বিপ টেস্টে ধীরে ধীরে উন্নতি করবে ক্রিকেটাররা’

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: শোয়েব মিথুন

walton

জাতীয় ক্রিকেট লিগ শুরুর আগেই এবার ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট নিয়ে বেশ আলোচনা চলছে। ১০ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এই জাতীয় লিগের জন্য ক্রিকেটাদের অনেকে এবার দু’বার করেও বিপ টেস্ট দিয়েছেন। 

বিসিবি’র বেধে দেওয়া বিপ টেস্টের মানদণ্ড এখন পর্যন্ত অনেকেই স্পর্শ করতে পারেননি। তবে এবারের মতো হয়তো তাদের বিবেচনা করবেন নির্বাচকরা। বিসিবি’র ফিটনেস ট্রেনার তুষার কান্তি মনে করেন, ধীরে ধীরে ক্রিকেটারদের ফিটনেস উন্নতি হবে। একবারে সম্ভব নয়।

রোববার (০৬ অক্টোবর) মিরপুরে বিসিবি’র একাডেমি ভবনে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আসলে সবকিছু নির্ভর করে কোচিং দর্শনের ওপর। প্রত্যেক কোচ কিংবা ট্রেনারের চিন্তাভাবনা আলাদা। আমাকে যদি কোনো দল দেওয়া হয় তবে আমি চেষ্টা করবো ১২.৬ বা ১২ পয়েন্টের অধিক যেন হয়। এটা একটা ভালো মানদণ্ড। তবে একবারে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না বলেই তারা (বিসিবি) এখন থেকে ১১.৬ কিংবা ১১ পয়েন্ট বলছেন। তবে আমার মতে ১১ খুব ভালো মানদণ্ড নয়। এর থেকেও আরো বেশি হয় আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুসারে আরও বেশি থাকে।

ছবি: শোয়েব মিথুনফিটনেস নিয়ে বিবিবি’র ট্রেনার আরও বলেন, ‘তবে একটা ব্যাপার থেকে যায় কারো কারো ম্যাচ ফিটনেস একরকম আর ফিজিক্যাল ফিটনেস একরকম। এটা একটু ডিফার করে। বিপ টেস্ট নেওয়ার সময় আমরা একটা বেঞ্চ মার্ক বলি এটা হয়তো অনেকে রিচ করতে পারে না। যেমন রুবেল হোসেন, ফরহাদ হোসেনদের দেখেন, ওরা খেলতে গেলে একরকম কিন্তু এদের ফিটনেসের ব্যাপার যখন আসে তখন তারা একটু অন্যরকম হয়। অবশ্যই ফিটনেস একটা বড় মানদণ্ড। সেটা খেলাতেও প্রভাব ফেলে।’

ছবি: শোয়েব মিথুনবাংলাদেশ সময়: ২০০৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০১৯
আরএআর/এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
‘বিশ্বের সবচেয়ে উর্বরা’ নারীর গর্ভে ২৩ বছরে ৪৪ সন্তান! 
ডিনের অপসারণ দাবিতে পাবিপ্রবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
রূপগঞ্জ থেকে অপহৃত শিশু উদ্ধার, আটক ৪
রাঙামাটিতে মাসব্যাপী কঠিন চীবর দানোৎসব
মহাখালীতে স্টার সিনেপ্লেক্সের নতুন শাখা উদ্বোধন


রাজীবকে সঙ্গে নিয়ে তার বাসায় অভিযানে র‌্যাব
যুবলীগ থেকে বহিষ্কার রাজীব
সুনির্দিষ্ট অভিযোগে কাউন্সিলর রাজীব গ্রেফতার: র‌্যাব
রাজধানীতে ফিনিক্স হেলথ এক্সপো শুরু ২১ অক্টোবর
জাপান সম্রাটের অভিষেক অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন রাষ্ট্রপতি