ঢাকা, শনিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

প্রবাসে বাংলাদেশ

মিলান ও দোহায় আটকে আছেন ৫৫ বাংলাদেশি 

সাইফুল ইসলাম মুন্সী, ইতালি থেকে  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ২০, ২০২০
মিলান ও দোহায় আটকে আছেন ৫৫ বাংলাদেশি 

ইতালির বাণিজ্যিক শহর মিলান ও কাতারের রাজধানী দোহায় ৫৫ জন ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশিকে আটকে রাখা হয়েছে।

সরকারের নিয়ম না মেনে যাওয়ায় ওই প্রবাসীদের ইতালিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না বলে জানা গেছে।

ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের আটকে রেখেছে।

জানা গেছে, করোনার কারণে দীর্ঘদিন ফ্লাইট বন্ধ থাকার পর ইতালি সরকার শর্তসাপেক্ষে বাংলাদেশে আটকে পড়া প্রবাসীদের ইতালিতে ফেরার সুযোগ দেয়। শনিবার কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে দেশটিতে পৌঁছায়। তবে ইতালি সরকারের নিয়ম মেনে ফ্লাইট পরিচালনা করায় তাদের কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি।  

এরপর সোমবার দুপুরে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট বাংলাদেশ থেকে ইতালির মিলান শহরে গিয়ে পৌঁছালে সে ফ্লাইটের ১২ বাংলাদেশিকে আটকে রাখা হয়।  

এ বিষয়ে মিলান ইমিগ্রেশনে আটকে পড়া এমিরেটস এয়ারলাইন্সের যাত্রী শিমুল জানান, “এখানকার ইমিগ্রেশন পুলিশ বলছে, ইতালির আইনানুযায়ী ফ্লাইট শিথিলতায় এই মুহূর্তে শুধু যাদের দীর্ঘমেয়াদী পারমিট কার্ড (carta di soggiorno/soggiorno lungo periodo) আছে তারাই ইতালিতে প্রবেশ করতে পারবেন। ”

শিমুল আরও জানান, মিলান ইমিগ্রেশন পুলিশ আমাদের আগামীকাল সকালে এমিরেটসের ফিরতি ফ্লাইটে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেবে বলে জানিয়েছে।  

তবে এই প্রবাসীদের যেন ইতালিতে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় এ বিষয়ে ইতালির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপ করছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুস সোবাহান সিকদার।

অন্যদিকে বাংলাদেশ থেকে ইতালিগামী যাত্রী নিয়ে সোমবার কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট কাতারের রাজধানী দোহায় পৌঁছায়। পরে তাদের মধ্যে ৪৩ জনকে ইতালির ফ্লাইটে উঠতে দেওয়া হয়নি। দীর্ঘমেয়াদী পারমিট কার্ডধারীরাই শুধু ফ্লাইটে উঠতে পেরেছেন।

এই স্বল্পমেয়াদী পারমিট কার্ডধারী ৪৩ জনকে বুধবার বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে একজন অন্তঃসত্ত্বা বাংলাদেশি নারীও রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২০, ২০২০
নিউজ ডেস্ক 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa