বিশ্বকাপ না জিতলেও জাতীয় দল ছাড়বেন না মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: সচরাচর খুব কমই কথা বলতে দেখা যায় বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসিকে। সংবাদ মাধ্যমের সামনে আসতে অনাগ্রহের শেষ নেই যেন তার। সেই মেসিকেই এবার সাক্ষাৎকারে বসালো আর্জেন্টিনার জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস।

বার্সেলোনার নিজ বাড়িতে প্রায় পঁয়তাল্লিশ মিনিট সাক্ষাৎকার দিলেন মেসি। কথা বললেন বিশ্বকাপে দল ও নিজের পরিকল্পনা নিয়ে। বার্সেলোনার এই আর্জেন্টাইন তারকা ফরওয়ার্ড কথা বলেছেন ২০১৪ বিশ্বকাপ ফাইনাল নিয়েও। এছাড়াও চলেছে অন্য দল নিয়েও আলোচনা। সাক্ষাৎকারের একপর্যায়ে উঠে আসে, দলের প্রতি আর্জেন্টিনার বাসিন্দারের মনোভাবের কথাও। 

মেসি বলেন, আমরা যদি জার্মানির মতো হতাম! নিজেদের প্রস্তুত করার, মানুষকে কাজ করতে দেওয়ার, অন্যদের কাজের মূল্যায়ন করার পদ্ধতিটাই ওদের ওখানে ভিন্ন। বিশ্বের সবপ্রান্তে কোনো দল তিনটা টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠলে ওই দলকে মূল্যায়ন করা হয়। কিন্তু এখানে (আর্জেন্টিনায়), ফাইনালগুলোতে জিততে না পারায় আমাদেরকে বলা হয় ‘ঠাণ্ডা হৃদয়ের’ (জার্সির জন্য যার মায়া নেই)। আর্জেন্টিনায় সমাজব্যবস্থা একটু জটিল, আমি বুঝি সেটা। যদি আমরা এবারও হেরে যাই, এই মানুষগুলোই আমাদের জাতীয় দল থেকে বিদায় নিতে বলবে। 

‘তিনটি ফাইনালে গিয়ে একটিতেও জিততে না পারায় অন্য যে কারও চেয়ে বিশ্বকাপ জয়ের তাড়নাটা আমাদের মধ্যে বেশি। এটা একটা বোঝা, যা আমরা বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছি এবং যেটা থেকে মুক্তি চাইছি। এক দশক ধরে জাতীয় দলে আমরা যারা খেলছি, বিশ্বকাপ জেতা আমাদের সবারই স্বপ্ন। 

যদি বিশ্বকাপ নাও জিতি, আমি জাতীয় দলে খেলা চালিয়ে যাব। ২০১৬ কোপা আমেরিকার পর (জাতীয় দল থেকে) অবসর নিয়ে আমি বুঝতে পেরেছি, সেটা করা ঠিক হয়নি। ছোট শিশুদের জন্য, নিজের স্বপ্নের জন্য যারা লড়ছে, তাদের জন্য এটি ভুল বার্তা হয়ে দাঁড়াবে। যাই ঘটুকনা কেন, যা করতে চান সেটির জন্য আপনাকে চেষ্টা চালিয়ে যেতেই হবে। লড়তেই হবে।

আর মাত্র ২৮ দিন পরই ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর গড়াচ্ছে রাশিয়ার মাঠে। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে মেসি বলেন, প্রতিবছরই সবকিছু জেতার জন্য লড়ি। প্রতিবছর নিজেকেই নিজে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেই। কারও কাছে কোনো কিছু প্রমাণের জন্য আমার অন্য কোনো ক্লাবে যাওয়ার দরকারও নেই।

মাঝেমধ্যে হয়তো অন্য কোনো লিগ, যেমন- ইংলিশ লিগে যাওয়ার ভাবনা আসতে পারে। তবে বার্সেলোনা ছাড়া আমার জন্য কঠিন। আমি বিশ্বের সেরা ক্লাবে আছি। বিশ্বের সেরা শহরগুলোর একটিতে আছি। আমার পরিবার এখানে থিতু হয়ে গেছে। আমার বাচ্চারা ওদের বন্ধুদের সঙ্গে মিশতে পারছে। 

সর্বকালের সেরা হওয়া না-হওয়া নিয়ে আমার কোনো আকর্ষণই নেই। প্রতিবছরই যখন নতুন করে শুরু করি, নিজের খেলায় উন্নতির চেষ্টা করি, সবকিছু জেতার চেষ্টা করি। প্রতি ম্যাচেই মাঠে সতীর্থদের আর নিজের জন্য সর্বোচ্চটা দেওয়ার চেষ্টা করি। আপনি যত বেশি শিরোপা জিতবেন, তত ভালো। আর জাতীয় দলের জার্সিতে হলে সবচেয়ে ভালো। কারণ, সেই অভিজ্ঞতা এর আগে কখনো আমার হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫২, মে ১৭, ২০১৮
এমকেএম/এনএইচটি

শেখ রাসেলের জন্মদিনে নানা কর্মসূচি
ন্যাপ-এনডিপি-বিকল্পধারায় সম্প্রসারিত হচ্ছে যুক্তফ্রন্ট
হোটেলে ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযান, ১৫ হাজার টাকা জরিমানা
উন্নয়নের স্বার্থে শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে
‘রাজা’য় উজ্জীবিত জিম্বাবুয়ে
ঐক্যবদ্ধ হয়ে সুন্দর আগামী গড়বো: এ্যানী
ঐক্যফ্রন্টের কোনো ভবিষ্যৎ নেই: অর্থমন্ত্রী
সিটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ, ভাইস চেয়ারম্যান খালেদ 
সমাজের কল্যাণে হাজিদের এগিয়ে আসার আহ্বান
‘জার্মান গার্ল’দের কাছে ক্ষমা চাইলো নরওয়ে