php glass

পাকিস্তানকে হারিয়ে সিরিজ জিতলো অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

উইকেট শিকারের পর অজি বোলারদের উল্লাস, সেইসঙ্গে সিরিজ জয়েরও

walton

পেসার প্যাট কামিন্স আর লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পার দাপুটে বোলিংয়ের কোনো জবাবই খুঁজে পেলেন না পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। ফলে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে ৮০ রান হারিয়ে সিরিজও ঝুলিতে পুরলো অস্ট্রেলিয়া।

আবুধাবিতে বুধবার (২৭ মার্চ) শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৬৬ রান তুলেছিল অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু এই মাঝারি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমেও অজি বোলারদের কাছে রীতিমত খাবি খেয়েছে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। ফলাফল ৪৪.৪ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করে সব উইকেট হারিয়ে স্বাগতিকদের সংগ্রহ মাত্র ১৮৬।

অজিদের ছুড়ে দেওয়া ২৬৭ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৬ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে বসে পাকিস্তান। তিন ব্যাটসম্যানই কামিন্সের শিকার। তবে একপ্রান্ত আগলে ৪৬ রানের ইনিংস খেলে কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া চেষ্টা করেছিলেন পাকিস্তানের ওপেনার ইমাম-উল-হক। কিন্তু ম্যাক্সওয়েলের বলে এলবিডব্লিউ’র শিকার হয়ে তার ইনিংসের অপমৃত্যু ঘটে।

পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপের মিডল অর্ডার কিছুটা লড়াই উপহার দিলেও তাতে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। বরং অধিনায়ক শোয়েব মালিক (৩২), উমর আকমল (৩৬) ও ইমাদ ওয়াসিমের (৪৩) ইনিংসগুলো পাকিস্তানের হতাশা আরও বাড়িয়েছে। কারণ তারা কেউই সেট হয়ে ইনিংস দীর্ঘায়িত করতে সক্ষম হননি। মূলত পাকিস্তানের ইনিংসের লেজ মুড়িয়ে দিয়েছেন জাম্পা। শেষের চার ব্যাটসম্যানই তার শিকার।

বল হাতে সব অজি বোলারই নিয়ন্ত্রিত বোলিং উপহার দিয়েছেন। কিন্তু উইকেট শিকারের দিক থেকে কামিন্স আর জাম্পাই সেরা। ৮ ওভারে ২৪ রান খরচে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে মূল কাজটা সেরে রেখেছিলেন কামিন্স। আর ৯.৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৪৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে বাকি কাজ সারেন জাম্পা।

এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে স্কোর বোর্ডে কোনো রান যোগ না হতেই ওপেনার উসমান খাজার উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। দলীয় ২০ রানের মাথায় বিদায় নেন শন মার্শও (১৪)। কিন্তু সেখান থেকেই দলকে টেনে নিয়ে যান অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ও পিটার হ্যান্ডসকম্ব। দু’জনে গড়েন ৮৪ রানের জুটি।

একপর্যায়ে টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পথে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ফিঞ্চ। কিন্তু পাকিস্তানের লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ’র বলে হারিস সোহেলের হাতে ক্যাচ তুলে নিলে তার ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে ৯০ রানে। ১৩৬ বলের ইনিংসটি ৫ চার ও ১ ছক্কায় সাজানো।

ফিঞ্চের বিদায়ের আগেই অবশ্য বিদায় নেন হ্যান্ডসকম্ব (৪৭), আর মার্কাস স্টয়নিস (১০)। অজিদের ইনিংসের শেষটা গ্ল্যান ম্যাক্সওয়েলময়। দলীয় ২৪৯ রানে দুর্ভাগ্যজনক রান আউটের শিকার হওয়ার আগে ৪৪ বলে ৭১ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলেন ম্যাক্সওয়েল, যা ৮টি চার ও ১ ছক্কায় সাজানো। শেষে অ্যালেক্স ক্যারি’র অপরাজিত ২৫ রানের সুবাদে ২৬৬ রান তুলতে সক্ষম হয় অজিরা।

পাকিস্তানের বোলারদের মধ্যে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন উসমান শেনওয়ারি, জুনায়েদ খান, ইয়াসির শাহ, ইমাদ ওয়াসিম ও হারিস সোহেল।

বল হাতে পাকিস্তানের রানের চাকায় বাধ দেওয়ার পাশাপাশি ৩টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন প্যাট কামিন্স।

এই জয়ে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া।

বাংলাদেশ সময়: ০১৩৬ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০১৯
এমএইচএম/জেডএস

ধর্ষণ মামলায় অব্যাহতি পেলেন রোনালদো
রাতে শেষ হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা, সাগরে যেতে প্রস্তুত জেলেরা
২৯ জুলাই থেকে রেলের আগাম টিকিট, ফিরতি ৫ আগস্ট
মেয়াদোত্তীর্ণ ফিটনেসবিহীন গাড়ি ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩২০
সীমান্ত থেকে দু’বার রাশিয়ান জেট তাড়ালো দক্ষিণ কোরিয়া 


সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন
ঢাবিতে অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন
নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে যাত্রার প্রস্তুতি জেলেদের
অর্থের বিচারে রিয়াল-বার্সার পেছনে পড়লো ম্যানইউ
বরিশালে পৃথক ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু