ম্যানইউ কিনছেন না সৌদি যুবরাজ!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ম্যানইউ কিনছেন না সৌদি যুবরাজ-ছবি: সংগৃহীত

বর্তমান মালিক যুক্তরাষ্ট্রের গ্ল্যাজার পরিবার রাজি হলে আগামী মৌসুমেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নতুন মালিক হতে পারেন সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান। এমন খবর প্রকাশ করেছিল ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম দ্য সান। কিন্তু এমন সম্ভাবনার কথা সরাসরি অস্বীকার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

php glass

২০১৭ সাল থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে ‘কৌশলগত সম্পর্ক’ বজায় রেখেছে সৌদি আরবের ক্রীড়া কর্তৃপক্ষ। এরই সূত্র ধরে একাধিক সংবাদ মধ্যমে খবর প্রকাশিত হয় যে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের পথ ধরে ইংলিশ ফুটবলে অর্থায়ন করতে আগ্রহী সৌদি আরব। আর এক্ষেত্রে তাদের প্রথম পছন্দ ম্যানইউ। দ্য সান দাবি করেছিল, ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড কিনতে আগ্রহী সৌদি আরবের প্রিন্স ও উপ-প্রধানমন্ত্রী মুহম্মদ বিন সলমন। তার জন্য তিনি প্রায় ৩৮০ কোটি পাউন্ড খরচ করতেও রাজি।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বর্তমান মালিক আমেরিকার গ্ল্যাজার পরিবার। সৌদি যুবরাজ যদি ৩৮০ কোটি পাউন্ডে ক্লাব কিনে নেন, তাহলে প্রায় ২২০ কোটি পাউন্ড লাভ হবে বর্তমান মালিকপক্ষের। তাছাড়া ১৪ বছর আগে ৭৯ কোটি পাউন্ডে ম্যানইউ’র মালিকানা নিলেও দেনার দায়ে তাদের অবস্থা এখন শোচনীয়। তাই ক্লাব বিক্রির আলোচনা স্বাভাবিক। যদিও ব্র্যান্ড হিসেবে বিশ্বের তৃতীয় সেরা ক্লাব ম্যানইউ। রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার পরেই তাদের বার্ষিক আয় সবচেয়ে বেশি (৬৬৬ মিলিয়ন ইউরো)।

৩৮০ কোটি পাউন্ড সৌদি রাজ পরিবারের জন্য অতি মামুলি ব্যাপার, যেখানে তাদের মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৮৫ হাজার কোটি পাউন্ড। তাই চাইলেই ইংলিশ ফুটবলের সবচেয়ে সফল ক্লাবটিকে কিনে নিতে তাদের অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। তাছাড়া গত অক্টোবরেই একবার ইউনাইটেড কিনে নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন সৌদি যুবরাজ। দুইয়ে দুইয়ে তাই চার বানিয়ে ফেলেছিল অনেকেই।

সৌদি আরবের সঙ্গে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ব্যবসায়িক সম্পর্ক পুরনো। ক্লাবটির অফিসিয়াল সম্প্রচারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সৌদি টেলিকমের দায়িত্বে। আর সৌদি আরবে ফুটবলের উন্নয়নে দেশটির ক্রীড়া কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমঝোতা চুক্তিও করেছে দুই পক্ষ।

সৌদি যুবরাজের বর্তমান ভাবমূর্তি মোটেই স্বস্তিদায়ক নয়। বিশেষ করে গত বছর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটে ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাসোগির হত্যাকাণ্ড নিয়ে বেশ চাপে আছেন তিনি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কেনার উদ্দেশ্য হয়তো হারিয়ে ফেলা ভাবমূর্তি ফেরানোর চেষ্টা। কিন্তু সৌদ্বি আরবের তথ্যমন্ত্রী তুর্কি আল-শাবানাহ এমন সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দিয়েছেন।

তবে দুই পক্ষের মধ্যে একটি বৈঠকের কথা স্বীকার করেছেন আল-শাবানাহ। সেখানে স্পন্সরশীপ নিয়ে আলোচনা হলেও কোনো চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

সৌদি আরবের ক্রীড়া ক্ষেত্রে অনেক সংস্কার কাজ চালাচ্ছেন বিন সালমান। এরমধ্যে দেশে বিশ্বের জনপ্রিয় ক্রীড়া আসর বসানোর চেষ্টা অন্যতম। এরই অংশ হিসেবে সৌদি আরবের মাটিতে মোটর স্পোর্টস এবং বক্সিংয়ের আসর বসানো হয়। এছাড়া গত অক্টোবরে দেশটির রাজধানী রিয়াদে অনুষ্ঠিত হয় ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মধ্যকার আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচও।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৯ 
এমএইচএম/এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফুটবল
সূচকের মিশ্র প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন চলছে
সিংড়ায় ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী নিহত
বিশ্বকাপের পর প্রথমবার জাতীয় দলের সঙ্গে মেসি
ন্যাশনাল হাউজিং’র ২০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা
‘নিরাপদ সড়ক চাই’ দাবিতে সোচ্চার আবরারও নিথর হলেন সড়কে


বিআইএম ও বিজ্ঞান জাদুঘরে নতুন মহাপরিচালক
এসি বিস্ফোরণে স্ত্রীসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা দগ্ধ
ব্রেইন আরও অ্যাক্টিভ রাখতে 
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা নিহত
নেদারল্যান্ডসে ট্রামে গুলি: নিরাপদে বাংলাদেশিরা