php glass

বাইসাইকেল কিকের গোলে আবারও শীর্ষে বসুন্ধরা কিংস

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বসুন্ধরা কিংস। ফাইল ছবি: শোয়েব মিথুন

walton

নীলফামারী: ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড মার্কোস ডি কস্টার বাইসাইকেল কিকের গোলে আবারো পয়েন্ট টেবিলের র্শীষে উঠে গেল বসুন্ধরা কিংস। মঙ্গলবার (৫ মার্চ) নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়ামে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেডকে ১-০ গোলে হারিয়ে আবাহনী ঢাকাকে হটিয়ে আবারো শীর্ষস্থান উঠে এলো কিংসরা। 

আবাহনী ১০ ম্যাচে আট জয় ও দুই পরাজয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে নেমে গেছে দুই নম্বরে। আর নয় ম্যাচে আট জয় ও এক ড্রয়ে ২৫ পয়েন্টে  শীর্ষে বসুন্ধরা কিংস।  

খেলার প্রথমার্ধে কিংস আক্রমান্তক খেললেও গোলের কোন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। এমনকি প্রতিপক্ষের ডি-বক্সেও বল ভেড়াতে যথেষ্ট কষ্ট হয়েছে তাদের। কিন্তু শেখ রাসেল ডিফেন্সিভ খেলেও কয়েকটি আক্রমন করে। চার ও সাত মিনিটে শেখ রাসেলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড রাফায়েল ওডিইনের দু’টি হেড বসুন্ধরার গোলরক্ষক জিকো তালুবন্দি করেন। তবে কোনো দলই গোল না পাওয়ায় প্রথমার্ধ গোল শূন্য শেষ হয়।

দ্বিতীয়ার্ধে কোচ অস্কার ব্রোজেন এ কে রানাকে বসিয়ে অনুগত ইব্রাহিমকে মাঠে নামান। আর ইব্রাহিমই তুরুপের তাস হয়ে ৫৭ মিনিটে বল বাড়িয়ে দেয় মর্কোস কোস্টার বুকে। কোস্টা বল রিসিভ করে ফাষ্ট বার হতে গোল করা সম্ভব হবে না ভেবে দেয় এক অসাধারন বাইসাইকেল কিক। এতেই খেলোয়ার ও দর্শকদের চোখ ছানাবড়া হয়ে উঠে। বল চলে যায় শেখ রাসেলের জালে। 

স্তব্ধ গ্যালারি মূহূর্তেই যেনো উৎসবে পরিণত হয়। এরপর শেখ রাসেল শুরু করে আক্রমাত্বক খেলা।  একের পর এক আক্রমন করেও শেষ পর্যন্ত কোন লাভ হয়নি। তবে খেলার শেষের প্রায় ১০ মিনিট বল বসুন্ধরার ডি-বক্স ও আশপাশ ঘোরাফেরা করে। এতেই স্বাগতিক দর্শকদের হৃদকম্পন উঠানামা হতে খাকে। তবে শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলেই খেলা শেষ হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৮ ঘণ্টা, মার্চ ০৫, ২০১৯
এমএ/এমকেএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বসুন্ধরা ফুটবল
ট্রাক্টরই এখন কৃষকের ‘গলার কাঁটা’
বাংলাদেশকে অনেক ভালোবাসি: সালমান খান
পঞ্চগড়ে শীতের তীব্রতা চরমে, দুর্ভোগে নিম্ন আয়ের মানুষ
বেগম রোকেয়ার জন্ম-মৃত্যু
ইতিহাসের এই দিনে

বেগম রোকেয়ার জন্ম-মৃত্যু

রাজাপুরে বসতঘরে অগ্নিকাণ্ড, ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি


ফুল নিয়ে ফজলে করিমের বাসায় সালাম-আতাউর
ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১
ববিতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হামলা, আহত ৪
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু: ক্যাটরিনা
ভারতের পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে ‘কোর ক্যাচার’ স্থাপন