তামিমের বিদায়, দুইশ পেরুলো বাংলাদেশ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ব্যাট করছেন তামিম ইকবাল।

walton

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয়ের দিকে এগোচ্ছে বাংলাদেশ। তামিম-সৌম্যের দুর্দান্ত শুরু পর দুই’শ রানের কোঠা পার করেছে বাংলাদেশ। তবে সেঞ্চুরি মিস করেন তামিম ইকবাল। ব্যক্তিগত ৮০ রান করে দলীয় ১৯৬ রানে বিদায় নেন তিনি। সাকিব আল হাসান ৩৫ রানে অপরাজিত আছেন। বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ২০২ রান।

 

php glass

আয়ারল্যান্ড-বাংলাদেশের দুই প্রতিপক্ষের পাশাপাশি কন্ডিশনও বড় ভূমিকা রেখে চলেছে। তাই পরিস্থিতির দাবি মিটিয়ে ব্যাট হাতে দেখেশুনে খেলার পথ বেছে নেন দুই টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। সেই মতো খেলেই প্রথম ১০ ওভারে দু’জনে মিলে তুলেন মাত্র ৩৮ রান। কিন্তু এরপরই হাত খুলে খেলতে শুরু করেন দু’জনেই।

এর আগে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে উইন্ডিজকে বড় সংগ্রহের পথে নিয়ে যাচ্ছিলেন ওপেনার শাই হোপ। কিন্তু টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান ও মেহেদি হাসান মিরাজ বল হাতে ঘুরে দাঁড়িয়ে উইন্ডিজের ইনিংস ২৬১ রানে থামিয়ে দেন।

মঙ্গলবার (০৭ মে) ডাবলিনে ত্রিদেশীয় সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নেন উইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। ব্যাটিংয়ে শুরুটা দারুণ করেন ক্যারিবীয় ওপেনার হোপ ও সুনীল অ্যামব্রিস। দু’জনে মিলে তুলেন ৮৯ রান।

ইনিংসের ১৭তম ওভারে বোলিংয়ে এসেই অ্যামব্রিসকে (৩৮) ফিরিয়ে ব্রেক থ্রু এনে দেন টাইগার অফ-স্পিনার মিরাজ। পরের ওভারে ড্যারেন ব্র্যাভোকে (১) উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিমের হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন সাকিব আল হাসান।

৯২ রানে ২ উইকেট হারানো দলের হাল ধরেন হোপ। তাকে সঙ্গ দেন রোস্টন চেজ। দু’জনে মিলে যোগ করেন ১১৫ রান। ১২৬ বলে নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরির দেখা পান হোপ। সেঞ্চুরিটি ১০ চার ও ১ ছক্কায় সাজানো।

সেঞ্চুরি করার পথে ওয়ানডে ক্রিকেটে নিজের ২০০০ রান পূর্ণ করেন শাই হোপ। ৫১তম ম্যাচ আর ৪৭তম ইনিংসেই এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন এই ওপেনার। উইন্ডিজের হয়ে সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে এই কীর্তি গড়ার পথে তিনি ছাড়িয়ে গেছেন ক্যারিবীয় গ্রেট ভিভ রিচার্ডসকেও (৪৮ ইনিংস)।

দারুণ এক ফিফটি করে মোস্তাফিজুরের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন চেজ। ২ রান যোগ হতেই মাশরাফির দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে ফেরেন সেঞ্চুরিয়ান হোপ। দু’জনকে মাত্র তিন বলের ব্যবধানে ফেরান মাশরাফি। পরে তার তৃতীয় শিকার হয়ে ফেরেন উইন্ডিজ অধিনায়ক হোল্ডারও। এরপর বলার মতো রান আসে শুধু অ্যাশলে নার্সের (অপরাজিত ১৯ রান) ব্যাট থেকে। শেষ ৫৫ রানে ৫ উইকেট তুলে নিয়েছেন টাইগার বোলাররা। অবশেষে ৯ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সামনে ২৬২ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিলো উইন্ডিজ।

বল হাতে ১০ ওভারে ৪৯ রান খরচে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন মাশরাফি। ২টি করে উইকেট পেয়েছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও মোস্তাফিজ। তবে রান খরচে অকৃপণ (৮৪) ছিলেন কাটার মাস্টার। একটি করে উইকেট নিয়েছেন সাকিব ও মিরাজ। রান হাতে দু’জনেই ছিলেন বেশ কৃপণ। সাকিব ১০ ওভারে খরচ করেছেন ৩৩ রান আর মিরাজ সমান ওভারে দিয়েছেন ৩৮ রান।

বাংলাদেশ সময়: ২২৫৪ ঘণ্টা, মে ০৭, ২০১৯
আরএআর/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
পঞ্চম ধাপের উপজেলা ভোটে মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময় মঙ্গলবার
চা পাতা ভর্তি কাভার্ডভ্যান ছিনতাই, বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২
হুয়াওয়ে’কে আর এন্ড্রয়েড সেবা দেবে না গুগল
আন্দোলন থেকে সরে দাঁড়ালো ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা
চুয়াডাঙ্গায় নির্মাণাধীন ভবন থেকে গ্রেফতার ১৩


লক্ষ্মীপুরে ১ হাজার ৪০ টাকায় ধান ক্রয়
ইয়াবা পাচার: এসএ পরিবহনের তিনজন র‍্যাব হেফাজতে
এখন চলছে সুপার স্ট্রাকচার নির্মাণের কাজ 
মাদক মামলায় পুলিশ কনস্টেবলসহ দু’জনের কারাদণ্ড
লামায় পাহাড় থেকে পড়ে কাঠুরিয়ার মৃত্যু