php glass

ইউরোপা লিগের শিরোপা জয়ে চেলসির মৌসুম শেষ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিরোপা জয়ের পর চেলসির খেলোয়াড়দের উল্লাস

walton

উয়েফা ইউরোপা লিগের অল ইংলিশ ফাইনালে মুখোমুখি হয় দুই ইংলিশ জায়ান্ট চেলসি ও আর্সেনাল। দুর্দান্ত এক জয় দিয়ে মৌসুমটা শেষ করলো চেলসি। এডেন হ্যাজার্ডের জোড়া গোলে আর্সেনালকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে পাঁচ মৌসুম পর ইউরোপা লিগের শিরোপা ঘরে তুললো অল ব্লুজ শিবির।

আজারবাইজানের বাকু অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলে সমান আধিপত্য দেখায় দুই দলই। তবে বেশকিছু গোলের সুযোগ পেলেও তা কাজে লাতে পারেনি কোনো দলই। ফলে প্রধমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য।

বিরতির পর প্রথম থেকেই আর্সেনালের রক্ষণ চেপে ধরে চেলসি। সাফল্যও পেয়ে যায় তারা। ৪৯ মিনিটে হ্যাজার্ডের ক্রস থেকে দারুণ এক হেডে গোল করে দলকে লিড এনে দেন অলিভার জিরুড।

৫৯ মিনিটে ব্যবধান বাড়ায় অল ব্লুজ শিবির। পেনাল্টি বক্সের বামপাশ থেকে হ্যাজার্ডের পাস থেকে বল পেয়ে যান পেদ্রো। বাম পায়ের কোণাকুনি শটে বল জালে জড়ান তিনি। 

দুই গোলের লিড পেয়ে আক্রমণের গতি বাড়িয়ে দেয় চেলসি। ৬৪ মিনিটে পেনাল্টি বক্সের ভেতরে জিরুডকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় তারা। আর স্পট কিক থেকে গোল করতে ভুল করেননি হ্যাজার্ড।

৬৯ মিনিটে ডিবক্সের বাইরে থেকে দারুণ এক শটে গোলে আর্সেনালের ব্যবধান কমান অ্যালেক্স লোউবি। ম্যাচে ফেরার আভাস দেয় গানাররা। 

তবে সেই আশা শেষ হয়ে যায় এরপরই। ৭২ মিনিটে ডিবক্সের বাম পাস থেকে জিরুডের বাড়ানো বলে দারুণ ফিনিশিংয়ে গোল করেন হ্যাজার্ড। ম্যাচের স্কোর লাইন দাঁড়ায় ৪-১।

এরপর চেষ্টা করেও আর কোনোভাবেই ম্যাচে ফিরতে পারেনি আর্সেনাল। ফলে ৪-১ গোলের জয় দিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপা লিগের শিরোপা ঘরে তোলে মাউরিজিও সাররির শিষ্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ০৪০০ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০১৯
আরএআর/জেডএস

বিয়ে করেছেন বা করবেন, আইন-কানুন জেনে নিন
গফুর হালীর কথায় ‘ও পরাণের বন্ধু’ আমার মৌলিক গান: বেলী
শেরপুর সীমান্তে বন্যহাতির মরদেহ উদ্ধার
খালেদার বোমা হামলা মামলার প্রতিবেদন ২৬ আগস্ট
বাকলিয়ায় পুকুরে ডুবে স্কুলছাত্রের মৃত্যু


৫ প্রার্থী নিয়ে দুশ্চিন্তায় আ.লীগ, স্বস্তিতে বিএনপি
ভেজালমুক্ত খাদ্য নিশ্চিতে সার্বক্ষণিক অভিযানে গুরুত্ব
১৫ কোটি গ্রাহকের ‘গ্যালারি’ ফেসঅ্যাপের দখলে
জনতার মুখোমুখি হচ্ছেন চসিক মেয়র
বরিশালে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ শুরু