‘ব্রাজিল-বন্ধু’ রেফারির কাণ্ডে লজ্জিত জাপানিরাও!

4203 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্ত দিয়ে ঘরেই আগুন লেগে গেছে জাপানি রেফারি যুচি নিশিমুরার। বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের একটি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত তাকে পুরো বিশ্বের পাশাপাশি জাপানিদের সমালোচনার শূলেও চড়িয়েছে।

ঢাকা: ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্ত দিয়ে ঘরেই আগুন লেগে গেছে জাপানি রেফারি যুচি নিশিমুরার। বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের একটি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত তাকে পুরো বিশ্বের পাশাপাশি জাপানিদের সমালোচনার শূলেও চড়িয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে জাপানি অনেক ফুটবল সমর্থক রেফারি নিশিমুরাকে ব্রাজিলের ‘খেলোয়াড়’ আখ্যা দিয়ে ক্রোয়েশিয়ার প্রতি দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলোর খবরে বলা হচ্ছে, বিশ্বকাপের বিশতম আসরের প্রথম ম্যাচে নিশিমুরা ক্রোয়েশিয়ানদের বিপক্ষে ব্রাজিলের জন্য যে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দিয়েছেন সেটাকে খেলার প্রধান টার্নিং পয়েন্ট মনে করছেন ফুটবল বোদ্ধারা। এ কারণে ম্যাচে সমানতালে লড়ে ভালো খেলেও হারতে হয়েছে ক্রোয়েশিয়াকে।

নিশিমুরার এমন ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে ক্রোয়েশিয়ার ক্ষুব্ধ কোচ নিকো কোবাকের করা মন্তব্যের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ‘ব্রাজিলপ্রেমী রেফারি’বিরোধী সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এসব মাধ্যমে প্রকাশিত কিছু কিছু ছবিতে নিশিমুরাকে ব্রাজিলের জার্সি পরিহিত দেখা গেছে।

ম্যাচ শেষে শিনোকেসি নামে এক জাপানি ফুটবল সমর্থক টুইটারে লেখেন, ‘এটা পেনাল্টি ছিল না। দুঃখিত ক্রোয়েশিয়া।’

সানাদা মাসাযুকি নামে ক্রোয়েশিয়ার এক টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, ‘জাপানিদের হারানো আমাদের জন্য অনেক কঠিন ছিল।’

আরও এক কাঠি সরেস হয়ে তোন বুহিন নামে এক ব্যক্তি টুইট করেন, ‘এবার যদি ব্রাজিল বিশ্বকাপ জেতে, তবে পুরো বিশ্বই বলবে, এবারের আসরের সবচেয়ে মূল্যবান খেলোয়াড় (এমভিপি) নিশিমুরা।’

এছাড়া, প্রায় ১৬শ’ জাপানি ফুটবল সমর্থক ‘ফুটবলফ্যানি’স’ নামে একটি পাতায় রিটুইট করেন, ‘ম্যান অব দ্য ম্যাচ- রেফারি’।

কেবল বিতর্কিত পেনাল্টির সিদ্ধান্তই মাথা নোয়াচ্ছে না নিশিমুরার। অফসাইড ধরে ক্রোয়েশিয়ার একটি গোল নাকচ এবং লুকা মড্রিচকে ধাক্কা দেওয়ার কারণে ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারকে হলুদ কার্ড দেখানোর জন্যও সমালোচিত হচ্ছেন তিনি।

সংবাদ মাধ্যমগুলোর খবরে বলা হচ্ছে, উদ্বোধনী ম্যাচের পর শুক্রবার বিশ্বব্যাপী জাপানি নাগরিকরা বেশ বিব্রতই ছিলেন। আর্জেন্টিনায় অবস্থানরত চিঝুরুফ গার্সিয়া নামে একজন টুইট করেন, নিশিমুরার ওপর মন্তব্য করতে শুক্রবার তাকে স্থানীয় সাংবাদিকরা অনেক ইমেইল করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সমালোচনার পাশাপাশি জাপানের মূলধারার সংবাদ মাধ্যমও অপরিপক্ক সিদ্ধান্তের জন্য ছাড় দিচ্ছে না নিশিমুরাকে।

ক্রীড়া বিষয়ক দৈনিক ‘নিক্ব্যান স্পোর্টস’র শিরোনাম ছিল, ‘ব্রাজিলকে একটি পেনাল্টি উপহার দিয়েছেন রেফারি নিশিমুরা’।

জাপানি রেফারির বিরুদ্ধে ফুটবলবিশ্বে শুরু হওয়া এমন সমালোচনায় বিব্রত স্পার্সজাপান নামে এক ব্যক্তি টুইট করেন, ‘জাপানের সঙ্গে বিশ্বের আবার যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে’।

উল্লেখ করা যেতে পারে, ২০০৪ সাল থেকে আন্তর্জাতিক ম্যাচে রেফারির দায়িত্ব পালন করছেন নিশিমুরা। ২০১০ সালের দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপেও বেশ ক’টি ম্যাচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। তবে সেবারও বিতর্কিত হয়েছিলেন তিনি। বিশেষ করে নেদারল্যান্ডস ও ব্রাজিলের মধ্যকার কোয়ার্টার ফাইনালে একজন ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়কে লাল কার্ড দেখান তিনি। সেজন্য ১০ জন খেলোয়াড় নিয়ে খেলতে হয় ব্রাজিলকে। আর পরিণতি হিসেবে সেবার বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হয় পেলে-রোনালদো-রবিনহোদের ব্রাজিলকে।

বাংলাদেশ সময়: ২২৩৭ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৪

খুলনা-মোংলা রেলপথের সিংহভাগ কাজ শেষের নির্দেশ
কাঁঠালিয়ায় স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার
পুরুষ ক্রিকেটারদের হারিয়ে গিনেজ বুকে অজি নারী ক্রিকেটার
অগ্নিকাণ্ড নিয়ে বিএনপির মন্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন
ছুটির দিনে জমজমাট বইমেলা


জার্মানিতে ২ ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ মরদেহ
কেমিক্যালে ঠাসা সেই ভবনের বেজমেন্ট!
যশোরে হাতবোমা বিস্ফোরণে যুবক আহত
দাদা সাহেব ফালকে ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ‘গ্রে লাইট’
আলজেরীয় সামরিক এয়ারক্রাফট বিধ্বস্ত, নিহত ২