php glass

৬ ওভারে ৬৯ দরকার ইংলিশদের

52 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ২৬তম ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ১৯৭ রানের টার্গেট দিয়েছে দ. আফ্রিকা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৬ রান করে প্রোটিয়ারা। জিততে হলে আরো ৩৬ বলে ৬৯ রান করতে হবে ইংল্যান্ডকে। হাতে আছে ৬ উইকেট।

জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়াম থেকে: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ২৬তম ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ১৯৭ রানের টার্গেট দিয়েছে দ. আফ্রিকা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৬ রান করে প্রোটিয়ারা। জিততে হলে আরো ৩৬ বলে ৬৯ রান করতে হবে ইংল্যান্ডকে। হাতে আছে ৬ উইকেট।

১৯৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইংলিশ দলের ওপেন করতে এসেছিলেন অ্যালেক্স হেল এবং মাইকেল ল্যাম্ব। দলীয় ৪৬ রানে মাইকেল ল্যাম্ব (১৮ রানে) ওয়েন পারনেলের বলে ডেভিড মিলারের হাতে ক্যাচ তুলে দেন। তবে ব্যাটে আজও ঝড় তুলেছিলেন অ্যালেক্স হেল। পারনেলের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে ২২ বলে ছয় চার আর এক ছয়ে করেন ৩৮ রান।

পারনেল পরপর দুই বলে অ্যালেক্স হেল এবং মঈন আলীকে ফিরিয়ে দিলে কিছুটা চাপে পড়ে ইংলিশরা। তবে ৩২ রানের জুটি গড়ে চাপ কিছুটা সামাল দেন ইয়ন মরগান এবং জোস বাটলার। দলীয় ১০৫ রানের মাথায় ইয়ন মরগান (১৪ রানে) আউট হয়ে যান।

পাওয়ার প্লে-তে ইংল্যান্ড করেছিল এক উইকেটে ৬২ রান। এই আসরে যেটি চতুর্থ সর্বোচ্চ। তিন উইকেট হারিয়ে প্রথম দশ ওভার থেকে ইংল্যান্ড করেছিল তিন উইকেটে ৯২ রান।

সুপার টেনের খেলায় টস জিতে ফিল্ডিং নিয়েছিল ইংলিশরা।

প্রথম ইনিংসে প্রোটিয়াদের হয়ে ব্যাটিং ওপেন করতে আসেন হাশিম আমলা এবং ডি কক। দলীয় ২২ রানের মাথায় হাশিম আমলা স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদ থেকে বেচেঁ যান। দলীয় ৯০ রানের মাথায় হাশিম আমলা সাজঘরে ফেরেন।

তবে আউট হওয়ার আগে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে প্রথম অর্ধশতক করতে হাশিম আমলা ৩০ বল খেলেন। ৩৭ বলে ৫৬ রান করে সাজঘরে ফেরার আগে ৬ টি চার আর দুইটি ছক্কা হাঁকান হাশিম আমলা।

আরেক ওপেনার ডি কক ৩৩ বলে ২৯ রান করে ট্রেডওয়েলের বলে স্ট্যাম্পিং হয়ে সাজঘরে ফেরেন। তবে তিন নম্বরে নামা ডি ভিলিয়ার্স ক্যারিয়ারের পঞ্চম অর্ধশতক করেন মাত্র ২৩ বল খেলে। যেটি যেকোনো দ. আফ্রিকানদের মধ্যে দ্রুততম। ব্যাটিংয়ে ঝড় তুলে শেষ পর্যন্ত ব্যাটিং ক্রিজে থেকে ২৮ বলে নয় চার আর তিন ছয়ে করেন অপরাজিত ৬৯ রান।

এছাড়া ডেভিড মিলার করেন ১৫ বলে ১৯ রান। ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে ৫৪ রানের জুটি গড়েন মিলার।

ছয় ওভারে (পাওয়ার প্লে) তারা ৫২ রান করেছিল বিনা উইকেটে। দলীয় ৫০ রান হয়েছে ৩৫ বল থেকে। প্রথম দশ ওভারে বিনা উইকেটে ৮৫ রান তোলে দ. আফ্রিকা। আর দলীয় শতক আসে ৭৬ বলে।

এর আগে দ. আফ্রিকা শ্রীলঙ্কার সঙ্গে হেরেছিল ৫ রানে, নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ২ রানে ও নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে ৬ রানে জিতেছিল। অপরদিকে ইংল্যান্ড ডি/এল মেথডে ৯ রানে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে হেরে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ৬ উইকেটে জিতেছিল।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৩ ঘন্টা, ২৯ মার্চ ২০১৪  আপডেট সময়: ২২৫৭ ঘন্টা

ঢাবিতে ভর্তি: দেড় ঘণ্টার পরীক্ষায় এমসিকিউ ৭৫, লিখিত ৪৫
গুজবে সরকারবিরোধী পক্ষের যোগসূত্র পেয়েছে পুলিশ
সামাজিক নিরাপত্তায় ১৪ কোটি ইউরো দেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন
সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি
১০০ গান করবেন তারা


ডাক বিভাগে ৬৫ পদে নিয়োগ
গুজব ঠেকাতে সরকার কঠোর: কাদের
নিজেকে নয় উইলিয়ামসনকে সেরা মানছেন স্টোকস
সাগ‌রে ধরা পড়‌ছে ই‌লিশ, দেখা মিলছে বাজারেও
সড়ক দখল করে ভ্রাম্যমাণ বাজার, মানুষের ভোগান্তি