php glass

বিজয় দিবসের চ্যাম্পিয়ন সাকিবরা

33 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

তামিম ইকবালের ইউসিবি বিসিবি একাদশের বিপক্ষে ৫৫ রানে জিতে বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি কাপের চ্যাম্পিয়ন হলো সাকিব আল হাসানের প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব।

মিরপুর স্টেডিয়াম থেকে: তামিম ইকবালের ইউসিবি বিসিবি একাদশের বিপক্ষে ৫৫ রানে জিতে বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি কাপের চ্যাম্পিয়ন হলো সাকিব আল হাসানের প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব।

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব: ১৭৪/৬ (২০ ওভার)
ইউসিবি বিসি একাদশ: ১১৯/৮ (২০ ওভার)
ফল: প্রাইম ব্যাংক জয়ী ৫৫ রানে

টস জিতে সাকিবরা ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। দুই ওপেনার এনামুল হক ও লিটন কুমার ৫৯ রান করেন। দলকে লড়াই করার মতো সংগ্রহ এনে দিতে সবচেয়ে বড় অবদান রাখেন লিটন, ৩৯ বলে ছয় চার ও দুই ছয়ে ৬২ রান করেন তিনি।

শেষদিকে অলক কাপালির ৭ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ১৮ রানও ছিল গুরুত্বপূর্ণ।

এনামুল ২৭ ও সাব্বির রহমানের ২৫ রান উল্লেখযোগ্য।

বিসিবির পক্ষে আল-আমিন তিনটি ও মুক্তার আলী দুটি উইকেট নিয়ে প্রাইম ব্যাংকের লাগাম টেনে ধরেছিলেন।

বিসিবির জয়ের জন্য ভরসা ছিলেন তামিম। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারেই অধিনায়ক ও ওপেনারকে সাজঘরে পাঠান সোহাগ গাজী। রনি তালুকদার ও ইমরুল কায়েস ৩৪ রানের জুটিতে হাল ধরেছিলেন। রুবেল হোসেনের বলে সৈকত আলীর তালুবন্দি হন রনি (৩২)। ২৩ রানে ইমরুল সাজঘরে ফিরলে আর কোনো ব্যাটসম্যান তেমন রান পাননি। ২১ রানে শেষ পর্যন্ত টিকে ছিলেন ‍মার্শাল আইয়ুব।

তাইজুল ইসলাম প্রাইম ব্যাংকের পক্ষে দুটি উইকেট নেন। একটি করে পান সাকিব, গাজী, শরীফ, রুবেল ও সাব্বির রহমান।

ম্যাচসেরা ও সিরিজ সেরা দুটো পুরস্কারই গেছে প্রাইম ব্যাংকের দখলে। ম্যাচের সেরা রুবেল ও সিরিজের সেরা ওপেনার এনামুল। ২৯৮ রানে টুর্নামেন্টের সেরা ব্যাটসম্যানও তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৭ ঘণ্টা, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩
সম্পাদনা: ফাহিম হোসেন মাজনুন, নিউজরুম এডিটর  

সেঞ্চুরি করে ম্যাচ সেরা উইলিয়ামসন 
জাতীয় পর্যায়ে বিতর্কে প্রথম শ্রীমঙ্গলের অথৈ
সুফিয়া কামালের জন্মদিনে গুগলের ডুডল
অদৃশ্য ঘাতক বায়ুদূষণ
তানোরে খাদ্য গুদামের নিম্নমানের চাল ফেরত


সোনাগাজীতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার 
উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরিতে প্রোটিয়াদের হারালো কিউইরা
কবি সুফিয়া কামালের জন্ম
ইতিহাসের এই দিনে

কবি সুফিয়া কামালের জন্ম

দ. আফ্রিকার বিপক্ষে একাই লড়ছেন উইলিয়ামসন
পত্রদূত সম্পাদক হত্যাকাণ্ডের বিচার হয়নি ২৩ বছরেও