যুতসই বিদায় ক্যালিসের

23 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বিদায়ী ম্যাচে শতক হাঁকানোর আনন্দে ভাসলেন ক্যালিস

সাদা পোশাকে সারা বছর ব্যাট হাতে লড়াই চালিয়ে যেতে হলো। অবশেষে বিদায় জানালেন। কিন্তু শেষমুহূর্তে জ্যাক ক্যালিস দেখিয়ে দিলেন আরও দেওয়ার বাকি ছিল।

ডারবান: সাদা পোশাকে সারা বছর ব্যাট হাতে লড়াই চালিয়ে যেতে হলো। অবশেষে বিদায় জানালেন। কিন্তু শেষমুহূর্তে জ্যাক ক্যালিস দেখিয়ে দিলেন আরও দেওয়ার বাকি ছিল। ভারতের বিপক্ষে ডারবানে নামার আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন এটাই হতে যাচ্ছে ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট। শচীন টেন্ডুলকার ও রিকি পন্টিংদের যুগে ভক্তদের চোখে হারিয়ে যেতে বসা এই অলরাউন্ডার ক্রিকেটে অমরত্ব পেতে বেছে নিলেন শেষ ম্যাচকে। সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে সেরা খেলোয়াড়ের তকমা লাগিয়ে বিদায় নিলেন দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা।

শচীন ও পন্টিংয়ের মতো বিশ্বসেরার‍া সম্মান নিয়েই বিদায় জানিয়েছেন ক্রিকেটকে। কিন্তু শেষ ম্যাচে তুলির শেষ আঁচড় সেভাবে লাগাতে পারেননি। অথচ ক্যালিস রাঙিয়ে দিলেন, মুগ্ধ করলেন ভক্তদের।

২০১২ সালের শেষ দিকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে পার্থে ক্যারিয়ার শেষ ম্যাচ ও টেস্ট খেলেছিলেন পন্টিং। শেষ কয়েকটি দিন ম্লান হয়ে যেতে বসায় অবসর নিতে বাধ্য হন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়কের ব্যাটে শেষ পাঁচ ইনিংসে এসেছিল ৩২ রান। আর শেষ ম্যাচে এসেছে ৪ ও ৮ রান। মাঠ থেকে বুক ফুলিয়ে ব্যাট উচু করে বিদায় নিতে খানিকটা বেধেছিল তার।

অন্যদিকে ওই বছরেই ওয়ানডে থেকে বিদায় নেওয়া শচীন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন টেস্ট খেলা চালিযে যাওয়ার। প্রিয় ক্রিকেটকে বাই বাই বলার সঠিক সময়ও বেছে নিলেন তিনি। সাদা পোশাকে রীতিমতো লড়াই করতে থাকা এই ব্যাটিং মায়েস্ত্রো দুশতম টেস্টের মাইলফলকে দাঁড়িয়ে আবারও চেনা রূপে ফিরলেন। কিন্তু ভক্তদের প্রত্যাশা ছিল শেষ ম্যাচে আরেকটি শতকের দেখা যাওয়া যাবে তাদের ক্রিকেট ঈশ্বরের কাছে। সেটা পারেননি ব্যাটিং লিজেন্ড, তবে ৭৮ রানের ইনিংস খেলে ঘরের মাঠে আপ্লুত বিদায় নিলেন শচীন।

আর শেষ ম্যাচ খেলতে নামলেন সীমিত ভক্তদের কাছে সেরা খ্যাতি পাওয়া ক্যালিস। চাপের বোঝা হয়তো একটুও ছিল না ৩৮ বছর বয়সী তারকার। ডারবানের কিংসমিডে হাশিম আমলা সাজঘরে ফিরলে নামলেন ২২ গজে। মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ভারতের খেলোয়াড়রাও গার্ড অব অনার দিতে পিছপা হলেন না। বিদায়বেলায় যা করা দরকার সেটাই করে দেখালেন ডানহাতি এই অলরাউন্ডার।

তৃতীয় দিন শেষ করার আগে ৭৮ রানে অপরাজিত ছিলেন ক্যালিস। রোববার চতুর্থ দিন প্রথম সেশনেই পেয়ে যান ৪৫তম টেস্ট শতক। রবিন্দ্র জাদেজাকে ডিপ মিড উইকেটে শট মেরে স্মরণীয় মুহূর্তের সৃষ্টি করেন তিনি। ভারতের বিপক্ষে এটি তার সপ্তম সেঞ্চুরি।

এখানেই থামেননি, টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকাতেও এগিয়ে গেলেন কেপ টাউনের তারকা। ইনিংসে জাদেজার পঞ্চম শিকার হওয়ার আগে ভারতীয় ব্যাটিং জিনিয়াস রাহুল দ্রাবিড়কে টপকে গেছেন ক্যালিস। ৩১৬ বলে ১৩ চারে ১১৫ রান করলেন শেষ ইনিংসে। একই সঙ্গে এক রানের ব্যবধানে দ্রাবিড়কে ছাড়িয়ে তিন নম্বরে উঠে এলেন। টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ করলেন ১৩ হাজার ২৮৯ রানে। অসাধারণ বিদায় বুঝি একেই বলা চলে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৫ ঘণ্টা, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৩
সম্পাদনা: ফাহিম হোসেন মাজনুন, নিউজরুম এডিটর

ইনজুরিতে মিঠুন-মুশফিক, ওয়ানডে দলে মুমিনুল
নির্বাচনী মামলায় পঙ্গু হয়ে যাবে আ’লীগ: মান্না
নাট্যচর্চায় চট্টগ্রামের ইতিহাস উজ্জ্বল: মামুনুর রশীদ
কক্সবাজারে দুটি কিরিচসহ ডাকাত আটক
সিলেটের ১২ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৬৮ জনের মনোনয়ন দাখিল


শেবাচিমে ময়লার স্তূপে ‘২০’ অপরিণত নবজাতকের মরদেহ 
রোহিঙ্গাদের এক লাখ বোতল গ্যাস দেবে আইওএম
নবীনগর উপজেলা আ.লীগের সহসভাপতির বিরুদ্ধে মামলা
না’গঞ্জের কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ, যুবক আটক
নোবেল জয়ের পথে ট্রাম্প!