তৌহিদ-মেহেদির ব্যাটে জয়ের দেখা পেলো গাজী গ্রুপ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন গাজী গ্রুপের তৌহিদ-ছবি: বাংলানিউজ

শুরুতে ব্যাট করে ২৫০ রানের টার্গেট ছুড়ে দিয়েছিল বিকেএসপি। জবাবে তৌহিদ তারেক ও মেহেদি হাসানের সত্তরোর্ধ্ব ইনিংসে ভর করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স।

php glass

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) ফতুল্লাহ’র খান সাহেব উসমান আলী স্টেডিয়ামে গড়ায় ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ১২তম ম্যাচটি। শুরুতে ব্যাট করে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৪৯ রান সংগ্রহ করে বিকেএসপি। জবাবে ৪ উইকেট ও ৪ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় গাজী গ্রুপ।

২৫০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ২৪ রান তুলতেই ২ উইকেট হারিয়ে বসেছিল গাজী গ্রুপ। দলের এমন অবস্থায় ব্যাট হাতে দাঁড়িয়ে যান মেহেদি হাসান। তার ব্যাট থেকে আসে ৭০ রান। ৭৩ বলের এই ইনিংসটি ৯টি বাউন্ডারি ও ১টি ছক্কায় সাজানো। মাঝে দ্রুত কয়েকটি উইকেট পতনের পর ফের দলের হাল ধরেন তোহিদ। অপরাজিত ৭৬ রানের ইনিংস খেলে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। ৯৩ বলের ইনিংসটি খেলতে ৩টি করে চার ও ছক্কা হাঁকান তিনি।

বিকেএসপির হাসান মুরাদ ৮ ওভারে ৩২ রান খরচে তুলে নেন ৩ উইকেট। ২ উইকেট ঝুলিতে পুরেন মুকিদুল ইসলাম। বাকি উইকেটটি যায় সুমন খানের দখলে।

এর আগে ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়ের অনবদ্য ৮৫ রান ও আমিনুল ইসলামের অপরাজিত ৬৩ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৪৯ রান সংগ্রহ করে বিকেএসপি। এছাড়া রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়ার আগে ওপেনার রাতুল খানের ব্যাট থেকে ৩৪ রান (৮৬ বলে) আর ৪৪ রান করেন শামিম হোসেন।

গাজী গ্রুপের আবু হায়দার ও কামরুল ইসলাম রাব্বির ঝুলিতে পুরেন ২টি করে উইকেট আর বাকি ১ উইকেট যায় নাসুম আহমেদের দখলে।

ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন গাজী গ্রুপের তোহিদ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৭ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই চলছে জাটকাসহ বিভিন্ন মাছ নিধন
রোনালদোর ফেরার দিনে পর্তুগালের ড্র
ভাষাসৈনিক নিখিল সেনের প্রয়াণে নাগরিক শোকসভা
মেসির প্রত্যাবর্তনের দিনে আর্জেন্টিনার পরাজয়
ইভিএমের উপজেলা ভোটে সেনা থাকছে


ফতুল্লায় যুবলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫
রাজশাহী বিভাগের ‘সেরা ১০ ইস্পাহানি মির্জাপুর বাংলাবিদ’
গ্যাস লাইন লিকেজ থেকে শাবিপ্রবিতে অগ্নিকাণ্ড
হ্যান্ডরিক্স-ডুসেনের ব্যাটে দক্ষিণ আফ্রিকার সিরিজ জয়
‘সিভিল ইঞ্জিনিয়াররা দেশের অবকাঠামো উন্নয়নের মূল কারিগর’