php glass

আসুন, নিজের জায়গা থেকে দেশের জন্য কিছু করি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মাশরাফি-ছবি: শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আরও একটি স্বপ্নভঙ্গ। আরও একটি শিরোপার কাছে গিয়েও ছুঁতে না পারা। তৃতীয়বারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছেও হলো না শিরোপা জয়। ভারতের বিপক্ষে ৩ উইকেটে হেরে যেতে হলো। পুরো টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রমাণ করেও শিরোপার হতাশা নিয়েই দেশে ফিরেছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল।

কিন্তু এতে ‘হতাশা’র কিছু দেখছেন না টাইগার অধিনায়ক। শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে দেশে ফেরার পরই সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলে দেন, ‘এটা নিয়ে একেবারে হতাশ নই। অবশ্য হতাশ হবো যদি সামনে এই স্পিরিটটা দেখাতে না পারি। যে মানসিকতা নিয়ে ছেলেরা খেলেছে। যদি সামনে এই মানসিকতা, এফোর্টটা না দেখতে পাই।’

শনিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভ্যারিফাইড পেজে মাশরাফি লেখেন, ‘নাহ! এবারও হলো না! আমরা যখন মাঠে খেলি তখন আমরা শতভাগ দিয়ে চেষ্টা করি দেশকে যেন জিতাতে পারি। তখন মুশফিক পাজরের ব্যথা নিয়ে ব্যাটিং করে টানা তিন ঘণ্টা, সাকিব হাতে সেলাই নিয়ে খেলে, তামিম ভাঙ্গা হাত নিয়ে নেমে পড়ে ব্যাটিং করতে একহাতে।’

টাইগার দলপতি সমর্থকদের দেশের জন্য কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করে বলেন, ‘আমরা ক্রিকেটের ছোট পরিসরে একটা জয় দিয়ে যদি ১৬ কোটি মানুষের মুখে হাসি দিতে পারি, তাহলে একবার চিন্তা করে দেখেন তো যদি সবাই মিলে নিজের স্থান থেকে দেশের জন্য কিছু করি তাহলে দেশটার কি আমূল পরিবর্তন করতে পারি।’ 

‘শুধু দরকার একটু দায়িত্ববোধ ও চেষ্টার। আসুন না আমরা সবাই মিলে একবার চেষ্টা করেই দেখি এই লাল সবুজের পতাকাটার জন্য। আমরা প্রতিদিনই জেতার চেষ্টা করি আজকে না হয় হারলাম, নিশ্চয়ই কালকে আবার জিতবো। দেখা হবে আবার।’

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮
এমকেএম/এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট মাশরাফি বিন মর্তুজা
সৌমনা দাশগুপ্ত’র একগুচ্ছ কবিতা
ধামরাইয়ে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
সরকার আবার আগুন নিয়ে খেলা শুরু করেছে: রিজভী
জনসনের জয়ে ট্রাম্পের নজর বাণিজ্যে!
একাত্তরে চট্টগ্রামজুড়ে গণহত্যা


ইয়োগা অনুশীলনের আগের সতর্কতা
চলে গেলেন অভিনেতা-চিত্রনাট্যকার গোলাপুডি মারুতি রাও
পাটকল শ্রমিকের জানাজা সম্পন্ন, উত্তপ্ত খুলনার শিল্পাঞ্চল
আসামির সেলফিকাণ্ড, ঘটনা তদন্তে ডিবি
৪০ বছরের অভিজ্ঞতায় এত ভয়াবহ বার্ন দেখিনি: সামন্ত লাল