অজিদের ভালো শুরুর পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অজিদের ৬ উইকেট তুলে নেওয়ার স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ভারত-ছবি: সংগৃহীত

প্রথম উইকেট জুটিতেই ১১২ রান তুলে দিনটা নিজেদের করে নেওয়ার পথেই ছিল অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু বাকি সময়ে স্বাগতিকদের ৬ উইকেট তুলে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বস্তি নিয়ে দিন শেষ করেছে ভারত।

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনে শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) পার্থ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে নিজেদের প্রথম ইনিংসে অ্যারন ফিঞ্চ, মার্কাস হ্যারিস ও ট্রাভিস হেডের হাফ-সেঞ্চুরির ইনিংসে ভর করে দিন শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৭৭ রান তুলেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতের হয়ে ২টি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন হনুমা বিহারি ও ইশান্ত শর্মা।

টসে জিততে চেয়েছিলেন ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক দুজনেই। কিন্তু ভাগ্য সহায় হয় অজি অধিনায়ক টিম পেইনের। পার্থের পিচ পেসারদের স্বর্গ হলেও টসে জিতেই ব্যাটিং বেছে নেয় অজিরা। আর এই পেস স্বর্গের ভাবনা থেকেই নিজেদের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে চতুর্থবারের মতো কোনো স্পেশালিষ্ট স্পিনার ছাড়াই দল সাজায় ভারত।

দিনের শুরুটা ভালোভাবেই করেন দুই অজি ওপেনার ফিঞ্চ ও হ্যারিস। দুজনে মিলে সকালের সেশন কাটিয়ে দেন নির্বিঘ্নে। দুজনেই ফিফটি ছুঁইছুঁই অবস্থায় লাঞ্চে যান। লাঞ্চ থেকে ফিরেই দুইজনে মিলে গত ৪৬ ইনিংসের মধ্যে প্রথমবারের মতো অজিদের হয়ে ওপেনিং জুটিতে শতরান করেন। পরে দুজনেই ফিফটির দেখাও পান।

ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ যখন ভারতের হাত থেকে ছুটে যাচ্ছে, ঠিক এমন সময় অজি শিবিরে আঘাত হানেন ভারতীয় পেসার জাসপ্রিত বুমরাহ। তার বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন ১০৫ বলে ৫০ করা ফিঞ্চ। এরপর উমেশ যাদবের শিকার হয়ে ফেরেন উসমান খাজা।

ভারতের হয়ে তৃতীয় উইকেট শিকার করেন বিহারি। পার্টটাইম স্পিনার ঠিক তার অধিনায়কের মন মতো বোলিং উপহার দিয়ে অজি ওপেনার হ্যারিসকে (৭০) ফার্স্ট স্লিপে দাঁড়ানো আজিঙ্কা রাহানের ক্যাচে পরিণত করেন। চা বিরতির আগে কয়েকটা বাউন্ডারি হাঁকিয়ে আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর চেষ্টা করেন অজি ব্যাটসম্যান শন মার্শ। কিন্তু সেশনটা ভারতের পক্ষেই যায়।

বিরতির পর ইশান্ত শর্মার লেন্থ ডেলিভারিতে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির এক হাতে নেওয়া এক অসাধারণ ক্যাচে পরিণত হয়ে ফেরেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব। তবে এরপর ফের ঘুরে দাঁড়ায় স্বাগতিকরা। মার্শ ও ট্রাভিস হেড পঞ্চম উইকেট জুটিতে ৮৪ রান যোগ করেন। তাদের ব্যাটে চড়েই ২০০ রানের গণ্ডি পার হয় অজিরা।

দলীয় ২৩২ রানে পঞ্চম উইকেট হারায় অজিরা। ফিফটি থেকে মাত্র ৫ রান দূরে থাকা মার্শ ভারতীয় স্পিনার বিহারির বলে রাহানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন। দিনের শেষ উইকেটটি তুলে নেন ইশান্ত। তার বলে জোরালো শট খেলতে গিয়ে থার্ডম্যান অঞ্চলে দাঁড়ানো মোহাম্মদ শামির হাতে ক্যাচ তুলে দেন দারুণ খেলতে থাকা হেড (৫৮)।

প্রথম দিনশেষে দুই দলই সমান অবস্থানে আছে একথা বলাই যায়। কিন্তু পার্থের পিচ যে নাটক জমিয়ে রেখেছে তাতে যে রান এসেছেন তাতেই অজিদের খুশি থাকার কথা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
আগুনের ভয়াবহতা কমেছে, স্বজনদের খুঁজছেন অনেকে
বরিশালে বিনম্র শ্রদ্ধায় ভাষাশহীদদের স্মরণ
শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস
প্রথম প্রহরে ফুলেল শ্রদ্ধায় ভাষাশহীদদের স্মরণ
একুশের প্রথম প্রহরে ভাষাশহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধা


আইএস সম্পৃক্ত শামীমা বাংলাদেশের নাগরিক নয়
ফেনী শহীদ মিনারে জনতার স্রোত
চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ ১৬
গৌরব, প্রেরণা আর অহংকারের অমর একুশ
ভাষাশহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে খুলনায় মানুষের ঢল