সৌম্য-মুশফিকের বীরত্বে ফাইনালে বাংলাদেশ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সৌম্য-মুশফিক

walton

ঢাকা: প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে আয়রল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় ফাইনাল নিশ্চিত করতে পারেনি টাইগাররা। তবে ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে সেই ক্যারিবিয়দের হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে মাশরাফির দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

php glass

ডাবলিনের দি ভিলেজ স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ২৪৭ রান সংগ্রহ করে ক্যারিবিয়রা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে সৌম্য ও মুশফিকের অর্ধশতকে সহজেই জয় তুলে নেয় টাইগাররা।

২৪৮ রানের টর্গেটে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশকে দারুণ সূচনা এনে দেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। ৫৪ রান আসে তাদের ব্যাট থেকে। তামিম ২১ রানে বিদায় নেন। সৌম্যকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যান সাকিব আল হাসান। তবে দলীয় ১০৬ রানে ব্যক্তিগত ২৯ রানে বিদায় নেন সাকিব। 

দলীয় রান ১০০ পার হওয়ার পর উইন্ডিজ স্পিনার নার্সের বলে টানা দুই বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে রোস্টন চেজের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরেছেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার। বিদায় নেওয়ার আগে ৩৫ বলে ২৯ রানের ইনিংস খেলার পথে তিনি তিনটি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন।

ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

অন্যদিকে, দারুণ শুরুর পর ওপেনিং সঙ্গী তামিম ইকবাল বিদায় নিলেও নিজের স্বভাবজাত আগ্রাসী ব্যাটিং চালিয়ে যাচ্ছিলেন সৌম্য সরকার। তুলে নিয়েছিলেন নিজের নবম ওয়ানডে ফিফটি। ৫৯ বলে ফিফটি তুলে নেওয়ার পথে তিনি চারটি চার ও দুইটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন। কিন্তু নার্সের করা ২১তম ওভারে সাকিবের বিদায়ের এক বল পরেই অ্যামব্রিসের হাতে ক্যাচ তুলে দিলে শেষ হয় তার ৫৪ রানের ইনিংস।

চতুর্থ উইকেটে জুটিতে মুশফিক ও মোহাম্মদ মিঠুন দলকে জয়ের পথে নিয়ে যান। তাদের ৮৩ রানে জুটিতে ম্যাচে নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় বাংলাদেশ। ৪৩ রান করে আউট হন মিঠুন। এরপর ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩৩তম অর্ধশতক তুলে নেন অভিজ্ঞ মুশফিক। দলের জয় থেকে ৮ রান দূরে থাকতে ৬৩ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরত যান তিনি।

নতুন ক্রিজে নামা সাব্বির রহমানকে কোনো বল খেলতেই দেননি মাহমুদুল্লাহ। ৩০ রানে অপরাজিত থেকে ১৬ বল আগেই দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন তিনি।

এর আগে, টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৯৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বড় সংগ্রহের পথে ধাক্কা খায় ক্যারিবিয়রা। পঞ্চম উইকেটে শাই হোপ ও অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের ১০০ রানের জুটিটাই লড়াই করার পুঁজি এনে দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। হোপ ৮৭ ও হোল্ডার ৬২ রান করে বিদায় নিলে বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৯ উইকেটে ২৪৭ রান তুলতে পারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 

৪ উইকেট নিয়ে টাইগার বোলারদের মধ্যে এদিন সবচেয়ে সফল ছিলেন বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। অধিনায়ক মাশরাফি তুলে নেন তিনটি উইকেট। এছাড়া সাকিব আল হাসান ও মিরাজ একটি করে উইকেট দখল করেন।

মুস্তাফিজুর রহমান ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন। ফাইনালের আগে নিয়ম রক্ষার ম্যাচে আগামী ১৫ মে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময়: ২৩২৪ ঘণ্টা, মে ১৩, ২০১৯ আপডেট: ০০২৭ ঘণ্টা
আরাএআর​/এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
পঞ্চম ধাপের উপজেলা ভোটে মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময় মঙ্গলবার
চা পাতা ভর্তি কাভার্ডভ্যান ছিনতাই, বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২
হুয়াওয়ে’কে আর এন্ড্রয়েড সেবা দেবে না গুগল
আন্দোলন থেকে সরে দাঁড়ালো ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা
চুয়াডাঙ্গায় নির্মাণাধীন ভবন থেকে গ্রেফতার ১৩


লক্ষ্মীপুরে ১ হাজার ৪০ টাকায় ধান ক্রয়
ইয়াবা পাচার: এসএ পরিবহনের তিনজন র‍্যাব হেফাজতে
এখন চলছে সুপার স্ট্রাকচার নির্মাণের কাজ 
মাদক মামলায় পুলিশ কনস্টেবলসহ দু’জনের কারাদণ্ড
লামায় পাহাড় থেকে পড়ে কাঠুরিয়ার মৃত্যু