‘কোহলির মতো উদযাপন করলে অস্ট্রেলিয়ানরা হতো সবচেয়ে বাজে’

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কোহলির উদযাপনে খুশি হননি অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার-ছবি: সংগৃহীত

মাঠের ভেতর বিরাট কোহলির উগ্রতার বিষয়টি সবারই জানা। বিশেষ করে তার দল ভারতের ফিল্ডিং অবস্থায় প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের ওপর সবসময় তেড়ে যান তিনি। তার এমন উদযাপন এবারের অস্ট্রেলিয়া সফরেও দেখা গেল। যেখানে স্বাগতিক ব্যাটসম্যান অ্যারন ফিঞ্চ প্রথম ইনিংসে আউট হলে মেতে ওঠেন কোহলি।

তবে কোহলির এমন উদযাপনে খুশি হওয়ার কথা নয় অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারের। তিনি খুশি না হয়ে বলেই ফেললেন, কোহলির মতো উদযাপন যদি অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররা করতো তবে তাদের বিশ্বের সবচেয়ে বাজে বলে বিবেচনা করা হতো।

এছাড়া ল্যাঙ্গার শচীন টেন্ডুলকারের টুইটের জবাবও দিয়েছেন। যেখানে লিটল মাস্টার প্রথম ইনিংসে অজি ব্যাটসম্যানদের ধীর গতির ব্যাটিংয়ের সমালোচনা করেছেন।

ফক্স স্পোর্টসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ল্যাঙ্গার বলেন, ‘খেলায় এমন আবেগ তুমি পছন্দ কর, নাকি কর না? মনে রেখ, আমি মনে করি আমরা যদি এমনটা করতাম, তবে আমরা হতাম বিশ্বের সবচেয়ে বাজে উদাহারণ। এখানে ছোট্ট একটা পার্থক্য আছে, তাই না? এটাই হচ্ছে সত্য। তবে এমন আবেগ আমি ভালোবাসি, তবে ওই যে বললাম, এখানে ছোট্ট একটা পার্থক্য আছে, আছে না?’

এদিকে দ্বিতীয় দিন শেষে ভারতের ২৫০ রানের জবাবে অজিরা ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান করে। পরে এক টুইটে শচীন জানান, এমন ডিফেন্সিভ ক্রিকেটে তিনি অস্ট্রেলিয়ানদের আগে কখনো দেখেননি।

এর জবাবে ল্যাঙ্গার বলেন, ‘আমি শচীনের টুইট দেখেছি, সে বলেছে অস্ট্রেলিয়ানদের এমন রক্ষণাত্বক আগে কখনো দেখেনি। সে তার সময় অ্যালান বর্ডার অথবা ডেভিড বুনদের সঙ্গে খেলেছে, যারা কিনা ৩০০ বা ৪০০ টেস্ট খেলেছিল। তবে আমাদের দলে এখন সত্যি বলতে বাচ্চার খেলছে।’

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৯ ঘণ্টা, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৮
এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
কিশোরগঞ্জে ১৭ ভাষা সৈনিককে সম্মাননা 
মাতৃভাষায় বই থাকলেও বঞ্চিত শ্রীমঙ্গলের ত্রিপুরা শিশুরা
বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণ করায় ৫৬৫ যাত্রীর জরিমানা
নেত্রকোণায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার
কথার ঝুড়ি নিয়ে বাড়ি ফেরা


চকবাজার ট্র্যাজেডিতে ভবনগুলো ‘ব্যবহার অনুপযোগী’
৭ তলার ছাদেও বিস্ফোরকের চিহ্ন!
ভিয়েতনাম মিশনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন 
ময়মনসিংহে ডিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা নিহত
চকবাজারে এখনও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের সতর্ক অবস্থান