ঢাকা, বুধবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

ক্রিকেট

সৌম্যর সফলতার দিনে ২১৭ রানে এগিয়ে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৮ ঘণ্টা, মার্চ ১, ২০১৯
সৌম্যর সফলতার দিনে ২১৭ রানে এগিয়ে নিউজিল্যান্ড ছবি: সংগৃহীত

হ্যামিল্টন টেস্টের প্রথম ইনিংসের উদ্বোধনী জুটি বাংলাদেশের বিপক্ষে গড়ে রেকর্ড। সেই রেকর্ড জুটি ভাঙতে সফল হন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এরপর পার্টটাইমার সৌম্য সরকারের পরপর দুটি আঘাত। সবশেষ মেহেদি হাসান মিরাজের ঘূর্ণিতে ৪ উইকেট হারিয়ে ২১৭ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় দিন শেষ করে স্বাগতিকরা।

প্রথম দিন শেষে ৮৬ রানে অপরাজিত থাকে নিউজিল্যান্ডের উদ্বোধনী জুটি। দ্বিতীয় দিন নেমে সেই রান টেনে নিয়ে যেতে থাকার পথে হয়ে যায় এক রেকর্ডও।

বাংলাদেশের বিপক্ষে কোনো দেশের উদ্বোধনী জুটির সর্বোচ্চ রান করার রেকর্ড এটিই। পেছনে পড়ে যায় ২০০১ সালে ওয়েলিংটনে ম্যাট হর্ন ও মার্ক রিচার্ডসনের ১০৪ রানের জুটি।  
 
জিত রাভাল ও টম লাথামের ২৫৫ রানের এই জুটি অবশেষে ভাঙেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। রেকর্ডের এই উদ্বোধনী জুটি ভেঙে ব্যক্তিগত ১৩২ রানে মাহমুদউল্লাহর বলে ফেরেন জিত রাভাল। বাংলাদেশের বোলারদের ধারহীন বোলিং সামলে স্বাচ্ছ্যন্দেই খেলেন এই ব্যাটসম্যান। ক্যারিয়ারের প্রথম এই টেস্ট সেঞ্চুরিতে তিনি খেলেন ১৯টি চার ও একটি ছক্কার মার।

অপর প্রান্তে থাকা টম লাথামও পূর্ণ করেন তার নবম টেস্ট সেঞ্চুরি। তবে ১৬১ রানে সৌম্যর বলে পরাস্থ হয়ে ফেরেন এই ওপেনার। মাত্র ৪ রানে সৌম্যর বলেই ফেরেন রস টেইলরও।  

হেনরি নিকোলস টেস্ট ক্যারিয়ারের নবম হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করার পরপরই মেহেদি মিরাজের বলে ফেরেন (৫৬)।  

শেষ পর্যন্ত ৪৫১ রানে দিন শেষ করে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড।

হ্যামিল্টন টেস্টের প্রথম দিন (২৮ ফেব্রুয়ারি) তামিম ইকবালের ১২৬ রানের অসাধারণ ইনিংসের পরও মাত্র ২৩৪ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস।  

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৭ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১৯
এমকেএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa