নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নে দ্রুত সমাধান চান তাসকিন

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

তাসকিন আহমেদ। ছবি: শোয়েব মিথুন/বাংলানিউজ

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার জের ধরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করেছ। শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা নেমে এসেছে রাস্তায়। হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা বিভিন্ন সড়কে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে। যানবাহনের লাইসেন্স পরীক্ষাসহ রাস্তা বিশৃঙ্খলভাবে যানবাহন চলাচলও নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে শিক্ষার্থীরা।

মূলত, নিরাপদ সড়কসহ ৯ দফা দাবি নিয়েই রাস্তায় নামে ছাত্র-ছাত্রীরা। সরকারের পক্ষ থেকে দাবি মানার ঘোষণা দেওয়া হলেও মানছে না শিক্ষার্থীরা। তারা চাইছে দাবিগুলোর বাস্তবায়ন। আন্দোলন শুরু হওয়ার তিনদিন পর সরকারসহ বিভিন্ন মহল থেকে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে। কিন্তু দাবি আদায় না করে ক্লাসে ফিরবে না বলছে শিক্ষার্থীরা।

এবার জাতীয় ক্রিকেট দলের ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ সাধুবাদ জানালেন শিক্ষার্থীদের।
শুক্রবার (৩ আগস্ট) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেজে এক পোস্টে এ আহ্বান জানান।

পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আসসালামু আলাইকুম। আশা করি ভালো আছেন সবাই, আমি এখন বাংলাদেশ "এ" দলের হয়ে আয়ারল্যান্ডে অবস্থান করছি। 
আমি আমার ইয়াং ফ্যানস দের উদ্দেশ্যে কিছু, বলতে চাই।

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাস চাপায় দুই স্কুল শিক্ষার্থী দিয়া ও আবদুল করিম নিহত হওয়ার খবরের ঘটনায় আমি অনেক মর্মাহত ছিলাম। ব্যাপারটি আমার খুব খারাপ লাগে,কিন্তু যখন দেখলাম তার সহপাঠী থেকে শুরু করে সারাদেশের ছাত্রছাত্রীরা দোষীদের শাস্তি দাবি ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছে, তখন গর্ববোধ করেছি।

আমি যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে দেখেছি, তারা কিভাবে আমাদের কিছু ভুল ভ্রান্তি চোখে দেখিয়ে দিয়েছে৷ আমাদের প্রত্যেক নাগরিকের উচিত আইন মেনে চলা আমি তোমাদের সাধুবাদ জানাই এবং আশা করি নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নে কর্তৃপক্ষ যথাযর্থ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। এর মাধ্যেমে খুব দ্রুত সমাধান হবে। সুশৃঙ্খল ও সুন্দর বাংলাদেশ কামনা করি।
বাংলাদেশের সকলের জন্য রইলো দোয়া ও ভালোবাসা।’

গত ২৯ জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের দু’টি বাসের পাল্লাপাল্লিতে বিমানবন্দর সড়কে রাস্তার পাশে দাঁড়ানো একদল শিক্ষার্থীর উপর উঠে যায়। তাতে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হলে ক্ষোভে ফেটে পড়া তাদের সহপাঠীরা সড়ক অবরোধ করে বেশ কয়েকটি বাস ভাঙচুর করে। পরে এ ঘটনায় গোটা দেশ উত্তাল হয়।

এ ঘটনায় জাবালে নূর পরিবহনের মালিক, চালক ও হেলপারকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। 

বাংলাদেশ সময়: ২২০২ ঘণ্টা, আগস্ট ০৩, ২০১৮
এমকেএম

আবারও চিটাগংকে জয়ের বন্দরে পৌঁছালেন ফ্রাইলিঙ্ক
ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ
বন্ধ রয়েছে জয়পুরহাট জেলা হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স
কারাবন্দি মায়ের শিশুরা পেলো চকলেট!
মাইজভাণ্ডারে ওরশ শুরু, লাখো ভক্তের ঢল
আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় ১২৬ নিরাপত্তারক্ষী নিহত
চিত্রপরিচালকদের নির্বাচনে ভিন্নধর্মী প্রচারণা
ইস্ট ডেল্টায় যোগ দিলেন ড. আমিনুল
কলকাতা বইমেলায় রোজ গার্ডেনের আদলে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন 
অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শেষ আটে জোকোভিচ-সেরেনা