মদ্রিচের রিলিজ ক্লজ ৭৫০ মিলিয়ন ইউরো!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চুক্তি নবায়নের পর রিয়াল প্রধান পেরেজের সঙ্গে মদ্রিচ-ছবি: সংগৃহীত

ইন্টার মিলানে পাড়ি জমাবেন রাশিয়া বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় লুকা মদ্রিচ এমন গুঞ্জনকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। জানিয়ে দিয়েছে, ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নদের ছেড়ে কোথাও যাচ্ছেন না এই ক্রোয়েট তারকা। সেইসাথে রিয়াল থেকে মদ্রিচকে দলে ভেড়াতে হলে ৭৫০ মিলিয়ন ইউরো রিলিজ ক্লজ পরিশোধ করতে হবে আগ্রহী ক্লাবকে।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিদায়ের চেয়ে মদ্রিচের বিদায় অনেক কঠিন হবে তা আগেই ধারণা করা হয়েছিল। বাস্তবে হয়েছেও তাই। ক্লাবের কাছে জুভেন্টাসে পাড়ি দেওয়ার আগ্রহের কথা জানানোর পর রোনালদোকে আটকে না রাখার সিদ্ধান্ত নেয় রিয়াল। আর মদ্রিচের বেলায় উল্টো ক্লাব না ছাড়ার নিশ্চয়তা চেয়েছে রিয়াল।

এখন আর কোনো সন্দেহ নেই যে, রিয়াল ছাড়ছেন না মদ্রিচ। ২০১৬ সালের নভেম্বরে করা চুক্তিটির মেয়াদ তাই বাড়িয়ে ২০২০ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত করা হয়েছে।

মূলত বিশ্বকাপে অসাধারণ খেলে নিজ দেশ ক্রোয়েশিয়াকে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে তোলার কারণেই মদ্রিচের প্রতি রিয়ালের আগ্রহ বেড়ে যায়। তাছাড়া আগের মৌসুমে রিয়ালের হয়ে তার পারফরম্যান্স তো আছেই।

ইন্টারের আগ্রহ যদি সত্যি হয়ও তবুও রিয়ালের বর্তমান অবস্থান তাদের পক্ষে সামাল দেওয়া দৃশ্যত অসম্ভব। কারণ রিয়ালের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ বলেছেন, 'মদ্রিচের মাদ্রিদ ছাড়তে একটাই উপায়, আর তা হলো ৭৫০ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধ করা।'

মদ্রিচ নিজেও রিয়ালে সুখেই আছেন। ক্লাবের সতীর্থ থেকে শুরু করে সমর্থক, কর্মকর্তা সবাই তাকে বিশেষ নজরে দেখছে। ফলে রিয়াল ছাড়ার কোনো পরিকল্পনা তার নিজেরও নেই।

উয়েফা সুপার কাপে অংশ নিতে আগামী সপ্তাহে মাদ্রিদের অনুশীলনে যোগ দেবেন মদ্রিচ। 

বাংলাদেশ সময়: ২২০৭ ঘণ্টা, আগস্ট ০২, ২০১৮
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফুটবল
কিশোরগঞ্জে ১৭ ভাষা সৈনিককে সম্মাননা 
মাতৃভাষায় বই থাকলেও বঞ্চিত শ্রীমঙ্গলের ত্রিপুরা শিশুরা
বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণ করায় ৫৬৫ যাত্রীর জরিমানা
নেত্রকোণায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার
কথার ঝুড়ি নিয়ে বাড়ি ফেরা


চকবাজার ট্র্যাজেডিতে ভবনগুলো ‘ব্যবহার অনুপযোগী’
৭ তলার ছাদেও বিস্ফোরকের চিহ্ন!
ভিয়েতনাম মিশনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন 
ময়মনসিংহে ডিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদকবিক্রেতা নিহত
চকবাজারে এখনও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের সতর্ক অবস্থান