php glass

‘মানকড়’ বিতর্ক: অশ্বিনের পক্ষেই এমসিসি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অশ্বিনের সেই বিতর্কিত 'মনকড় আউট'-ছবি: সংগৃহীত

walton

নিরুত্তাপ আইপিএলে রীতিমত ঝড় তুললেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দলপতি রবীচন্দ্রন অশ্বিন। আইপিএলে রাজস্তান রয়্যালসের ব্যাটসম্যান জস বাটলারকে বিতর্কিত ‘মানকড়’ রান-আউটের শিকার বানিয়েছিলেন এই স্পিনার। এই নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে ভাগ হয়ে গেছে পুরো ক্রিকেটবিশ্ব। এমনকি অবশেষে মুখ খুলতে বাধ্য হলো ক্রিকেটের আইনপ্রণেতা মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)।

রান-আউটের ওই ধরনকে বলা হয় ‘মানকড় আউট’। মূলত সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ভিনু মানকড়ের নাম অনুসারে এই আউটের নামকরণ করা হয়েছে। যদিও এই আউটকে আইনসিদ্ধ বলা হয় তবু তা ক্রিকেটীয় চেতনার পরিপন্থী বলেই মনে করা হয়। বরং প্রথমবার ব্যাটসম্যানকে সাবধান করে দেওয়াই এক্ষেত্রে স্বাভাবিক আচরণ। কিন্তু অশ্বিন ওসবের তোয়াক্কা না করে সোজা আউটের আবেদন করেন আর থার্ড আম্পায়ার আউট দিয়েও দেন।

এমতাবস্থায় বিতর্ক থামাতে আইনি ব্যাখ্যা নিয়ে হাজির এমসিসি। কিন্তু ৪১.১৬ ধারা অনুযায়ী যে ব্যাখ্যা তারা দাঁড় করিয়েছে তাতে বিতর্ক কমা তো দূরে থাকুক, উল্টো আরও বেড়েছে। এমসিসি’র বক্তব্য হচ্ছে-

‘আইনটি জরুরী। এটা ছাড়া নন-স্ট্রাইকিং প্রান্তের ব্যাটসম্যান বাড়তি সুবিধা নিতে পারে। পিচে অনেকটা দূরে এগিয়ে থাকতে পারবে। বিষয়টা হলো, নন-স্ট্রাইকার কখন নিশ্চিন্তে ক্রিজ ছাড়তে পারবে এবং বোলার কীভাবে বিতর্ক ছড়ানো ছাড়াই তাকে আউট করতে পারবে।'

‘পরিস্কার করে বলতে গেলে, নন-স্ট্রাইকারকে কোনো সতর্কতা জানানোর আইন নেই এবং নন-স্ট্রাইকার যদি আগেভাগে ক্রিজ ছেড়ে বাড়তি সুবিধা নিতে চায় তাহলে তাকে আউট করা ক্রিকেটীয় চেতনার পরিপন্থী নয়।'

'অনেকেই মনে করছে বাটলারকে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিতেই বল ছুড়তে দেরি করেছেন অশ্বিন আর বাটলার ক্রিজে ছিলেন যখন তিনি ভেবেছিলেন বল ছোড়া হয়ে গেছে। যদি ইচ্ছাকৃত ভাবে দেরি হয়, তাহলে এটা ঠিক হয়নি এবং এটা ক্রিকেটের চেতনার পরিপন্থী। অশ্বিন কিন্তু উল্টোটাই দাবি করেছে।'

'টেলিভিশন আম্পায়ারকে আইন অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নিতে হতো এবং তিনি সেটাই করেছেন। তবে দুই দলকেই এটা নিশ্চিত করতে হবে যেন আইন ও চেতনা দুইয়েরই সম্মেলন ঘটানো হয়। নন-স্ট্রাইকারকেও এক্ষেত্রে সাবধান হতে হবে যেন আগেই ক্রিজ ছেড়ে সে বাড়তি সুবিধা না নেয় এবং বোলারকে ৪১.১৬ ধারা অনুযায়ী রান আউট করতে হবে।' 

ক্রিকেটীয় আইন অনুযায়ী জস বাটলার যে ‘আউট’ এটা নিয়ে সন্দেহ খুব কমই আছে। কিন্তু বিতর্ক হচ্ছে ক্রিকেটীয় চেতনা নিয়ে। বিশেষ করে অশ্বিন তার স্বাভাবিক অ্যাকশনে বল না করায় প্রশ্ন উঠছে। অশ্বিন বল ছোড়ার ভঙ্গি করলেও অপেক্ষায় ছিলেন কখন বাটলার ক্রিজ পার করবেন। এরপর স্ট্যাম্প ভেঙেছেন। এটা ক্রিকেটীয় দিক থেকে দেখলে একেবারেই চেতনার পরিপন্থী। ক্রিকেটের মতো ভদ্রলোকের খেলার সঙ্গে এটা ঠিক যায় কি না এটাই সন্দেহ অনেকের। 

এমসিসি একটা আইনি ব্যাখ্যা দিলেও এ নিয়ে বিতর্কের শেষ কী হলো?

বাংলাদেশ সময়: ১৫২২ ঘন্টা, মার্চ ২৭, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট আইপিএল
গুজবে সরকারবিরোধী পক্ষের যোগসূত্র পেয়েছে পুলিশ
সামাজিক নিরাপত্তায় ১৪ কোটি ইউরো দেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন
সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি
১০০ গান করবেন তারা
ডাক বিভাগে ৬৫ পদে নিয়োগ


গুজব ঠেকাতে সরকার কঠোর: কাদের
নিজেকে নয় উইলিয়ামসনকে সেরা মানছেন স্টোকস
সাগ‌রে ধরা পড়‌ছে ই‌লিশ, দেখা মিলছে বাজারেও
সড়ক দখল করে ভ্রাম্যমাণ বাজার, মানুষের ভোগান্তি
আমরা বিশুদ্ধ পানি চাই: হাইকোর্ট