বত্রিশের চক্করে বিশ্বকাপ॥ ফরহাদ টিটো

1191 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

এটা কোনো সংখ্যাতত্ত্ববিদের আইডিয়া বলে শুনিনি। অথচ আজ থেকে ব্রাজিলে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপের আসরটা ৩২ সংখ্যাকেই বেছে নিলো সব দিক থেকে। পঞ্জিকার হিশেবে প্রতিযোগিতা চলবে ৩২ দিন আর দলও ঠিক বত্রিশটা।

এটা কোনো সংখ্যাতত্ত্ববিদের আইডিয়া বলে শুনিনি। অথচ আজ থেকে ব্রাজিলে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপের আসরটা ৩২ সংখ্যাকেই বেছে নিলো সব দিক থেকে। পঞ্জিকার হিশেবে প্রতিযোগিতা চলবে ৩২ দিন আর দলও ঠিক বত্রিশটা। আর এই দুই ৩২ মিলে যা দাঁড়ায় তা হলো ৬৪। ঠিক চৌষট্টি বছর পর ফুটবলের 'ধর্মভূমি' ব্রাজিলেই ফিরে এলো বিশ্বকাপ ! আর আসবেই বা না কেন ? বন্যেরা যদি বনে সুন্দর হয়,শিশুরা হয় মাতৃক্রোড়ে - ফুটবলতো ব্রাজিলেই সুন্দর !

টিভি পর্দায়, রেডিও থেকে ইথারে, ইন্টারনেট আর কাগজে কাগজে খবর ভাসছে অন্য এক ব্রাজিলের । ধর্মঘট, বিক্ষোভ আর আন্দোলনে অশান্ত  জনবহুল, ল্যাটিন আমেরিকার বৃহত্তম দেশ ব্রাজিল। তাতে কি, যে দাবিতেই পথে নামুক সে দেশের মানুষ, যে চিৎকারেইগলা ফাটাক তারা...একসময় তা থেমে যাবে, ঘুরেফিরে মিশে যাবে ফুটবল উন্মাদনায়। ব্রাজিল দল দ্রুত ছিটকে পড়লে হয়তো পরিস্থিতি হয়ে যাবে যা ছিলো তাই কিন্তু দল আশানুরূপ জিততে থাকলে সব দুঃখ-বেদনা ভুলে যাবে মানুষ । পুরো দেশ ভাসবে বাঁধভাঙা আনন্দে ! 

এ-তো গেল ব্রাজিলের প্রেক্ষাপট। সারা বিশ্ব তবে কি ভাবছে ? বরাবর যা হয় তাই। পুরো পৃথিবী 'উই আর ওয়ান' হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে টিভি পর্দায়। অপরাজনীতি, যুদ্ধ-সন্ত্রাসে ক্লান্ত এই মানব বিশ্বে বিশ্বকাপ ফুটবলের চে' বড় ওষুধ আর কি আছে! দুনিয়ার এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত কথায় কথায় আসবে বিশ্বকাপ,প্রিয় দলের জয়-পরাজয়।চলবে গবেষনা এ দল সে দল নিয়ে। বাদ পড়বে জীবনের অনেক নৈমিত্তিক অনুষঙ্গ - সময় বরাদ্দ হবে ফুটবলে। খেলা দেখতে নির্ঘুম রাত কাটাবে বিশ্বের অর্ধেক মানুষ। বাকিরা ঘুমাবে নিয়মের চে' কম।

বত্রিশ দিনের একএকটা দিন যাবে আর ভিড় বাড়বে আড্ডায়। ঘর-বারান্দায়, পাড়ায়-পাড়ায় প্রতিদিন জন্ম নেবে অগুনতি 'ফুটবল বিশেষজ্ঞ' আর যুক্তিতে হার না মানা বিশ্লেষক। জায়ান্ট স্ক্রিনে খেলা দেখতে উপচে পড়বে মানুষ ক্লাব পাব বার রেস্তরায়। বিয়ারের গ্লাসে ফেনা তুলবে ফুটবল আনন্দ। পতাকায় ছেয়ে যাবে ঘর আর গাড়ির কার্নিশ । কাগজে, ওয়েব পোর্টালে আসবে রমরমা নিউজ। টিভির পর্দায় লাগাতার টক শো আর রাউন্ড টেবিল। "গো...ও...ও...ল..." বলে কমেন্টেটরের গগনবিদারী চিৎকার। দেশে দেশে বিস্তৃত জুয়াড়ির বেটিং জাল। অতীতের মতো অনেক কিছুই ঘটবে এই বিশ্বকাপে। ফলাফলে অঘটন, রেফারির ভুল বাশি, হলুদকার্ড -লালকার্ড, জার্সিখোলা নাচ, সুপার ফ্লপ তারকা, নতুন তারার ঝলক, গ্যালারির মেক্সিকান ওয়েভ ...!

তবু এক মাস ফুটবল আনন্দে ভাসবে পৃথিবী। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানি, স্পেন বা যে-ই জিতুক বিশ্বকাপ ...দিনশেষে জয় হবে ফুটবলের। ফুটবল্ প্রেমী মানুষের। প্রেমের সূতোয় গাঁথা গ্লোবাল ভিলেজের।

বাংলাদেশের ‍আধুনিক স্পোর্টস সাংবাদিকতার পথিকৃৎ মনে করা হয় তাকে। বর্তমানে কানাডার মন্ট্রিয়লে থাকেন। তবে এখনও স্পোর্টস এবং লেখালেখি তার হ্রদস্পন্দনের ‍সাথেই যেনো মিশে আছে। পাঠকদের জন্য সুখবর, বিশ্বকাপ ফুটবলের এবারের আয়োজনে ফরহাদ টিটো রয়েছেন বাংলানিউজের সঙ্গে।


বাংলাদেশ সময় ০৯২৮ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০১৪

ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ ৩ শিক্ষার্থী আটক
খুলনার বইমেলায় ভাষাপ্রেমীদের উপচেপড়া ভিড়
‘ভুলে ভরা কবিতা’র পর ‘বাইসাইকেল’
ঢামেকের বাতাসে পোড়া গন্ধ 
ইমরানকে গাভাস্কার: বন্ধু, কোথায় তোমার নয়া পাকিস্তান?


হিলি সীমান্তে দুই বাংলার সম্প্রীতির মিলন মেলা
ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা
ময়মনসিংহ’ ১৯৫২,ইতিকথা-৩

ভাষা শহীদ স্মৃতি স্মরণে স্থাপনা

খুবিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
কেমিক্যাল গোডাউন সরাতে দ্রুত আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক
জাতিসংঘে স্থায়ী মিশনে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা