মেসিকে আটকানো অসম্ভব: বসনিয়া কোচ

3859 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বসনিয়া-হার্জেগোভিনার কোচ সাফেত সুসিক

walton
বসনিয়া-হার্জেগোভিনার কোচ সাফেত সুসিক বলেছেন মাঠে মেসিকে মার্কিং করে আটকানো অসম্ভব।
php glass

ঢাকা: বসনিয়া-হার্জেগোভিনার কোচ সাফেত সুসিক বলেছেন মাঠে মেসিকে মার্কিং করে আটকানো অসম্ভব।

প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলতে আসা বসনিয়া সোমবার ভোরে রিও ডি জেনিরোর ‍ম‍ারকানায় আর্জেন্টিনার সঙ্গে ২-১ গোলে হারার পর বসনিয়ান কোচ সাবেক প্যারিস সেন্ট জার্মেইন স্ট্রাইকার সুসিক এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আমি মনে করি মেসির মতো খেলা সত্যিই কঠিন। আমরা চেয়েছিলাম মেসিকে আটক রাখতে, কিন্তু মাঠে তাকে মার্কিং করে আটকে রাখা অসম্ভব।

তিনি আরো বলেন, এজন্য আমরা মেসিকে স্বাধীনভাবে খেলতে দিয়েছি। ছেলেদের বলেছি মাঠে বল দখলে রাখার রাখার চেষ্টা করতে। তাদের বলেছি মেসিকে যেন ফাউল না করা হয়। যদি সে নিজ ছন্দে খেলতে না পারে তবে তার সঙ্গীদের সাহায্য করবে। আমরা সবাই জানি মেসি এক ম্যাচে ৩ থেকে ৪ গোল করে বসতে পারে।

নিজ শিষ্যদের প্রশংসা করে তিনি বলেন, পরের ইরান ও নাইজেরিয়া ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে আমরা পরবর্তী রাউন্ডে যেতে পারব।

সোমবারের এফ গ্রুপে এবারের বিশ্বকাপের হট ফেভারিট আর্জেন্টিনার বিপক্ষে প্রথমার্ধে সুসিকের ৪-৫-১ ফরমেট ভালোই ফল দেয়। কিন্তু মেসির দুর্দান্ত একটি ফ্রি কিক সেভ করতে গিয়ে খেলার ৩ মিনিটেই আত্মঘাতী গোলে পিছিয়ে পড়ে বসনিয়া।

তবে প্রথমার্ধে সুসিকের শিষ্যরা মেসিকে স্বরুপে আর্বিভূত হতে দেননি। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ল‍া আলবিসিলেস্তেদের কোচ সাবেলা কৌশল পাল্টে ৫-৩-২ ফরমেট থেকে ৪-৩-৩ করেন। এরপরই মেসি আপন মহিমায় উদ্ভাসিত হতে শুরু করেন।

খেলার ৬৫ মিনিটে দুর্দান্ত এক গোল করে দলকে ২-০ তে এগিয়ে নেন নীল-সাদাদের দলনেতা। পরে বসনিয়া খেলার শেষের ৬ মিনিট আগে গোল করলে ২-১ এ জয়ী হয় আর্জেন্টিনা।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৫ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০১৪

নিজেকে নয়, আসগরকেই অধিনায়ক মানেন গুলবাদিন!
নাগেশ্বরীতে বিরল প্রজাতির প্রাণী বনরুই উদ্ধার
’৯২ বিশ্বকাপে খরা কাটাল পাকিস্তান
বেগমগঞ্জে সম্পত্তি বিরোধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩
আন্তর্জাতিক সঙ্গীত সভায় বন্যা


বরিশালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
শেখ হাসিনার নামে চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রীহোস্টেল উদ্বোধন
দেড় লাখ পরিবারের মুখে হাসি ফোটাবে ভিজিএফ’র চাল
হবিগঞ্জে পৃথক বজ্রপাতে ৩ জনের মৃত্যু
অন্ধকারে হারিয়ে যাবে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী হাবিবের ভবিষ্যত?