ঢাকা, সোমবার, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ফুটবল

নেইমারের দলবদল: আর কোনো প্রস্তাব দেবে না বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৬ ঘণ্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৯
নেইমারের দলবদল: আর কোনো প্রস্তাব দেবে না বার্সা নেইমার জুনিয়র-ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে নেইমার নাটকে বিরতি পড়েছে। পিএসজি ও বার্সেলোনার রশি টানাটানিতে বিরক্ত নেইমারপ্রেমীরা এবার কিছুটা হাফ ছাড়তে পারেন। টানা চতুর্থ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর আর নতুন কোনো প্রস্তাব না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বার্সেলোনা। পিএসজিও পাল্টা প্রস্তাব দিয়ে প্রত্যাখ্যাত হয়ে এখন ‘স্পিকটি নট’।

নেইমারের ভাগ্য নির্ধারণে মোনাকোতে শেষ বৈঠকে বসেছিল বার্সা এবং পিএসজির প্রতিনিধি দল। আলোচনার বিষয় ছিল বার্সার চতুর্থ (যাকে বলা হচ্ছিল 'শেষ অফার') অফার।

নেইমারের বিনিময়ে ১৫০ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে উসমানে দেম্বেলে ও ইভান রাকিতিচকে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল বার্সা। কিন্তু প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দেয় পিএসজি। তবে আলোচনা তখনও শেষ হয়নি।

তবে অবাক করার মতো বিষয় হলো, বার্সার চতুর্থ প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেও পিএসজির পক্ষ থেকেই নতুন প্রস্তাব তুলে ধরা হয়। ইএসপিএন’র এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, নেইমারের বিনিময়ে ১৩০ মিনিয়ন ইউরো ও তিন খেলোয়াড়কে চায় পিএসজি। মিডফিল্ডার ইভান রাকিতিচ, ডিফেন্ডার জাঁ-ক্লেয়ার তোদিবোকে স্থায়ীভাবে আর ফরোয়ার্ড উসমানে দেম্বেলেকে ধারে পেতে যায় ফরাসি জায়ান্টরা।

পিএসজির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে খালি হাতে ক্যাম্প ন্যুয়ে ফিরে গেছে বার্সার প্রতিনিধি দল। তাদের দাবি, নেইমারকে পেতে তাদের প্রচেষ্টা যথেষ্ট ছিল। কিন্তু পিএসজি’র স্পোর্টস ডিরেক্টর লিওনার্দো বলছেন, বার্সার প্রস্তাব যথেষ্ট ছিল না! দুই দলের বিপরীতমুখী অবস্থান থেকে এটা স্পষ্ট যে, নেইমারের বার্সায় ফেরা এখন প্রায় অসম্ভব। অথচ দুদিন আগেই স্প্যানিশ মিডিয়া ফলাও করে প্রচার করলো ‘চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য প্রস্তুত বার্সা-পিএসজি’। শুধু ছোটখাটো কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা শেষে মূল ঘোষণা দেওয়ার কথা ছিল।

২০১৭ সালে ২২২ মিলিয়ন ইউরো রিলিজ ক্লজ পরিশোধ করে নেইমারকে কিনেছিল পিএসজি। বিক্রির সময়ও সমান অর্থই দাবি তাদের। যদিও বার্সা শুরু থেকেই খেলোয়াড় বিনিময়ের পথে হাঁটতে চেয়েছে। প্রথম প্রস্তাবে নেইমারের স্বদেশী ফিলিপ্পে কৌতিনহোকে বিনিময় করতে চাইলেও রাজি হয়নি পিএসজি। তখন তারা ২৫০ মিলিয়ন ইউরো দাবি করেছিল।

দ্বিতীয় প্রস্তাবে নেইমারকে ধারে নিয়ে এক মৌসুম পর ১৭০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনে নিতে চেয়েছিল বার্সা। তৃতীয় প্রস্তাবে ধারে উসমানে দেম্বেলে আর ১৪০ মিলিয়ন ইউরো দেওয়া প্রস্তাব। সেটাও ব্যর্থ হওয়ায় চতুর্থ দফায় দেম্বেলে ও ইভান রাকিতিচ এবং ১৫০ মিলিয়নের প্রস্তাব, সেটাও ফিরিয়ে দেয় পিএসজি।

বার্সার তৃতীয় প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ার সময় পিএসজি জানিয়েছিল, ১২০ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে তাদের চাই দেম্বেলে ও নেসলন সেমেদো। কিন্তু বার্সা সেমেদোর বদলে ক্রোয়েট মিডফিল্ডার রাকিতিচকে দিতে চায়। পরে চতুর্থ ধাপে এসে পিএসজি জানায়, ২২২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়েই শুধু নেইমারকে ছাড়া হবে। এরপরই এলো নতুন সংবাদ যেখানে তিন খেলোয়াড় আর ১৩০ মিলিয়ন ইউরো দাবি করেছে পিএসজি, যা ফিরিয়ে দিয়েছে বার্সা।

নতুন সিদ্ধান্তের কথা মেসি, লুইস সুয়ারেস ও জেরার্ড পিকের মতো সিনিয়র খেলোয়াড়দের জানিয়ে দিয়েছে বার্সা। এই তিন তারকাই নেইমারকে ক্যাম্প ন্যুয়ে ফিরিয়ে আনার জন্য ক্লাব প্রেসিডেন্ট হোসে মারিয়া বার্তমেউকে চাপ দিয়ে আসছিলেন।  এমনকি নেইমারকেও জানানো হয়েছে যে, এই মৌসুমে তাকে আর কেনার সুযোগ নেই। কারণ, বার্সার জন্য পিএসজি'র দাবি মেনে নেওয়া প্রায় অসম্ভব।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৬ ঘণ্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৯
এমএইচএম/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa