php glass

দ্বৈরথে আর্জেন্টিনা, বিশ্বকাপে এগিয়ে জার্মানি

1807 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রোববার রাতে বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা ও জার্মানি। তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে পরস্পরের বিপক্ষে খেলবে ফুটবল বিশ্বের এই দুই পরাশক্তি।

ঢাকা: নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রোববার রাতে বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা ও জার্মানি। তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে পরস্পরের বিপক্ষে খেলবে ফুটবল বিশ্বের এই দুই পরাশক্তি।

আগের দুই মুখোমুখি ফাইনালে দুই দলই একটি করে জিতেছে। কেউ কাউকে ছাড়িয়ে যেতে পারেনি। তাই ২০তম এই আসরের ফাইনালে জিতে নিজেদের ঝুলি আরও সমৃদ্ধ করতে চাইবে উভয় দলই।

বিশ্বকাপ ফাইনালে দু’দলের জয় সমান হলেও বিশ্বকাপের সব পর্বের মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে আছে জার্মানি। বিশ্বকাপে ৬ বারের সাক্ষাতে ৪ বারই জিতেছে জার্মানি। আর একটি ম্যাচ ড্র হয়। বাকি মাত্র ১টি ম্যাচই শুধু জিততে পেরেছে আলবিসিলেস্তেরা। ওই একমাত্র জয়টি অবশ্য ১৯৮৬ বিশ্বকাপে। 

তবে মুখোমুখি ২০ বারের লড়াইয়ে ৯ বার জিতে এগিয়ে আছে আর্জেন্টিনা। আর ৬ বার জয় পেয়েছে জার্মানি। বাকি ৫ ম্যাচ ড্র হয়।

আবারও বিশ্বকাপ ফাইনালে সেই জার্মানি-আর্জেন্টিনা মুখোমুখি। জার্মানিকে আশাহত করে ৮৬ বিশ্বকাপের ফাইনালে জয় তুলে নিলেও বেশিরভাগ সময় আর্জেন্টিনার জয়রথে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে জার্মানি।

১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপ থেকে জার্মানি-আর্জেন্টিনার লড়াই শুরু। প্রথম লড়াইয়েই আর্জেন্টিনাকে ৩-১ গোলে হারায় জার্মানি। ১৯৬৬ সালে দ্বিতীয়বারের লড়াইয়ে জার্মানির সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে আর্জেন্টিনা।

তবে ১৯৮৬ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে জার্মানিকে হতাশায় ডুবিয়ে ৩-২ গোলে শিরোপা জিতে নেয় আর্জেন্টিনা।

১৯৯০ সালে ইতালি বিশ্বকাপে ইতিহাস সৃষ্টি করে আগের আসরের দুই ফাইনালিস্টরা প্রথমবারের মতো আবারও ফাইনালে ওঠে। ওই ম্যাচের শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি থেকে গোল পেয়ে শিরোপা জিতে মধুর প্রতিশোধ নেয় জার্মানি।

এরপর থেকে আর কোয়ার্টার ফাইনালের গণ্ডি পার হতে পারেনি আর্জেন্টিনা। ২০০৬ ও ২০১০ বিশ্বকাপে সুযোগ তৈরি করলেও কোয়াটার ফাইনালে এই জার্মানি বাঁধায় আটকে যায় তারা।

আর তখনই ইংল্যান্ডের বিখ্যাত স্ট্রাইকার লিনেকারের দেওয়া সংজ্ঞাটা আর্জেন্টাইন ভক্তদের মনে বাজতে থাকে। ফুটবলের সংজ্ঞায় তিনি বলেছিলেন ‘ফুটবল হচ্ছে এমন একটি খেলা যাতে বাইশ জন খেলোয়াড় একটি বল নিয়ে খেলে এবং জার্মানি জেতে’। 

একে অপরের বিপক্ষে নিজেদের শেষ বিশ্বকাপ জেতা জার্মানি ও আর্জেন্টিনা আবারও ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। ফাইনালের রেকর্ড উভয় দলের সমান থাকায় দুই দলই এগিয়ে যেতে মরিয়া হয়ে আছে।

এছাড়া এই বিশ্বকাপ জার্মানি জিততে পারলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শিরোপা জয়ী দল হিসেবে ইতালির আসনে ভাগ বসাবে। পাশাপাশি সর্বোচ্চ বিশ্বকাপ জয়ী ব্রাজিলের ঘাড়ে নিশ্বাস ছাড়বে। অন্যদিকে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জিততে পারলে তৃতীয় শিরোপা জয়ী হিসেবে শ্রেষ্ঠদের কাতারে নিজেকে আরও সুপ্রতিষ্ঠিত করতে পারবে।

এই সব হিসাব সামনে রেখে কোনো দলই ছাড় দিয়ে কথা বলতে চাইবে না। তাই রোববার রাতে মারাকানায় এক জমজমাট ফাইনালই আশা করছেন বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা।

বাংলাদেশ সময়: ০৯০০ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০১৪

হাটহাজারীতে জোড় ইজতেমা শুরু
‘যুদ্ধে হিট অ্যান্ড রানে বিশ্বাসী ছিলাম’
ভারতে সেনা ক্যাম্প থেকে রাইফেল-গুলি চুরি, জরুরি সতর্কতা
মূল্য নিয়ন্ত্রণে ভারতের বাজার আগাম পর্যবেক্ষণ জরুরি
শিক্ষাঙ্গনে নৈরাজ্যের জন্য অসুস্থ রাজনীতি দায়ী


যেখানে মেসি-সুয়ারেজের চেয়ে এগিয়ে গ্রিজম্যান
চাকরির আবেদনে বয়সসীমা বাড়ানোর দাবি
রাঙ্গুনিয়ায় নুরুন্নাহার স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা
সোনার স্বপ্ন জাগিয়েও পারলেন না আঁখি
ঘটছে দুর্ঘটনা, তবুও উল্টো পথে চলছে গাড়ি