php glass

চলে গেলেন সংস্কৃতিকর্মী মুহিত আহমেদ

মো. মোসাদ্দেক হোসেন সাইফুল, ফ্রান্স করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মুহিত আহমেদ

walton

প্যারিস: ফ্রান্সে বসবাসরত বাংলাদেশি সংস্কৃতিকর্মী মুহিত আহমেদ মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি...রাজিউন)

গত সোমবার (৯ অক্টোবর) স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৪৮ মিনিটে প্যারিসের জর্জ পম্পেদু হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি।

মুহিতের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে ফ্রান্স-প্রবাসী বাঙালি কমিউনিটিতে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে স্নাতকোত্তর মুহিত পরিচিত ছিলেন একাধারে চিত্রশিল্পী, আবৃত্তিকার, কবি, সংগঠক এবং উপস্থাপক হিসেবে।

তার নামাজে জানাজা আগামী শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বাংলাদেশ জামে মসজিদ ওভারভিলিয়েতে অনুষ্ঠিত হবে। পরদিন শনিবার (১৪ অক্টোবর) দেশে পাঠানো হবে তার মরদেহ।

মুহিত আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক ও ‍দুঃখ প্রকাশ করেছেন ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলর এবং হেড অব চ্যান্সেরি হযরত খান, অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন (আয়েবা)  মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্যা, প্যারিস বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি এনায়েত হোসেন সোহেল, ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশি অ্যাসোসিয়েশন (ইপিবিএ) ফ্রান্স শাখার সভাপতি ফারুক খাঁন ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম , বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন ফ্রান্সের (বিসিএফ) সভাপতি এম ডি নুর, ফ্রান্সে বাংলাদেশিদের জন্য ফরাসি ভাষা শিক্ষার একমাত্র স্কুল ফ্রঁসে আভেক রাব্বানী স্কুলের প্রতিষ্ঠা রাব্বানী খান, অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহির, বাংলাদেশ ইয়ুথ ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক টি এম রেজা, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দেলওয়ার হোসেইন কয়েছ, ফেনী সমিতির সহ-সভাপতি আলাউদ্দীন আল মামুন প্রমুখ।

রাব্বানী খান বলেন, মুহিত আহমেদ ছিলেন ফ্রান্সে বাংলা সংস্কৃতি প্রচার ও প্রসারের অগ্রসৈনিক। তিনি সবসময় সব রকমের রাজনীতির বাইরে থেকে বাংলাদেশের সুনাম বৃদ্ধির জন্য নিরলস কাজ করে গেছেন। তার মৃত্যুতে ফ্রান্সের বাংলাদেশ কমিউনিটিতে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছে তা অপূরণীয়।

হযরত খান বলেন, তারুণ্যের উচ্ছ্বাসে ভরা এক নির্লোভ ও নিরলস সংস্কৃতিকর্মী ছিলেন মুহিত আহমেদ। টগবগে এই যুবকের স্বপ্ন ছিল একটি আদর্শ সাংস্কৃতিক বলয় বিনির্মাণ করা। আমার বিশ্বাস তার এ স্বপ্ন একদিন বাস্তবায়ন হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০১৭/আপডেট ১৮০৩ ঘণ্টা
আরআর/এইচএ/

নদীর তীরের গাছ রক্ষায় স্বেচ্ছাসেবীদের নিবন্ধনের অনুরোধ
পলাতক আসামিদের ফেরত এনে বিচার-দণ্ড কার্যকরে টাস্কফোর্স
জয়পুরহাটে ধর্ষণ-হত্যা মামলায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড
‘তোতলামি কোনো শারীরিক ত্রুটিজনিত সমস্যা নয়’
ব্যর্থতার দায়ে ঐক্যফ্রন্ট বিলুপ্ত করা উচিত: ইরান


রাজশাহীতে গ্যাংকালচার অপরাধ চক্রের মূলহোতা আটক
তালাকপ্রাপ্ত স্বামী এসিডে ঝলসে দিলেন স্ত্রী-কন্যাকে
‘নজরদারিতে’ চসিকের ৮ কাউন্সিলরসহ অর্ধশতাধিক
গাড়ির কালো ধোঁয়া: এক আইনজীবীর অভিনব পদক্ষেপ!
অস্ত্র মামলায় মৌলভীবাজার কারাগারে পাগলা মিজান