ব্যথা বইতে চাইছেন না সাকিব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সাকিব আল হাসান-ছবি: শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: চলতি বছরের জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ফিল্ডিংয়ের সময় বাঁহাতের কনিষ্ঠায় পাওয়া ব্যথা আর বোধ হয় সইতে পারছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তাই আর বইতেও চাইছেন না। যতদ্রুত সম্ভব অস্ত্রোপচার করে ব্যথামুক্ত হতে চাইছেন। তীব্রতা হয়তো বেশিই। ফলে সম্ভব হলে এশিয়া কাপের আগেই চাইছেন ছুরি-কাঁচির নিচে যেতে।

‘এটা তো সবাই আমরা জানি এখন যে সার্জারি করতে হবে। ওটা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে কোথায় করলে ভাল হয়, কবে করলে ভাল হয়। তবে আমি মনে করি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করে ফেলা ভাল।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে দেশে ফিরে হযরত শাহজহালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে তিনি তেমনই ইঙ্গিত দিলেন।

সাকিব আল হাসান-ছবি: শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

তবে সাকিব চাইলেই ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া এশিয়া কাপের আগেই অস্ত্রোপচার করাতে পারবেন কী না সেটা নিয়ে যথেষ্টই সন্দেহ আছে। কেননা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মেডিক্যাল বিভাগে দেয়া তথ্যমতে, তিনি এই মুহূর্তে তার কনিষ্ঠায় অস্ত্রোপচার করালে নুন্যতম ২ মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে। ফলে অবশ্যম্ভাবী ভাবেই এশিয়া কাপ তিনি খেলতে পারছেন না।

সেটা বোধ হয় তিনি জানেন না। তাই বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের বললেন তিনি পুরো ফিট না হয়ে এশিয়া কাপে খেলতে চান না, ‘আমি তো তাই মনে করি হওয়া উচিৎ কারণ চাই না যে ফুল ফিট না থেকে খেলতে। কাজেই সেভাবে যদি চিন্তা করি এশিয়া কাপের আগে হবে এটাই নরমাল।’ছবি: শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমআবার তার মতো ‘কি’ প্লেয়ারকে বাদ দিয়ে টাইগারদের এশিয়া কাপে পাঠাতে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট মনে হয় না সম্মত হবেন। আবার হতেও পারেন। তবে কি হবে না হবে সেই বিতর্কে এখনই না গিয়ে বিষয়টি বোর্ড, সাকিব ও বিসিবি মেডিক্যাল বিভাগের আসন্ন সভার দিকে তাকিয়ে থাকাই ভালো।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত ত্রি‌দেশীয় সিরিজের ফাইনালে ফিল্ডিংয়ের সময় বাঁহাতের কনিষ্ঠ আঙ্গুলে ব্যথা পান সাকিব। পরে ফেব্রুয়ারিতে নিজেদের মাঠে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে টেস্ট সিরিজের পর মার্চে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত নিদাহাস ট্রফির প্রথম তিন ম্যাচেও খেলতে পারেননি সাকিব। লুকিয়ে থাকা ব্যথা নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে টেস্ট ও ওয়ানডে খেললেও তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে নেমেছিলেন ব্যথা প্রশমনকারী ইনজেকশন নিয়ে।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৯ ঘণ্টা, ০৯ আগস্ট, ২০১৮ 
এইচএল/এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
আবারও চিটাগংকে জয়ের বন্দরে পৌঁছালেন ফ্রাইলিঙ্ক
ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ
বন্ধ রয়েছে জয়পুরহাট জেলা হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স
কারাবন্দি মায়ের শিশুরা পেলো চকলেট!
মাইজভাণ্ডারে ওরশ শুরু, লাখো ভক্তের ঢল
আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় ১২৬ নিরাপত্তারক্ষী নিহত
চিত্রপরিচালকদের নির্বাচনে ভিন্নধর্মী প্রচারণা
ইস্ট ডেল্টায় যোগ দিলেন ড. আমিনুল
কলকাতা বইমেলায় রোজ গার্ডেনের আদলে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন 
অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শেষ আটে জোকোভিচ-সেরেনা