অ্যাশেজ ফিরল অস্ট্রেলিয়ায়

21 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অ্যাশেজ পুনরুদ্ধারের পর উল্লসিত অসিরা

২০০৯ সালে হারানো অ্যাশেজ আবারও পুনরুদ্ধার করল অস্ট্রেলিয়া। জেমস এন্ডারসনের শেষ উইকেট নিয়ে মিচেল জনসন নিশ্চিত করলেন দলের জয়। মঙ্গলবার পার্থে টানা তৃতীয় ম্যাচ জিতে চার বছরের যন্ত্রণার অবসান ঘটাল অসিরা। ১৫০ রানে পার্থ টেস্ট নিজেদের করে নিল স্বাগতিকরা।

php glass

পার্থ: ২০০৯ সালে হারানো অ্যাশেজ আবারও পুনরুদ্ধার করল অস্ট্রেলিয়া। জেমস এন্ডারসনের শেষ উইকেট নিয়ে মিচেল জনসন নিশ্চিত করলেন দলের জয়। মঙ্গলবার পার্থে টানা তৃতীয় ম্যাচ জিতে চার বছরের যন্ত্রণার অবসান ঘটাল অসিরা। ১৫০ রানে পার্থ টেস্ট নিজেদের করে নিল স্বাগতিকরা।

অস্ট্রেলিয়া: প্রথম ইনিংস- ৩৮৫/১০, দ্বিতীয় ইনিংস- ৩৬৯/৬ ডি.
ইংল্যান্ড: প্রথম ইনিং- ২৫১/১০, দ্বিতীয় ইনিংস- ৩৫৩/১০
ফল: অস্ট্রেলিয়া জয়ী ১৫০ রানে

পাঁচ উইকেট হারিয়ে ২৫১ রানে পঞ্চম ও শেষদিনের খেলা শুরু করে ইংলিশরা। আগের দিনের অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যান ম্যাট প্রায়র ও বেন স্টোকস ব্যাটিং প্রান্ত আগলে রাখেন। মধ্যাহ্নবিরতির আগে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ম্যাচে অভিষেক শতক হাঁকান স্টোকস। দলীয় ২৯৬ রানে প্রায়রকে সাজঘরে পাঠিয়ে এই জুটি ভাঙেন জনসন।

দ্বিতীয় সেশনে ব্যাটিং ক্রিজে আঠার মতো লেগে থাকা স্টোকসকে ব্রাড হ্যাডিনের ক্যাচ বানিয়ে জয়কে তরান্বিত করেন নাথান লায়ন। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান ১২০ রানে মাঠ ছাড়েন।

এদিন লায়ন তার দ্বিতীয় উইকেট নেন গ্রায়েম সোয়ানের। নিজের পরবর্তী দুই ওভারে জনসন টিম ব্রেসন্যান ও এন্ডারসনের উইকেট তুলে নিলে অসিদের জয় নিশ্চিত হয়।

জনসন চার উইকেট নেন দ্বিতীয় ইনিংসে। তিনটি পান লায়ন।

ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন প্রথম ইনিংসে শতক পাওয়া স্টিভেন স্মিথ। চতুর্থ টেস্টটি হবে মেলবোর্নে ২৬ ডিসেম্বর।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০২ ঘণ্টা, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৩
সম্পাদনা: ফাহিম হোসেন মাজনুন, নিউজরুম এডিটর

রাজশাহীতে নানা আয়োজনে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন
শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে বাবার সঙ্গে স্মৃতিসৌধে 
ওলামা দলের সভাপতি মালেক আর নেই
স্বাধীনতা দিবসে ‘লা লিগা’র শুভেচ্ছা
ভোরের আলো ফুটতেই শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাবনত চট্টগ্রামবাসী


স্বাধীনতা দিবসে গুগলের শুভেচ্ছা
রাতে ভোট দেওয়া কি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, প্রশ্ন মান্নার
স্বাধীনতা দিবসে খুলনায় সাইকেল র‌্যালি
‘বাবা-মা, শিক্ষকের কথা শুনে সুন্দর জীবন গড়’
দেশের বিরুদ্ধে এখনও ষড়যন্ত্র চলছে: ড. হারুন