প্যারিসে বিজয় দিবস উদযাপন

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন।

walton

ঢাকা: যথাযথ মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন করেছে প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাস।

php glass

রোববার (১৬ ডিসেম্বর) দিবসটি উপলক্ষ্যে দূতাবাস প্রাঙ্গণে রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন প্রবাসী বাংলাদেশি ও দূতাবাসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।

বিজয় দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্যারিসে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, সাংবাদিকসহ শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশী অংশগ্রহণ করেন।    

বিজয় দিবসের আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা করা হয়েছে। সভায় বক্তারা বলেন, এই দিনটি বাংলাদেশের ইতিহাসের এক গৌরবময় দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে বিশ্ব মানচিত্রে স্বাধীন, সার্বভৌম বাংলাদেশের অভ্যুত্থান ঘটে। দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী মুক্তি সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব ও অবদানের কথা তুলে ধরেন তারা। বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ ও জনমানুষের জন্য ত্যাগ ও সংগ্রামের চেতনা বুকে ধারণ করে জাতীয় উন্নয়নে অবদান রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন প্রবাসী বক্তারা।   

ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন তার  বক্তব্যের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়া তিনি মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করেন যার বিনিময়ে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশের জন্ম হয়।
 
রাষ্ট্রদূত বলেন, বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শী ও সাহসী নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীনতা ও মুক্তি অর্জন করেছে। স্বাধীনতার পর যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে পুনর্গঠনের লক্ষ্যে সবাইকে নিয়ে কর্মযজ্ঞ শুরু করেন বঙ্গবন্ধু। তিনি বাঙালি জাতীয়তাবাদের বিকাশে এবং বাঙালি জাতি গঠনে বঙ্গবন্ধুর অবদানের কথা তুলে ধরেন। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত ‘সোনার বাংলা’ প্রতিষ্ঠাই ছিল জাতির পিতার আজীবনের লালিত স্বপ্ন। কিন্তু স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের গভীর ষড়যন্ত্রের ফলে ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। জাতির পিতাকে হারানোর শোককে শক্তিতে রূপান্তর করে একটি সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে সকলকে সচেষ্ট হবার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান। 

বাংলাদেশ সময়: ০১৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৮
টিআর/আরআইএস/

শ্রম আইনে স্বীকৃত অধিকার বাস্তবায়ন করার দাবি
ছোটপর্দায় আজকের খেলা
শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস চক্রের ২৯ সদস্য আটক
নগর দেখে অভিভূত প্রবাসী, মেয়রকে দিলেন হোল্ডিং ট্যাক্স
গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ


নতুন কমিটি গঠনে ড্যাবের কাউন্সিল
স্প্যান ‘৩বি’ পিলারে বসানোর কার্যক্রম শুরু
বিশ্বকাপে পরিবার পাশে পাচ্ছেন না পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা
মুখ দেখে জেনে নিন
নওগাঁয় স্কুলছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা