php glass

কালকের কন্ডিশনে বাংলাদেশ কঠিন প্রতিপক্ষ: শর্মা

78 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
সুপার টেনের দু’ ম্যাচের দু’টিতে জয় পেয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসে রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল ভারত। এ গ্রুপের সবচেয়ে বেশি পয়েন্ট নিয়ে এগিয়ে আছে তারা। শুক্রবার বিকেল সাড়ে তিনটায় স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে ভারত।

মিরপুর থেকে: সুপার টেনের দু’ ম্যাচের দু’টিতে জয় পেয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসে রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল ভারত। এ গ্রুপের সবচেয়ে বেশি পয়েন্ট নিয়ে এগিয়ে আছে তারা। শুক্রবার বিকেল সাড়ে সাতটায় স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে ভারত।

ওয়ানডেতে ২৫ বার বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের দেখা হয়েছে। ৩টি জয়ের বিপরিতে, ২২ হার রয়েছে বাংলাদেশের।  টি-টোয়েন্টিতে এ পর্যন্ত একবার মুখোমুখি হয়েছে ভারত-বাংলাদেশ। ২০০৯ সালের সেই ম্যাচে ২৫ রানে হেরেছে লাল-সবুজরা।

বৃহস্পতিবার ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আসেন ভারতীয় দলের ওপেনার রোহিত শর্মা। দলের তিনটি বিভাগে কাজ করার কথা বলেন তিনি। ‘এ সময় আমরা সবগুলো বিভাগে কাজ করার চেষ্টা করছি। যদি আমরা এ টুর্নামেন্ট জিততে চাই তাহলে তিনটি বিভাগে কাজ করতে হবে। হ্যাঁ আমি স্বীকার করি শেষ ম্যাচে আমরা বেশ কিছু ক্যাচ মিস করেছি। আমরা এ টুর্নামেন্টে সেরা ফিল্ডিং সাইড। আমরা সেদিকে নিজেদের ফোকাস করছি। আমরা চেষ্টা করবো সেরা ফিল্ডিং দেয়ার জন্যে।’

জয়ের জন্যে কি করতে হবে সেটা তাদের জানা। তিনি বলেন,‘ আগের দুইটি ম্যাচ জেতা আমাদের যেমন গুনগত কৌশল ছিলো তেমটি থাকবে আমাগীকালে ম্যাচে। ম্যাচ জেতার জন্যে আমাদের কি করতে হবে সেটা আমরা জানি।’

দু’টি ম্যাচ জয়ের পরও বাংলাদেশকে হালকা ভাবে নিচ্ছেন না তারা। ‘আমাদের লক্ষ্যটা আগামী কালের ম্যাচের দিকে। টুর্নামেন্ট জয়ের ব্যাপারে আমরা খুবই আগ্রহী। ইতোমধ্যে আমরা দুটি ম্যাচ জিতেছি সেটা ভালো দিক। এখন আমাদের কাছে আগমীকালের ম্যাচটাই বড় গুরুত্বপূর্ণ।’

সেমি-ফাইনালসহ ফাইনালে খেলা ভারতের লক্ষ্য। এমনকি শুক্রবারের ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে প্রবল ইচ্ছা দেখা যায় শর্মার কন্ঠে। ‘এটা আমাদের জন্যে একটা ভালো সুযোগ যে কোয়ালিফাই হয়ে সেমিফাইনালে উঠা। কালকের ম্যাচে আমরা অনেটাই নিশ্চিত যে আমরা জিততে পারবো । সামনে সেফিফাইনাল ফাইনাল থাকবে। কিন্তু আমরা এখন এই ম্যাচের দিকে লক্ষ্য রাখছি। এটাই আমাদের জন্যে একটা সুযোগ সেরা কোয়ালিফাইং করে সেমিফাইনালে উঠার।’

রান রেট নিয়ে চিন্তা নেই তাদের। ম্যাচ জেতাই তাদের এক মাত্র লক্ষ্য। ‘রান রেটের থেকে আমাদের কাছে বড় গুরুত্বপূর্ণ হলো ম্যাচ জেতা। রান রেটের বিষয়টি আমরা মাথায় রেখেছি। যদি প্রথম বোলিং করি তাহলে খেয়াল রাখতে হবে কত রানের মধ্যে আউট করতে হবে। আর যদি পরে ব্যাটিং করি তাহলে কত রান তাড়া করত হবে সেটার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমাদের লক্ষ্য ম্যাচ জেতা। যদি ম্যাচ জেতা যায় তাহলেতো রান রেটের চিন্তা আসেনা ।’

বাংলাদেশ নিজেদের মাঠে কঠিন প্রতিপক্ষ সেটা স্বীকার করলেন ভারতের এ ওপেনার। ‘ক্রিকেটে অতিআত্মবিশ্বাস থাকা উচিত না। আমারা আমাদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলার চেষ্টা করবো। বাংলাদেশ তাদের দেশে-নিজের মাঠে যেকোন সময় বিপদজনক হতে পারে। তারা এ কন্ডিশনে ভালো খেলে থাকেন। আমরা তাদেরকে হালকা ভাবে নিচ্ছিনা।’

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫০ ঘণ্টা, ২৭ মার্চ ২০১৪

হুমায়ূন আহমেদের প্রয়াণ
ইতিহাসের এই দিনে

হুমায়ূন আহমেদের প্রয়াণ

শেষ হলো জেলা প্রশাসক সম্মেলন
শিক্ষার্থীদের নিয়ে বৃক্ষরোপণ করলো ছাত্রলীগ
বিএনপির সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার করা হবে: হানিফ
যমুনার পানি বিপদসীমার ৯৮ সেন্টিমিটার ওপরে


‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথে এসে মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ
জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে গেলেন নৌবাহিনীর ৮০ সদস্য
বিমা খাতের অতিরিক্ত কমিশন বাণিজ্য বন্ধে সভা
চট্টগ্রামেই বেগম জিয়ার কারামুক্তি আন্দোলনের সূচনা হবে
জাতীয় মৎস্য পুরস্কার পেলো নৌবাহিনী